পশ্চিম জার্মানীয় ভাষাসমূহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
West Germanic
জাতিতত্ত্ব: West Germanic peoples
ভৌগলিক
বিস্তার:
Originally between the Rhine, Alps, Elbe, and North Sea; today worldwide
বংশগতিক
শ্রেণীবিভাগ
:
ইন্দো-ইউরোপীয়
উপবিভাজনসমূহ:
আইএসও ৬৩৯-৫: gmw

পশ্চিম জার্মানীয় ভাষাগুলি মূলত উত্তর সাগরের উপকূল ঘেঁষে গড়ে ওঠে এবং এই এলাকার লোকেরা সমুদ্র পাড়ি দিয়ে অন্য যেসব স্থানে গিয়ে বসতি করেছিল, সেখানেও এই ভাষাগুলির প্রচলন হয়। বর্তমানে ছয়টি আধুনিক ভাষা পশ্চিম জার্মানীয় ভাষার অন্তর্গত: ইংরেজি, ফ্রিজীয়, নেদারল্যান্ডীয় (ওলন্দাজফ্লেমিশ), আফ্রিকান্স, জার্মানয়িদিশ ভাষা

মাতৃভাষাভাষীর সংখ্যা বিচারে চীনা ভাষার পরেই ইংরেজি ভাষার স্থান। আর বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত দ্বিতীয় ভাষাও ইংরেজি।

ফ্রিজীয় ভাষার ধ্বনিব্যবস্থার সাথে ইংরেজির অনেক মিল আছে। তবে এ ভাষাটি বর্তমানে কেবল উত্তরাঞ্চলীয় নেদারল্যান্ড্‌স ও উত্তর-পশ্চিম জার্মানিতে প্রচলিত।

নেদারল্যান্ড্‌সের ওলন্দাজ ভাষা ও বেলজিয়ামের ফ্লেমিশ ভাষাকে একত্রে নেদারল্যান্ডীয় ভাষা বলা হয়। এগুলি গঠনগতভাবে একই ভাষা, তবে ফ্লেমিশ ভাষায় ঔপভাষিক বৈচিত্র্য বেশি।

নেদারল্যান্ডীয় ভাষা থেকে উদ্ভূত একটি ভাষা আফ্রিকান্স, ইউরোপ থেকে বহু দূরে, দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রচলিত। আফ্রিকান্স ভাষায় স্থানীয় বিভিন্ন বান্টু ভাষার প্রভাব পড়েছে।

জার্মান ভাষা জার্মানি ও অস্ট্রিয়ার রাষ্ট্রভাষা এবং সুইজারল্যান্ডের তিনটি সরকারী ভাষার একটি। ইংরেজি ও ফরাসির পরে জার্মান ভাষা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি অধীত ও ব্যবহৃত দ্বিতীয় ভাষা। ৬ষ্ঠ শতকে উচ্চ জার্মান ব্যঞ্জনধ্বনি সরণের ফলে উচ্চ জার্মান উপভাষাগুলি নেদারল্যান্ডীয় ভাষা ও নিম্ন-জার্মান ভাষাগুলি থেকে পৃথক হয়ে যায়। আদি-জার্মান ভাষায় লাতিন ভাষার বড় রকমের প্রভাব ছিল, কেননা তখনকার দিনে লেখালেখি মূলত ধর্মালয়গুলিতেই সীমাবদ্ধ ছিল। মধ্যযুগের শেষ দিকে এসে ইউরোপে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসারের সাথে সাথে জার্মান ভাষা ফরাসি ভাষা থেকে অনেক শব্দ ঋণ নেয়। আধুনিক যুগে এসে লিখিত জার্মান ভাষা একটি আদর্শ রূপ ধারণ করলেও জার্মান মৌখিক উপভাষাগুলির মধ্যে বেশ ভালমতোই পার্থক্য রয়ে গেছে।

য়িদিশ ছিল মধ্যপূর্ব ইউরোপে বসবাসকারী ইহুদীদের ভাষা। জার্মানীয় ভাষা হলেও এতে বিভিন্ন রোমান্স ভাষা, হিব্রু-আরামীয় ভাষাস্লাভীয় ভাষাগুলির প্রচুর উপাদান ছিল। য়িদিশ ভাষায় প্রায় ১ কোটিরও বেশি লোক কথা বলতেন। কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হলোকস্টে এদের অধিকাংশকেই নাৎসিরা হত্যা করে।