হাশি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হাশি
Chopstick.png
জাপানি ইউ দ্বারা তৈরী করা হাশি।
চীনা নাম
চীনা 筷子
বিকল্প চীনা নাম
চীনা or
বর্মী নাম
বর্মী တူ
IPA [tù]
তিব্বতি নাম
তিব্বতি ཟ་ཐུར་རམ་ཁོ་ཙེ།
ভিয়েতনামি নাম
ভিয়েতনামি đũa
Chữ nôm 𥮊 or 𥯖
থাই নাম
থাই ตะเกียบ
RTGS takiap
কোরিয়ান নাম
হাঙ্গুল্ 젓가락
জাপানি নাম
কাঞ্জি
হিরাগানা はし
বাংলা নাম
বাংলা হাশি (hashi)
মালয় নাম
মালয় kayu penyepit or penyepit
ইন্দোনেশীয় নাম
ইন্দোনেশীয় sum pit
ফিলিপিনো নাম
তাগালোগ sipit
লাও নাম
লাও ໄມ້ຖູ່ (mai thū)

হাশি হচ্ছে দুই কাঠির জুড়ি যার দ্বারা খাদ্যকে তুলে আহার করা হয়। দুইটি কাঠির জুড়ি এক সঙ্গে থাকলেই হাশির জুড়ি সম্পূর্ণ থাকে। হাশি ঐতিহ্যগতভাবে জাপান, কোরিয়া, চীনা, এবং ভিয়েতনামতে ব্যবহৃত হয়। পরে গিয়ে মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়াতে হাশির জনপ্রিয়তা বেড়ে যায়। শ্রীলঙ্কা, নেপাল, তিব্বত এবং বাংলাদেশতে হাশির জনপ্রিয়তার বাড়ার অনুমান করা যাচ্ছে।

হাশি মসৃণ হয় এবং সাধারণভাবে বাঁশ, প্লাস্টিক, কাঠ বা স্টেইনলেস স্টীল দিয়ে তৈরি হয়। বিরলভাবে চীনামাটি, রূপা, গজদন্ত এবং যসম থেকে তৈরি করা হয়।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

  • চীনা ভাষায় হাশিকে (筷子 kuàizi) কুয়াই-যি এবং ( zhù) ঝু বলা হয়।
  • জাপানি ভাষায় হাশিকে () হাশি বলা হয়। হাশি কে (おてもと) ওতেমোতো ও বলা হয়।
  • কোরীয় ভাষায় হাশিকে () জেও বলা হয় যার সম্পূর্ণ নাম হচ্ছে (젓가락) জেওক্-কা-রাক্
  • ভিয়েতনামীয় ভাষায় হাশিকে (đũa) দ্যূঁআ বলা হয়।
  • ইংরেজি ভাষায় হাশিকে "চপস্টিক্স" (Chopsticks) চপ্-স্টিক্স্ বলা হয়। ইংরেজি ভাষাতে "চপস্টিক্স" শব্দের উৎপত্তি চীনার পিজিন ইংরেজি থেকে হয়েছে বলে মনে করা হয়, যখন রেস্তোরাঁয় চীনার লোকরা খাবার সময় চপ্-চপ্ বলত, যার মানে "দ্রুত" হয়।[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ব্যবহার[সম্পাদনা]

খাবার মেজে হাশি বাটির নীচের জায়গায় রাখা রয়েছে

হাশি ব্যবহার করার সঠিক ঢং হচ্ছে:

১. নিম্নের হাশি নিশ্চল, এবং বুড়ো আঙ্গুলের ঘাঁটিএ, ও অনামিকা এবং মধ্যমাঙ্গুলি মধ্যে অবস্থিত করাটা সঠিক।
২. দ্বিতীয় হাশিটি বুড়ো আঙ্গুলের ডগা, তর্জনী এবং মধ্যমাঙ্গুলিকে ব্যবহার করে পেন্সিলের মত অনুষ্ঠিত করা যায়।
৩. খাওয়ার সময় হাশির উপলব্ধিকের মধ্যে খাদ্য টানার জন্য হাশি একটু-একটু নড়ানো হয়।
৪. হাশির যখন ব্যবহার না হয়ে থাকে তখন বাটির উপরে বা নিজের থালার নীচের জায়গায় রাখা যায়।

বিভিন্ন সংস্কৃতির শৈলী এবং শিষ্টাচার[সম্পাদনা]

দৈর্ঘ্য খাটো এবং সূক্ষ্ম সংকীর্ণের শেষে সরুকারী হয়।
জাপানি হাশি ঐতিহ্যগতভাবে কাঠ বা বাঁশের তৈরি হয় এবং লাক্ষিক হয়।
মহিলাদের হাশিটি খাটো দৈর্ঘ্যের হওয়ারটা সাধারণ, এবং বাচ্চাদের হাশিটাও ছোট আকারের হওয়ারটা সাধারণ।
হাশিটিকে পারপার (একে অন্যের উপরে পার) করতে নেই, উচিতও না, পারপার করারটা মৃত্যুর নির্দেশ করে।
উল্লম্বভাবে ভাতে হাশিটিকে আটকানোটাও ভালো না, কারণ উল্লম্বভাবে ভাতে হাশিটিকে শেষকৃত্যের সময় আটকানো হয়।
ছোট, সমতল আয়তক্ষেত্রাকার আকৃতির সঙ্গে মাঝারি দৈর্ঘ্যের এবং ধাতু গঠিত হয়।
ঐতিহ্যগতভাবে পিতল বা রূপা দিয়ে গঠিত হত।
হাশি এবং চামচ একই সাথে ব্যবহার করা যায়।
খাওয়ার সময় কোনো মহিলা নিজের হাশিটিকে যাদি পারপার (একে অন্যের উপরে পার) করে, তাহলে তার মানে হয় যে ওই মহিলাটি নিজের জীবনের ৪০বছর বয়স হওয়ার পর্যন্ত নিজের সঠিক পুরুষ পাবে না।
হাশি ব্যবহার করার সঠিক ঢং

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Merriam-Webster Online"Definition of chopstick" 
  2. Norman, Jerry (1988) Chinese, Cambridge University Press, p267.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]