আনোয়ারা আলী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

আনোয়ারা আলী একজন ব্রিটিশ কনজারভেটিভ পার্টির রাজনীতিবিদ। তিনি একাধারে বো ওয়েস্টের সাবেক কাউন্সলির, টাওয়ার হ্যামলেটসের স্বাস্থ্য ও মানব কল্যাণের মন্ত্রণালয়ের সাবেক সদস্য ছিলেন।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আলীর বাবা জাবেদ আলী, একজন ব্যবসায়ী, এবং মাতা সলিমা খাতুন। আলী বাংলাদেশে (তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান) জন্মগ্রহণ করেন এবং শৈশবেই যুক্তরাজ্যে চলে আসেন, যেখানে তিনি পড়াশোনা শেষ করেন। তার বড় ভাই সিরাজ উদ্দিন এবং বোন শানারা বেগমও যুক্তরাজ্যে বসবাস করেন। ১৯৯৭ সালে আলী সেন্ট বর্থলোমেউ এন্ড রয়্যাল লন্ডন মেডিকেল স্কুল থেকে এমবিবিএস পাশ করেন।

পেশাজীবন[সম্পাদনা]

২০১০ সাল পর্যন্ত আলী স্থানীয় সরকারের কাউন্সিলর ছিলেন এবং টাওয়ার হ্যামলেটসের স্বাস্থ্য ও মানব কল্যাণের মন্ত্রণালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন। ২০০৬ সালে, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলর নির্বাচনে তিনি লেবার পার্টির মনোনীত প্রার্থী হয়ে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। নির্বাচনের মাত্র আট সপ্তাহ আগে রাজনীতিতে প্রবেশ করেও তিনি বো ওয়েস্টের আসন জয় লাভ করেন। তিনি জেনেট লুডলওকে, টাওয়ার হ্যামলেটসের লিবারেল ডেমোক্রেট দলের নেতা, এমন এক আসন থেকে হারান যে আসনে লিবারেল ডেমোক্রেটরা ৩০ বছর ধরে নিয়ন্ত্রণ করে আসছিলো। আলী এবং তার সহকর্মীরা সমগ্র লন্ডনে লেবার পার্টির হয়ে সর্ববৃহৎ জয়লাভ করেন। ২০০৭ সালে, লেবার পার্টির উপনেতা নির্বাচনে হেরিয়েট হারমানের হয়ে প্রচারণা করেন এবং নির্বাচনে হারমান জয়লাভ করেন। ২০১০ এর ফেব্রুয়ারিতে, জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সংস্কারে লেবার পার্টির ব্যর্থতার কারণে আলী কনজারভেটিভ পার্টি থেকে পদত্যাগ করেন। ফলে, মে মাসের নির্বাচনে তিনি পুনর্নির্বাচিত হতে ব্যর্থ হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "টাওয়ার হ্যামলেটে মেয়র পদে মনোনয়ন পেলেন আনোয়ারা"দৈনিক সমকাল। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৮