আওয়ার প্ল্যানেট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আওয়ার প্ল্যানেট
300px
"আওয়ার প্ল্যানেট" এর উদ্বোধনী দৃশ্য
ধরণপ্রকৃতির উপর নির্মিত তথ্যচিত্র
পরিচালকএলিস্টার ফদারগিল
বর্ণনাকারী
রচয়িতাস্টিভেন প্রাইস
প্রস্তুতকারক দেশযুক্তরাজ্য
মূল ভাষাইংরেজি
মৌসুম সংখ্যা
পর্বসংখ্যা
নির্মাণ
নির্বাহী প্রযোজক
  • Alastair Fothergill
  • Keith Scholey
  • Colin Butfield
  • Jonathan Mussman
চলচ্চিত্রকাররজার হরোক্স
ব্যাপ্তিকাল৪৮-৫৩ মিনিট
প্রোডাকশন কোম্পানি
সম্প্রচার
মূল চ্যানেলনেটফ্লিক্স
ছবির ফরম্যাট
অডিও ফরম্যাট
মূল প্রদর্শনী৫ এপ্রিল ২০১৯
বহিঃসংযোগ
ওয়েবসাইট

আমাদের প্ল্যানেট Netflix এর জন্য তৈরি একটি ব্রিটিশ প্রকৃতি ডকুমেন্টারি সিরিজ। সিরিজটির ধারা বর্ণনা করেছেন ডেভিড এটেনবরো এবং প্রযোজনা নেতৃত্বে ছিলেন সিলভারব্যাক ফিল্মসের অ্যালাস্টের ফদার্গিল এবং কেইথ স্কোলি। তারা ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ড (ডব্লিউডব্লিউএফ) এর সহযোগিতায় বিবিসির অন্যান্য ডকুমেন্টারি সিরিজ কুমেন্টারি সিরিজ প্ল্যানেট আর্থ, ফ্রোজেন প্ল্যানেট এবং দ্য ব্লু প্ল্যানেটও তৈরি করেছিলেন।

এই সিরিজগুলোয় পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলে থাকা বাসস্থানের তুলনায় ভিন্ন ধরনের প্রাণীদের সমস্যা তুলে ধরা হয়েছে। এটি প্রথাগত প্রকৃতিভিত্তিক ডকুমেন্টারির চেয়ে পরিবেশে মানুষের প্রভাবের উপর বৃহত্তর ফোকাসের উপর অধিক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এটি নেটফ্লিক্সের করা প্রথম প্রকৃতি বিষয়ক ডকুমেন্টারি। এর সবগুলি পর্ব ৫ এপ্রিল ২০১৯-এ মুক্তি পায়। নেটফ্লিক্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী, মুক্তির প্রথম মাসে সিরিজটি উপভোগের জন্য ২৫ মিলিয়ন পরিবার ট্র্যাকে ছিল। [১]

প্রযোজনা[সম্পাদনা]

১৫ এপ্রিল ২০১৫ তে বিবিসির নেচার সিরিজ প্ল্যানেট আর্থে কাজ করা দল ঘোষণা দেয় তারা আট খণ্ডের একটি তথ্যচিত্র সিরিজ তৈরি করবে নেটফ্লিক্সের জন্য যেটি ২০১৯ এ মুক্তি পাবে। [২] এটি তৈরিতে সময় লেগেছে চার বছর আর চিত্রিত হয়েছে ৫০টি দেশে। এর পেছনে কাজ করেছে ৬০০র বেশি কর্মী। পৃথিবীব্যাপী যে বৈচিত্র্যময় বাসস্থানের বিস্তৃতি রয়েছে তাই এই সিরিজটির আলোকপাতের কেন্দ্রবিন্দু। এর মধ্যে রয়েছে সুমেরুর বিজনভূমি, গভীর সমুদ্র, আফ্রিকার বিস্তৃত ভূচিত্র এবং দক্ষিণ আমেরিকার বৈচিত্র্যময় জঙ্গল। [৩]

২০১৮ সালের নভেম্বরে ডেভিড এটেনবরোকে নেপথ্য বর্ণনাকারী হিসাবে ঘোষণা করা হয়। আরো জানানো হয় প্রকাশের তারিখ ৫এপ্রিল ২০১৯। [৪]

প্রচারণা[সম্পাদনা]

লন্ডনের ন্যাচারাল হিস্টোরি মিউজিয়ামে ৪ এপ্রিল ২০১৯ এ এই সিরিজের প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। শো'তে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রিন্স চার্লস ও তার দুই ছেলে প্রিন্স উইলিয়াম এবং প্রিন্স হ্যারি, চার্লি ব্রুকার, ডেভিড বেকহাম ও তার পুত্র ব্রুকলিন বেকহ্যাম, এলি গোল্ডিং এবং সিরিজের অনবদ্য নেপথ্য কণ্ঠদাতা ডেভিড অ্যাটেনবরো। তাদের উপস্থিতি জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে আন্দোলনেরপ্রতি সমর্থনের প্রত্যয় ব্যক্ত করে। [৫]

