আমল আল-মালকি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আমল আল মালকি
জন্মদোহা, কাতার
পেশানারীবাদী, শিক্ষাবিদ
ভাষাআরবি
জাতীয়তাকাতারি
সাহিত্য আন্দোলননারীবাদ
উল্লেখযোগ্য রচনাআরব্য খবরে আরব্য নারী

আমল মোহাম্মদ আল মালকি (আরবি: أمل محمد المالكي‎‎) একজন কাতারি শিক্ষাবিদ। ২০০৫ সালে তিনি তার দেশের শিক্ষা নগরীর একটি মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম কাতারি অধ্যাপক হন, যখন তাকে কাতারের কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। তিনি এখন হামাদ বিন খলিফা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ডিন, নয়টি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ডিন উপাধিধারী প্রথম কাতারি।

জন্ম ও পরিচয়[সম্পাদনা]

মালকি কাতারের দোহায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একজন নারীবাদী লেখক ও কাতারি শিক্ষাবিদ।

প্রাথমিক ও শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

আমল আল মালকি কাতারের দোহায় জন্মগ্রহণ করেন এবং রাজধানী শহরে বেড়ে ওঠেন।[১] তার বাবা ছিলেন কাতারি, আর মা লেবানন থেকে কাতারে এসেছিলেন।[২] ছোটবেলায় তিনি তার বাবার চাকরির কারণে ঘন ঘন ভ্রমণ করতেন ও তার পরিবার লন্ডনে একটি বাড়ি রেখেছিল।[৩]

১৬ বছর বয়সে তিনি কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন, যেখানে তিনি ১৯৯৬ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।[৩][৪][৫] এরপর তিনি যুক্তরাজ্যে পড়াশোনা করতে চলে যান। ১৯৯৭ সালে এসওএএস লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিআরবি ভাষাতত্ত্ব ও অনুবাদে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।[৩][৪][৬] এক বছরের বিরতির পর তিনি একটি ডক্টোরাল প্রোগ্রামে ভর্তি হন। ২০০৩ সালে এসওএএস থেকে তুলনামূলক সাহিত্যে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন।[৪][৫]

পেশাজীবন[সম্পাদনা]

কাতারে ফিরে আসার পর মালকি কাতারে সদ্য প্রতিষ্ঠিত কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করার জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়টি একজন কাতারি অধ্যাপক নিয়োগ করতে অনিচ্ছুক ছিল। পরিবর্তে তিনি ছয় মাসের জন্য প্রশাসনিক কাজ সম্পন্ন করতে সম্মত হন। যখন স্থানীয় প্রশাসকরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধায়কদের আবেদন করেছিলেন যাতে তিনি তাকে নিয়োগ দিতে পারেন।[২] এই সময়ের মধ্যে তাকে অতিথি অধ্যাপক হিসেবে থাকার জন্য পিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ক্যাম্পাসে পাঠানো হয়েছিল।[৩][৭] অবশেষে ২০০৫ সালের শেষের দিকে তিনি কাতারের কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসেবে পূর্ণকালীন পদে নিযুক্ত হন।[১] এর মাধ্যমে তিনি প্রথম এবং এক দশকেরও বেশি সময় ধরে কাতারের শিক্ষা নগরীর ছয়টি মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ের যে-কোনো একটিতে একমাত্র কাতারি অনুষদ সদস্য ছিলেন। [৩][৪]

এদিকে ২০১১ সালে তিনি হামাদ বিন খলিফা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুবাদ ও ব্যাখ্যার প্রতিষ্ঠান খুঁজে পেতে সাহায্য করেছিলেন, যা তিনি ২০১৫ সাল পর্যন্ত নির্বাহী পরিচালক হিসেবে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।[৮][৯] ২০১৩ সালে কার্নেগি মেলন ত্যাগ করে, ২০১৫ সালে তিনি হামাদ বিন খলিফা বিশ্ববিদ্যালয়ের মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ডিন হন।[৫][৭][৯][১০] বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন হিসেবে মালকিই প্রথম কাতারি ছিলেন যেটি শিক্ষা নগরী প্রতিষ্ঠানে এই উপাধি পেয়েছিল।[২] ডিন হিসেবে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি আধুনিক মানবতাবাদ সম্মান প্রোগ্রাম এবং কাতারের একমাত্র মহিলা শিক্ষা সম্মান প্রোগ্রাম খুঁজে বের করার জন্য কাজ করেছিলেন।[৩]

