আব্দুল লতিফ বিশ্বাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আব্দুল লতিফ বিশ্বাস
পূর্বসূরীসহিদুল্লাহ খান
উত্তরসূরীএম মোজাম্মেল হক
মাননীয় মন্ত্রী, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়
কাজের মেয়াদ
২৪ জানুয়ারি ২০০৯ – ২১ নভেম্বর ২০১৩
প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনা
সিরাজগঞ্জ-৫ আসন আসনের
সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ – ৫ জানুয়ারি ২০১৪
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯ ডিসেম্বর ১৯৫৩
বেলকুচি সিরাজগঞ্জ, পূর্ব পাকিস্তান(বর্তমান বাংলাদেশ)
নাগরিকত্বপাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
পেশারাজনীতিবিদ ও আইনজীবী

আব্দুল লতিফ বিশ্বাস একজন বাংলাদেশি রাজনীতিবিদ ও সাবেক মন্ত্রী। তিনি সিরাজগঞ্জ-৫ আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে ২০০৮-এর নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১] তিনি বর্তমানে সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।[২]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

আব্দুল লতিফ বিশ্বাস ১৯ ডিসেম্বর ১৯৫৩ সালে সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার কামারপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

তৃণমুল রাজনীতি থেকে উঠে আসা বেলকুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিন সভাপতির দায়িত্ব পালন করা আলহাজ আব্দুল লতিফ বিশ্বাস স্থানীয় সরকারেও অভিজ্ঞতা সম্পন্ন। দুই বার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পরে সিরাজগঞ্জ-৫ আসন থেকে ১৯৯৬ সালে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে একই আসনে নির্বাচন করে পরাজিত হলেও ২০০৮ সালের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর তিনি ২৪ জানুয়ারি ২০০৯ তারিখে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব পান এবং ২১ নভেম্বর ২০১৩ তারিখ পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে রহস্যজনক কারণে তিনি মনোনয়ন বঞ্চিত হন।[৩] দলীয় বা সরকারের কোন দায়িত্ব না থাকলেও তিনি সকল দলীয় কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করে সিরাজগঞ্জের রাজনীতিতে সকৃয় ভুমিকা পালন করেছেন। টানা দ্বিতীয় মেয়াদের আওয়ামী লীগ সরকারের ৬ মাস পর তাকে জেলা পরিষদের প্রশাসকের পদে নিয়োগ দেয়া হলো।[৪][৫]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

আব্দুল লতিফ বিশ্বাস ব্যক্তিগত জীবনে বেলকুচি পৌরসভার মেয়র বেগম আশানুর বিশ্বাস সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ভালো নেই সাবেক মন্ত্রী লতিফ বিশ্বাস বাংলাদেশ প্রতিদিন
  2. সিরাজগঞ্জ-৫ আসন: দ্বন্দ্ব ভুলে বিশ্বাস-মণ্ডল এক মঞ্চে দৈনিক যুগান্তর
  3. কর্মীরাই নৌকার ভোটের মাস্টার: আব্দুল লতিফ বিশ্বাস একুশে টেলিভিশন
  4. "Md. Abdul Latif Biswas"Department of Fisheries। ২০ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ মে ২০১৯ 
  5. "Many go, a few stay"The Daily Star। ১৩ জানুয়ারি ২০১৪। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]