অয়নর হের্ডসব্রং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এইনার হের্টস্‌স্প্রুং (ডেনীয়:Ejnar Hertzsprung) (অক্টোবর ৮, ১৮৭৩ - অক্টোবর ২১, ১৯৬৭) ছিলেন বিখ্যাত ডেনীয় রসায়নবিদ এবং জ্যোতির্বিজ্ঞানী। তার জন্ম ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেনে এবং মৃত্যু একই দেশের রোসকিলডে নামক স্থানে।

আবিষ্কার ও গবেষণাকর্ম[সম্পাদনা]

১৯১১ থেকে ১৯১৩ সালের মধ্যবর্তী সময়ে তিনি মার্কিন জ্যোতির্বিজ্ঞানী হেনরি নরিস রাসেলের সাথে যৌথভাবে হের্টস্‌স্প্রুং-রাসেল চিত্র উদ্ভাবন করেন এবং এর উন্নয়ন ঘটান।

১৯১৩ সালে পরিসাংখ্যিক লম্বনের মাধ্যমে তিনি অনেকগুলো ছায়াপথীয় শেফালী তারার দূরত্ব নির্ণয় করেন। এর মাধ্যমে তিনি হেনরিয়েটা লিভিট কর্তৃক আবিষ্কৃত শেফালী পর্যায় এবং দীপন ক্ষমতার মধ্যে সম্পর্কের বিষয়টি প্রমাণ করতে সমর্থ হন। এটি নির্ণ করতে গিয়ে তিনি একটি ভুল করেছিলেন যা তার লেখার ভুলও হতে পারে। ভুলটি হল, তিনি তারাগুলোকে প্রকৃতের তুলনায় ১০ গুণ নিকটবর্তী দেখিয়েছেন। এই সম্পর্কগুলোর মাধ্যমে তিনি ক্ষুদ্র ম্যাজেলানীয় মেঘের আনুমানিক দূরত্ব বের করেছিলেন।

১৯১৯ থেকে ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত হের্টস্‌স্প্রুং নেদারল্যান্ডের লিডেন মানমন্দিরে কাজ করেন। ১৯৩৭ থেকে তিনি এই মানমন্দিরের পরিচালক ছিলেন। তিনি দুটি গ্রহাণু আবিষ্কার করেন:

আবিষ্কৃত দুটি গ্রহাণু
১৬২৭ আইভার ২৫ সেপ্টেম্বর, ১৯২৯
১৭০২ কালাহারি ৭ জুলাই ১৯২৪

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

পুরস্কারসমূহ[সম্পাদনা]

তার নামে নামাঙ্কিত[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

মুদ্রিত শোকসংবাদ[সম্পাদনা]