ভাষণ দেওয়ার সময়, প্রিন্স চার্লস বলেন, তিনি আশা করেছিলেন "আমাদের প্ল্যানেট" হয়ত "কোন পদক্ষেপের প্রয়োজন ছিল সে সম্পর্কে কোটি কোটি মানুষকে জাগ্রত করবে"। ডেভিড আশা করেন যে মানুষই পারে এই গ্রহের দায়িত্ববান নাগরিক হয়ে উঠতে, যা আমাদের একমাত্র আবাস। মানুষই পারে এই গ্রহের সৃষ্টিদের এখানে বসবাসের সুযোগ দিতে।" [৬]

"আওয়ার প্ল্যানেট" এর প্রথম টিজার ট্রেলারটি ৮ নভেম্বর ২০১৮ তে মুক্তি পেয়েছিল।[৭][৮] তিন মাস পরে ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ এ, দ্বিতীয় টিজার ট্রেলার মুক্তি পায়। [৮] ১৯৯৯ সালের ১৯ মার্চ ডকুমেন্টারিটির জন্য আনুষ্ঠানিক ট্রেলার প্রকাশ করা হয়। [৯]

পর্বসমূহ[সম্পাদনা]

১ ঘন্টা দীর্ঘ বোনাস পর্ব রয়েছে "আমাদের প্ল্যানেট - বিহাইন্ড দ্য সিন" নামে। এটি কেবল ৮ম পর্বের শেষে অ্যাক্সেসযোগ্য।

বিতর্ক[সম্পাদনা]

এটি মুক্তির পর, বিভিন্ন ক্লিপ YouTube এ আপলোড করা হয়। সিরিজের দ্বিতীয় পর্ব, ফ্রজেন ওয়ার্ল্ডসে, একটি ক্লিপে দেখা যায় একটি সিন্ধুঘোটক শুকনো পাহাড়ের উপর থেকে পড়ে যেতে। বরফ গলে যাওয়ার কারণে তাকে পড়তে গিয়ে আঘাত পেতে হয় এবং মৃত্যু হয় এই পতনে সিন্ধুঘোটকটির। এই দৃশ্য মানসিকভাবে আঘাত করার জন্য যথেষ্ট এবং একই সাথে হৃদয়বিদারক। [১০][১১]

সাউন্ডট্র্যাক[সম্পাদনা]

আওয়ার প্ল্যানেট
স্টিভেন প্রাইস, জাশা ক্লেবে, জ্যাকব শিয়া কর্তৃক সাউন্ডট্র্যাক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ৫ এপ্রিল ২০১৯ (ডিজিটাল)
ঘরানাSoundtrack, ক্লাসিক্যাল মিউজিক
দৈর্ঘ্য:২৬:০০
সঙ্গীত প্রকাশনীDecca Records, Universal Music
প্রযোজকনেটফ্লিক্স

সাউন্ডট্র্যাকটি বিশেষভাবে আমাদের প্ল্যানেটের জন্য সংকলিত করে মুক্তি দেয়া হয়েছিল। আবহ সংগীত "ইন দিস টুগেদার" গানটি ইংরেজ গায়িকা এবং গীতিকার এলি গোল্ডিংয়ের সহযোগিতায় অন্তর্ভুক্ত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Porter, Rick (১৬ এপ্রিল ২০১৯)। "'Umbrella Academy' Draws 45M Global Viewers, Netflix Claims"The Hollywood Reporter। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১৯ 
  2. Beaumont-Thomas, Ben (১৫ এপ্রিল ২০১৫)। "Planet Earth team head to Netflix for epic new series Our Planet"। The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  3. Spangler, Todd (১৫ এপ্রিল ২০১৫)। "Netflix Slates 'Our Planet' Massive Nature Documentary Series for 2019"Variety। সংগ্রহের তারিখ ৮ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. Waterson, Jim (৮ নভেম্বর ২০১৮)। "David Attenborough to present Netflix nature series Our Planet"। The Guardian। সংগ্রহের তারিখ ৯ নভেম্বর ২০১৮ 
  5. Ling, Thomas (৫ এপ্রিল ২০১৯)। "Royals join David Attenborough for star-studded Our Planet Netflix premiere"Radio Times। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৮ 
  6. "UK royals attend Netflix 'Our Planet' premiere"Reuters। ৪ এপ্রিল ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৮ 
  7. Kamp, Justin (৮ নভেম্বর ২০১৮)। "Netflix Shares Teaser for New Documentary Series Our Planet"Paste Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১০ 
  8. উদ্ধৃতি খালি (সাহায্য) 
  9. Greene, Steve (২০১৯-০৩-১৯)। "'Our Planet' Trailer: Ambitious Netflix Nature Series Visits All Seven Continents"Indie Wire (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১০ 
  10. "Our Planet | Walrus | Behind the Scenes | Netflix"YouTube (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৪-১০ 
  11. Perrie, Stewart (৯ এপ্রিল ২০১৯)। "Viewers Are Being Broken By The Walrus Scene From Netflix's Our Planet"LADbible। সংগ্রহের তারিখ ১২ এপ্রিল ২০১৯