হিব্রু বর্ষপঞ্জী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ইহুদি ক্যালেন্ডার, ১৯২৭ থেকে ১৯৪৮ সালের মধ্যে আদার ২ দেখাচ্ছে।

হিব্রু বর্ষপঞ্জী বা ইহুদি বর্ষপঞ্জী হচ্ছে একটি সৌরচান্দ্রিক দিনপঞ্জি যা আজকের দিনে ইহুদি ধর্মীয় দিবস নির্ধারণে ব্যবহার করা হয়। এটা ইহুদিদের ছুটির দিন সহ অন্যান্য আনুষ্ঠানিক দিন নির্ধারণে ব্যবহার করা হয়। ইজরায়েলে এই বর্ষপঞ্জী ধর্মীয় কাজে, কৃষিকাজের সময় নির্ধারণে এবং প্রাত্যহিক জীবনে ব্যবহার করা হয় এবং এটি ইসরায়েলের জাতীয় বর্ষপঞ্জী।[১] তবে শেষোক্ত কাজে গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জীর ব্যবহারই বেশি। 

বর্তমান হিব্রু ক্যালেন্ডার একাধিক বিবর্তনের মধ্য দিয়ে গেছে এবং এর উপর ব্যাবিলনীয় বর্ষপঞ্জির প্রভাব রয়েছে।

হিব্রু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ৫৭৭৮ সাল শুরু হয়েছে ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সালের সূর্যাস্তে এবং শেষ হবে ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সালের সূর্যাস্তে। [২]

উপাদান[সম্পাদনা]

দিন এবং ঘণ্টা[সম্পাদনা]

ইহুদি দিনের নির্দিষ্ট কোন দৈর্ঘ্য নেই। ইহুদি দিনের দৈর্ঘ্য সূত্র হিসেবে জেনেসিসের প্রথম অধ্যায়ে সৃষ্টির বর্ণনায় বলা হয়েছে, ''.....সেখানে ছিলো সকাল এবং সেখানে ছিলো সন্ধ্যা.."। এই শাস্ত্রীয় তথ্যের রাব্বী অনুবাদ করা হয় যে হিব্রু ক্যালেন্ডারে দিন গণনা করা হয় সূর্যাস্ত থেকে পরদিন সূর্যাস্ত পর্যন্ত। হিজরী ক্যালেন্ডারের অনুরূপ। পৃথিবীর জনবহুল অংশে সাধারণত ২৪ ঘণ্টায় একদিন গণনা করা হয় কিন্তু বছরের ঋতুভেদে এটা কম বেশি হতে পারে। একটি দিন শেষ হয়ে আরেকটি দিন শুরু হয় যখন আকাশে তিন তারা দেখা দেয়। প্রকৃত সূর্যাস্ত এবং তিন তারা দেখা যাওয়ার মধ্যবর্তী সময়কে বলা হয় বেইন হাশমাশত। 

ইহুদিদের ক্যালেন্ডারে সময় হিসেবের জন্য কোন ঘড়ি নেই। তাই স্থানীয় ঘড়ির সময় ব্যবহার করা হয়। যদিও স্থানীয় ঘড়িতে সময় অঞ্চল, প্রমাণ সময় এবং দিবালোক সংরক্ষণ ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। ইহুদি ক্যালেন্ডারে এসবের কোন স্থান নেই। 

ইহুদিধর্মে একঘণ্টা হচ্ছে সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্তের বারো ভাগের এক ভাগ। তাই শীতকালের একঘণ্টা ৬০ মিনিটের কম হয় এবং গ্রীষ্মকালে ৬০ মিনিটেরও বেশি হয়। এই আনুপাতিক ঘণ্টা শাহ জমানিত নামে পরিচিত। এক ইহুদি ঘণ্টা ১০৮০ হালাকিম বা অংশে বিভক্ত। এক অংশ সমান ৩⅓ সেকেন্ড বা ১/১৮ মিনিট। হেলেকের পূর্বপুরুষ হচ্ছে একটি ছোট ব্যবলনীয় সময় যা বার্লিকর্ন নামে পরিচিত। দৈনন্দিন উদ্দেশ্যে এই হিসেব সাধারণত ব্যবহার করা হয় না।

