অদিতি অশোক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অদিতি অশোক
২০১৫ সালে অদিতি অশোক
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (1998-03-29) ২৯ মার্চ ১৯৯৮ (বয়স ২২)
বেঙ্গালুরু, কর্ণাটক, ভারত
উচ্চতা১.৭৩ মিটার (৫ ফুট ৮ ইঞ্চি)
জাতীয়তাভারতীয়
খেলোয়াড়ী জীবন
প্রফেশনাল হোন২০১৬
বর্তমান ট্যুরলেডিজ ইউরোপিয়ান ট্যুর
এলপিজিএ ট্যুর
পেশাদারী জয়
ট্যুরপ্রতি জয়
নারী ইউরোপীয় ট্যুর
অন্যান্য
এলপিজিএ প্রধান চ্যাম্পিয়নশিপে সেরা ফলাফল
এলপিজিএ চ্যাম্পিয়নশিপটি২৯: ২০১৭
ইউএস ওমেন'স ওপেনটি৩৯: ২০১৯
ওমেন'স ব্রিটিশ ওপেনটি২২: ২০১৮
পুরষ্কার ও সম্মাননা
২০১৬

অদিতি অশোক (জন্ম: ২৯শে মার্চ ১৯৯৮) হলেন একজন ভারতীয় পেশাদার গলফ খেলোয়াড়, যিনি ২০১৬ সালে গ্রীষ্ম অলিম্পিকে অংশ নিয়েছিলেন[১] এবং লেডিস ইউরোপীয় ট্যুর এবং এলপিজিএ ট্যুরে খেলে থাকেন।

পেশা[সম্পাদনা]

প্রথম জীবন[সম্পাদনা]

অদিতি অশোক সবচেয়ে কম বয়সী এবং প্রথম ভারতীয় হিসেবে লাল্লা আইচা ট্যুর স্কুল প্রতিযোগিতায় জয়লাভ করেছিলেন এবং এর মাধ্যমে ২০১৬ মরশুমে লেডিস ইউরোপীয় ট্যুর কার্ডটি সুরক্ষিত করেছিলেন।[২] এই জয়ের ফলে তিনি আন্তর্জাতিক ভ্রমণে যোগ্যতা নির্ণায়ক স্কুলের সবচেয়ে কম বয়সী বিজয়ী হয়েছিলেন।[৩] অদিতি প্রথম এবং একমাত্র ভারতীয় গলফ খেলোয়াড় হিসেবে ২০১৩ সালের এশিয়ান যুব গেমস, ২০১৪ সালের যুব অলিম্পিক গেমস, ২০১৪ সালের এশিয়ান গেমস এবং ২০১৬ সালের অলিম্পিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণ করেছিলেন।

২০১৬ পরবর্তী জীবন[সম্পাদনা]

অশোক ২০১৬ সালের হিরো উইমেনস ইন্ডিয়ান ওপেন-এ ৩-আন্ডার-পার ২১৩ স্কোর করে জয়লাভ করেছিলেন এবং এর ফলে তিনি প্রথম ভারতীয় গলফ খেলোয়াড় হিসেবে ইউরোপীয় ট্যুর-এর খেতাব অর্জন করেছেন।[৪][৫] যে দেশে সাধারণত ক্রিকেটকে কেন্দ্র করে দর্শক গড়ে ওঠে, এমন একটি দেশে তাঁর জয় গলফ খেলাটির প্রতি সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল।তাঁর জয়ের ফলে দেশের বৃহত্তম সংবাদপত্র দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রথম পৃষ্ঠায় তাঁর ছবি প্রকাশ করা হয়েছিল এবং তিনি সাড়া দেশ জুড়ে টেলিভিশনে জাতীয়ভাবে প্রদর্শিত হয়েছিলেন।[৬] তিনি দুই সপ্তাহ পরে কাতার লেডিজ ওপেন-এ দ্বিতীয় জয় অর্জন করেন এবং দ্বিতীয় মেরিট অফ অর্ডারে উক্ত মরশুমটি শেষ করেন। সে বছর তিনি রুকি অফ দ্য ইয়ার পুরস্কার লাভ করেছিলেন।[৭] তিনি এলপিজিএ ফাইনাল বাছাইপর্বের টুর্নামেন্টের মাধ্যমে ২০১৭ সালের জন্য একটি এলপিজিএ ট্যুর কার্ডও অর্জন করেছিলেন। ২০১৭ সালে, অশোক ভারত থেকে খেলা প্রথম এলপিজিএ খেলোয়াড় হয়েছিলেন এবং লুইস সুগস রোলেক্স রুকি অফ দ্য ইয়ার তালিকায় অষ্টম স্থান অধিকার করেছিলেন। ২০১৯ সালে, তিনি লেডিস ইউরোপীয় ট্যুরে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করার মাধ্যমে বছর শেষ করেছিলেন।[৮]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

অদিতি অশোক ১৯৯৯ সালের ২৯শে মার্চ তারিখে ভারতের কর্ণাটকের বেঙ্গালুরু শহরে জন্মগ্রহণ করেছেন।[৬] তিনি বেঙ্গালুরুর ফ্র্যাঙ্ক অ্যান্টনি পাবলিক স্কুল হতে স্কুল জীবনের পড়াশোনা সম্পন্ন করেছেন এবং ২০১৬ সালে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।[৯] যখন তিনি মাত্র ৫ বছর বয়সে গলফ খেলতে শুরু করেছিলেন, তখন বেঙ্গালুরুতে কেবল তিনটি গলফ মাঠ ছিল। যখন তিনি এই খেলার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন, তখন তাঁর বাবা অশোক গুড়লামানী তাঁকে কর্ণাটক গলফ অ্যাসোসিয়েশনের ড্রাইভিং রেঞ্জে নিয়ে যান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Anirban Lahiri, SSP Chawrasia, Aditi Ashok to fly Indian flag in golf at Rio Olympics"The Indian Express। ১১ জুলাই ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০১৬ 
  2. "India's Aditi Ashok becomes youngest ever LET Tour School winner"। Sky Sports। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০১৬ 
  3. "Aditi Ashok looking to qualify for Rio Olympics"Times of India। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০১৬ 
  4. "Aditi Ashok makes history by winning the Women's Indian Open"ESPN। ১৩ নভেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৬ 
  5. "Aditi Ashok wins in Abu Dhabi for her third Ladies European Tour title"The Indian Express। ৪ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৭ 
  6. Mell, Randall (২৮ নভেম্বর ২০১৬)। "India's Ashok riding the wave of stardom"Golf Channel 
  7. "Aditi Ashok named Rookie of the Year"। Ladies European Tour। ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৩ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২০ 
  8. "Aditi Ashok finish Second at Ladies European tour"Sportstalk24। সংগ্রহের তারিখ ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  9. "Meet Aditi Ashok, India's future in women's golf"The Hindu। ২০ আগস্ট ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০ আগস্ট ২০১৬