অরুণা রেড্ডি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বুদ্দা অরুণা রেড্ডি
প্রতিনিধিত্ব দেশভারত
জন্ম (1995-12-25) ২৫ ডিসেম্বর ১৯৯৫ (বয়স ২৪)
হায়দ্রাবাদ , তেলঙ্গানা , ভারত
বাসস্থানহায়দ্রাবাদ , তেলঙ্গানা, ভারত
উচ্চতা৪ ফুট ৮ ইঞ্চি [১]
শৃঙ্খলানারী আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টিকস
শ্রেণীসিনিয়র আন্তর্জাতিক এলিট (ভারত জাতীয় দল)
জাতীয় দলে বছর২০১৩
কলেজ দলসেন্ট মেরি'স কলেজ, হায়দ্রাবাদ

বুদ্দা অরুণা রেড্ডি (জন্ম: ২৫ শে ডিসেম্বর, ১৯৯৫) একজন ভারতীয় আর্টিস্টিক জিমন্যাস্ট, যিনি আন্তর্জতিক প্রতিযোগিতাসমূহে অংশগ্রহণ করেন। তিনি মেলবোর্নে ২০১৮ বিশ্বকাপ জিমন্যাস্টিকস এর মহিলা ভল্ট ইভেন্টে ব্রোঞ্জ মেডেল জিতেছিলেন। তিনি প্রথম ভারতীয় হিসেবে জিমন্যাস্টিক বিশ্বকাপে মেডেল জয়ী হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেন। তিনি বেলজিয়ামের অ্যান্টওয়ার্পে অনুষ্ঠিত বিশ্ব আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টিকস চ্যাম্পিয়নশিপসহ একাধিক চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছেন।[২]। তিনি রাহুল দ্রাবিড়এর গোস্পোর্টস ফাউন্ডেশন এর ক্রীড়াবিদ মেন্টরশিপ প্রোগ্রাম দ্বারা সমর্থিত।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

অরুণা রেড্ডি তেলঙ্গনার হায়দ্রাবাদে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ও মাতা হলেন যথাক্রমে সুভদ্রা ও নারায়ন রেড্ডি। তার পিতা একজন হিসাবরক্ষক। তার বড় বোন পবনী [৩] রেড্ডি একজন কোম্পানি সচিব। তিনি তার মাধ্যমিক, সেন্ট মেরি'স জুনিয়র কলেজ, বসিরবাগ থেকে ২০১৩ সালে সম্পন্ন করেন।[৪] ২০১৭ সালে তিনি সেন্ট মেরি'স কলেজ হায়দ্রাবাদ থেকে বি.কম ডিগ্রী অর্জন করেন।[৫] তিনি কারাতেতে ব্ল্যাক বেল্ট অর্জন করেন এবং জিমন্যাস্টিকসে যোগদান করা পর্যন্ত কারাতের একজন প্রশিক্ষক ছিলেন।

প্রাথমিক জিমন্যাস্টিকস ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

অরুণা যখন পাঁচ বছরের ছিলেন, তখন একজন জিমন্যাস্ট হিসেবে তার নমনীয়তা ও গঠন প্রকাশ পেলে, তার পিতা তাকে কারাতে থেকে নিয়ে এসে জিমন্যাস্টিকসে ভর্তি করে দেন। তার পিতা তার প্রশিক্ষণের জন্য তাকে, হায়দ্রাবাদের লাল বাহাদুর শাস্ত্রী স্টেডিয়ামএ প্রশিক্ষক স্বর্ণলতা এবং রবীন্দর এর কাছে ভর্তি করে দেন।

স্বর্ণলতার স্বামী গিরিরাজ অরুণার প্রতিভা বুঝতে পেরে তাকে নিজের দলে অন্তর্ভুক্ত করেন। গিরিরাজ ২০০৮ সালে একটি দুর্ঘটনায় মারা যান। তার পর থেকে অরুণা ব্রিজ কিশোরের কাছে প্রশিক্ষণের নিচ্ছেন এবং অরুণা তার প্রশিক্ষণে তিনটি ভারতের জাতীয় গেমএ তিনবার পদক জিতেছেন।

আন্তর্জাতিক জিমন্যাস্টিকস জীবন[সম্পাদনা]

অরুণা ২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৭ সালে যথাক্রমে অ্যান্টওয়ার্প, ন্যানিং এবং মন্ট্রিয়ল বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেন কিন্তু কোনোবারই তিনি বাছাই পর্ব থেকে পরবর্তী ধাপে উপনীত হতে পারেন নি। [৬]

বিশ্বকাপ ব্রোঞ্জ মেডেল[সম্পাদনা]

তিনি ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ জিমন্যাস্টিক্সে অংশ নেন এবং মহিলাদের ভল্ট ইভেন্টে স্বর্ণ পদক জয় করে ইতিহাস সৃষ্টি করেন। [৭][৮] অরুণা তার এই বিজয় তার মৃত পিতাকে উৎসর্গ করেছেন, যিনি তাকে তার সক্ষমতা বুঝতে সহায়তা করেছিলেন। তিনি তার অবদানের জন্য তেলঙ্গানার প্রধান মন্ত্রী কে. চন্দ্রশেকর এর পক্ষ থেকে ₹২ কোটি পুরস্কার লাভ করেন।[৯]

ভবিষ্যত[সম্পাদনা]

তিনি ২০১৮ কমনওয়েলথ গেমসের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন, যা অস্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোস্ট শহরে অনুষ্ঠিত হবে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. href="http://fig-gymnastics.com/publicdir/athletes/bio_detail.php?id=26754</ref&gt">http://fig-gymnastics.com/publicdir/athletes/bio_detail.php?id=26754[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "2013 World Gymnastics Championships athletes - Aruna Budda Reddy"longinestiming.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জানুয়ারি ২০১৬ 
  3. Aruna Budda Reddy: Father's commitment helps Aruna clinch top honours | More sports News - Times of India
  4. "Budda Aruna Reddy, treasure in the vault"deccanchronicle.com/ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০৩-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-০২ 
  5. Subrahmanyam, V. v (২০১৮-০২-২৪)। "Hyderabadi gymnast vaults into big league"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 0971-751X। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৩-০২ 
  6. "Aruna Budda Reddy: All you need to know about India's first Gymnastics World Cup medallist - Firstpost"www.firstpost.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৭ 
  7. "Gymnastics World Cup 2018: Aruna Reddy wins bronze medal for India in vault"। ২০১৮-০২-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৪ 
  8. "Aruna Budda Reddy clinches bronze at 2018 Gymnastics World Cup"India Today (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০২-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-২৪ 
  9. KCR announces Rs 2 cr prize money for gymnast Aruna