ইহুদি ক্যালেন্ডারে সপ্তাহ শুরু হয় রবিবারে। সপ্তাহের প্রথম দিনের নাম ইয়ম রিশান। সপ্তাহ শেষ হয় শনিবারে। সপ্তম দিনের নাম সাবাথ। প্রতিটি হ্যালাচিক দিন শেষ হয় সূর্যাস্তের সাথে সাথে।

ময়মনিড মতানুসারে রাতের সূচনা হবে যখন আকাশে তিনটি মধ্যম আকারের তারা দৃষ্টিগোচর হয়।

সপ্তাহ[সম্পাদনা]

হিব্রু ক্যালেন্ডারে সাত দিন চক্রাকারে আবর্তিত হয়। এই সাতদিনের নাম সংখ্যাগত হিসেবে গণনা করা হয়।

  1. ইয়ম রিশান - দিন এক (রবিবার)
  2. ইয়ম সেনি - দিন দুই
  3. ইয়ম শ্লিশি - দিন তিন
  4. ইয়ম রেভি - দিন চার
  5. ইয়ম চামিশি - দিন পাঁচ
  6. ইয়ম শিশি - দিন ছয়
  7. ইয়ম শাবাথ - দিন সাত

সপ্তম দিনকে বলা হয় ইয়ম সাবাথ কোডেশ অর্থ পবিত্র বিশ্রাম দিবস।

মাস[সম্পাদনা]

Moon phases en.jpg

ইহুদি ক্যালেন্ডার সৌরচান্দ্রিক ক্যালেন্ডার। এখানে মাসের হিসাব করা হয় চন্দ্রের হিসাবে কিন্তু বছরের হিসাব করা হয় সূর্যের হিসাবে। বারোটি চান্দ্র মাস নিয়ে একটি সৌর বর্ষ গঠিত হয়। প্রতিটি মাসের দৈর্ঘ্য ২৯ থেকে ত্রিশ দিনের মধ্যে। সৌর বছরের সংগে হিসাব ঠিক রাখতে একটি অতিরিক্ত মাস গণনা করা হয়। প্রতি উনিশ বছরে সাতবার এই মাস হিসাব করা হয়। নতুন চাঁদের সঙ্গে প্রতিটি ইহুদি মাস শুরু হয়।[৩] বছরের শেষ মাসের নাম আদার। ইহুদি অধিবর্ষে আদার মাসের পূর্বে এবং এগারোতম মাস শেভাতের শেষে একটি ত্রিশ দিনের মাস যোগ করা হয় যাকে বলা হয় আদার প্রথম। ওই বছর আদার মাসকে বলা হয় আদার দ্বিতীয়।

ক্রম হিব্রু মাস দিবস সংখ্যা
নিসান ৩০
ইয়ার ২৯
সিভান ৩০
তামমুজ ২৯
আভ ৩০
এলুল ২৯
তিশ্রেই ৩০
মার্চেশভান (বা চেশভান) ২৯/৩০
কিসলেভ ৩০/২৯
১০ তেভেত ২৯
১১ শেভাত ৩০
১২ আদার ২৯
মোট ৩৫৩, ৩৫৪ বা ৩৫৫

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Elon Gilad (২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪)। "The Hebrew Calendar: A Marvel of Ancient Astronomy and Math"Haaretz (ইংরেজি ভাষায়)। 
  2. "Tishrei, 5777". Chabad.org. Retrieved September 13, 2015.
  3. Under the fixed, calculated calendar, this is only loosely true. Because the calculations are based on mean lunar months, not observed ones–and because of the Rosh Hashanah postponement rules—a given month may not begin on the same day as its astronomical conjunction. See Bromberg, Dr. Irv (আগস্ট ৫, ২০১০)। "Moon and the Molad of the Hebrew Calendar"। utoronto.ca। ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ১৬, ২০১২