আবদুর রউফ (নীলফামারীর রাজনীতিবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আবদুর রউফ
আবদুর রউফ (নীলফামারীর রাজনীতিবিদ).png
রংপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৭ মার্চ ১৯৭৩ – ৬ নভেম্বর ১৯৭৩
নীলফামারী-১ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১ – ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬
পূর্বসূরীবেগম মনসুর মহিউদ্দীন
উত্তরসূরীশাহরিন ইসলাম চৌধুরী তুহিন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মআনু. ১৯৪১
নীলফামারী জেলা, পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমানে- বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৯ নভেম্বর ২০১১
রাজনৈতিক দলগণফোরাম
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ
দাম্পত্য সঙ্গীফরিদা রউফ আশা
প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

আবদুর রউফ (আনু. ১৯৪১–২৯ নভেম্বর ২০১১) বাংলাদেশের নীলফামারী জেলার রাজনীতিবিদ ও মুক্তিযোদ্ধা যিনি তৎকালীন রংপুর-১নীলফামারী-১ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১] প্রথম ও পঞ্চম জাতীয় সংসদে তিনি হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২][৩]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আবদুর রউফ আনু. ১৯৪১ সালে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বাগডোকরা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা আজিজুল্লা সরকার, যিনি ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পান হানাদার বাহীনির হাতে নিহত হন।

তার স্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য ও মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদিকা ফরিদা রউফ আশা ১০ সেপ্টেম্বর ২০০৭ সালে মৃত্যুবরণ করেন।[৪]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

আবদুর রউফ ১৯৬৩ থেকে ১৯৬৪ মেয়াদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (রাকসু) সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৬৮ থেকে ১৯৬৯ মেয়াদে তিনি পূর্ব পাকিস্তান কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[৪]

১৯৭১ সালে সরাসরি মুক্তিযুদ্ধ অংশগ্রহণ করেন এবং ছয় নম্বর সেক্টরে প্রবাসী বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধি ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭০ সালের পাকিস্তানের নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য (এমএনএ) নির্বাচিত হন। ১৯৭২ সালে বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সদস্য ছিলেন।[৪]

তিনি ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন রংপুর-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[২] শেখ মুজিবুর রহমানের পার্লামেন্টে তাকে ডেপুটি চিফ হুইপের দায়িত্ব দেয়া হয়। ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নীলফামারী-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩] পঞ্চম জাতীয় সংসদে বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[৪]

তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকলেও পরে গণফোরামের রাজনীতির সাথে জড়িত হন। তিনি গণফোরামের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ছিলেন।[৪]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আবদুর রউফ ২৯ নভেম্বর ২০১১ সালে মৃত্যুবরণ করেন।[৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাবেক হুইপ আবদুর রউফ আর নেই"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২০ 
  2. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "৫ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. নিজস্ব প্রতিবেদক (২৯ নভেম্বর ২০১৯)। "সাবেক হুইপ আবদুর রউফের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী আজ"এনটিভি। ১৯ আগস্ট ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২০ 
  5. "Former whip Abdul Rouf dies"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ আগস্ট ২০২০