মালকি একজন নারীবাদী হিসেবে পরিচিত, এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে তার কাজ ইসলামী নারীবাদের উপর শিক্ষণ কোর্স, সেইসাথে উপনিবেশ-পরবর্তী তত্ত্ব অন্তর্ভুক্ত করেছে[১][২] তিনি রচনা ও অনুবাদের তত্ত্বের কোর্সও শিখিয়েছিলেন।[১১] ২০১২ সালে তিনি আরব্য খবরে আরব্য নারী: পুরাতন বাঁধাধরা ও নতুন মাধ্যম বই লিপিবদ্ধ করেন। বইটির সহ-লেখক ছিলেন ডেভিড এস কাউফার, সুগুরু ইশিজাকি এবং কীরা ড্রেহের প্রমুখ।[২][৭][১২] ২০১২ সালে #ImHalfQatari হ্যাশট্যাগ অভিযান শুরু করার প্রচেষ্টাসহ তার ব্লগ এবং অন্যান্য প্রচারমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কার্যকলাপের সাথেও জড়িত। [৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Lepeska, David (২০১০-০৪-০৯)। "Amal al Malki, Qatari woman in a man's world"The National (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ Lepeska, David (2010-04-09). "Amal al Malki, Qatari woman in a man's world". The National. Retrieved 2021-06-17.
  2. "Dr. Amal Mohammed Al-Malki"Women of Qatar (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-১১-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ "Dr. Amal Mohammed Al-Malki". Women of Qatar. 2020-11-24. Retrieved 2021-06-17.
  3. "Dr. Amal Mohammed Al-Malki"Women of Qatar (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-১১-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ 
  4. Lepeska, David (২০১০-০৪-০৯)। "Amal al Malki, Qatari woman in a man's world"The National (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ 
  5. "Faculty Biographies: Dr. Amal Mohammed Al Malki"Hamad Bin Khalifa University (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ 
  6. "HBKU Announces Dr. Amal Al Malki as Founding Dean of HBKU's College of Humanities and Social Sciences"Hamid Bin Khalifa University (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ 
  7. "HBKU Announces Dr. Amal Al Malki as Founding Dean of HBKU's College of Humanities and Social Sciences"Hamid Bin Khalifa University (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-০১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ "HBKU Announces Dr. Amal Al Malki as Founding Dean of HBKU's College of Humanities and Social Sciences". Hamid Bin Khalifa University. 2016-01-17. Retrieved 2021-06-22.
  8. "Faculty Biographies: Dr. Amal Mohammed Al Malki"Hamad Bin Khalifa University (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ "Faculty Biographies: Dr. Amal Mohammed Al Malki". Hamad Bin Khalifa University. Retrieved 2021-06-22.
  9. "Interview with Amal Al-Malki"The Media Majlis। ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ 
  10. Varghese, Joseph (২০১৯-০৫-১৯)। "HBKU launches 8 new academic programmes"Gulf-Times (আরবি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ 
  11. "Interview with Amal Al-Malki"The Media Majlis। ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২২ "Interview with Amal Al-Malki". The Media Majlis. 2019. Retrieved 2021-06-22.
  12. Taha, Maisa (২০১৩)। "Arab Women in Arab News: Old Stereotypes and New Media Amal Al-Malki, David Kaufer, Suguru Ishizaki, and Kira Dreher": 145–148। আইএসএসএন 1552-5864ডিওআই:10.2979/jmiddeastwomstud.9.3.145