স্টেনদাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন


স্টেনদাল
Stendhal fr.jpg
জন্ম
মারি হেনরি বেল

২৩ জানুয়ারী, ১৭৮৩
মৃত্যু২৩ মার্চ, ১৮৪২
জাতীয়তাফরাসি
পেশালেখক
উল্লেখযোগ্য কর্ম
মিনা দে ভানহেল, এ লাইফ অফ নেপোলিয়ন


মারি হেনরি বেল যিনি স্টেনদাল হিসেবে অধিক খ্যাত, হলেন ১৯ সতকের একজন ফরাসি লেখক । লে রুজ এট লে নোয়ার এবং লা চার্ট্রেস ডি পারমে উপন্যাসের জন্য বিখ্যাত এই লেখককে তার চরিত্রগুলোর মনস্তত্ত্ব বিশ্লেষণ এবং বাস্তববাদিতার সর্বপ্রথম অনুশীলনকারি বলে গণ্য করা হয় ।

জীবন এবং মৃত্যু[সম্পাদনা]

২৩ জানুয়ারী, ১৭৮৩ সালে গ্রেনবেলের ইসেরেতে জন্ম গ্রহন করা এক দুর্ভাগা বালক ছিলেন তিনি । কল্পনাতীত নিষ্ঠুর পিতার প্রতি তার ঘৃণা থাকলেও, তিনি তার মাতা কে অনেক ভালবাসতেন, যিনি মারা যান যখন তার সাত বছর বয়স । তার সবচেয়ে কাছের বন্ধু ছিল তার ছোট বোন, পলিন, যার সাথে ১৯ সতকের প্রথম দশক জুরে তিনি সাযুজ্য বজায়ে রেখেছিলেন ।

প্রথম ফরাসি সাম্রাজ্যের সামরিক এবং নাট্য জগত বেলের কাছে ছিল এক প্রতিবোধনের ন্যায় । কনসিল দি'জাত-এ ৩ আগস্ট, ১৮১০ সালে নিরীক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়ে তিনি ফরাসি প্রসাসনের সাথে যুক্ত হন এবং ইটালির সাথে তৎকালীন নেপোলিয়নীও যুদ্ধে অংশগ্রহন করেন । তিনি ব্যাপকভাবে জার্মানি ভ্রমন করেন এবং ১৮১২ সালের রাশিয়া আক্রমনে নেপোলিয়ন সেনার অংশ ছিলেন ।

স্টেনদাল সচক্ষে মস্কো শহরকে পুরতে দেখেন । স্টেনদালকে সমরাস্ত্র সরবরাহের কমিশনার নিযুক্ত করা হয়েছিল এবং ফিরে আসা সেনাবাহিনীর জন্য প্রস্তুতি নিতে স্মোলেঙ্কে প্রেরণ করা হয়েছিল। । স্টেনথাল ১৮৩৩ সালে প্যারিসে এসে পৌঁছান, পশ্চাদপসরণ যে ব্যর্থ হয়ে পড়েছিল তা সম্পর্কে  তিনি ছিলেন অজানা। স্টেনদাল রাশিয়ান অভিযানের সময়ও তার রসিকতা বজায় রাখার জন্য বেশ পরিচিত ছিলেন। তিনি তার প্রতিদিনের রুটিন বজায় রাখতেন, মস্কো থেকে পশ্চাদপসরণকালে প্রতিদিন তিনি শেভ করতেন।

১৮১৪ সালের ফন্টেনব্লা চুক্তির পরে, তিনি ইতালিতে চলে যান, এবং মিলানে স্থায়ী হন। তিনি ইতালির সাথে একটি বিশেষ অনুরাগ গড়ে তোলেন, যেখানে তিনি তাঁর কেরিয়ারের বেশিরভাগ অংশ ট্রাইস্টে এবং সিভিটাভেচিয়ায় ফরাসী কনসাল হিসাবে দায়িত্ব পালন করে কাটিয়ে দেন। তাঁর উপন্যাস দ্য চার্টারহাউস অফ পারমা, যেটি মাত্র ৫২ দিনে রচিত, ইতালিতে রচনা করা হয়, যা তিনি পুন:প্রতিষ্ঠিত ফ্রান্সের চেয়ে আরও আন্তরিক দেশ হিসাবে বিবেচনা করেছিলেন । অন্যদিকে, এমন একটি চরিত্রের কথা উল্লেখ করেন যে জেলখানায় আত্মহত্যার কথা মনস্থ করে, নিজের দেশের প্রতি তাঁর মনোভাব সম্পর্কে বলেছেন: "আমার এই ফরাসি পাঠকদের কাছে একটি জিনিস স্পষ্ট করার জন্য, আমাকে অবশ্যই এটি বলতে হবে যে, ইতালি খুব দূরের একটি দেশ আমাদের থেকে, যেখানে মানুষ এখনও ভালবাসায় হতাশার দিকে চালিত হয়।

স্টেনদাল তাঁর শেষ বছরগুলিতে মারাত্মক শারীরিক প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হয়েছিলেন যদিও এই সময়টিতে তিনি তাঁর বেশ কয়েকটি বিখ্যাত রচনার কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি তাঁর জার্নালে উল্লেখ করেছেন যে, তিনি সিফিলিসের চিকিত্সার জন্য পটাসিয়াম এবং কুইসিলভার আয়োডাইড নিচ্ছিলেন, ফলে ফুলে যাওয়া বগল, খাবার গিলতে অসুবিধা, তার অণ্ডকোষে ব্যথা, নিদ্রাহীনতা, কানে গর্জন এবং কাঁপুনির দ্বারা আক্রান্ত হয়েছিলেন । তার অবস্থা এতই খারাপ হয়েছিল যে তিনি কাঁটাচামচ বা কলম পর্যন্ত ধরে রাখতে পারতেন না । আধুনিক চিকিত্সা প্রমাণ করেছে যে তার স্বাস্থ্য সমস্যাগুলির কারন সিফিলিসের চেয়ে তার চিকিত্সা  আরও বড় কারন ছিল ।

১৮৩৪ সালের ২৩শে মার্চ স্টেনথাল মারা যান। তাকে সিমেটিয়ার ডি মন্টমার্টে সমাহিত করা হয়েছিল।


ছদ্দনাম[সম্পাদনা]

স্টেনদালের ছদ্দনামটির আগে আগে তিনি "লুই আলেকজান্ড্রে বোম্বেট" এবং "অ্যানাস্টেসিয়াস সেরপিয়ার" সহ অনেক ছদ্দনামে তার রচনাগুলো প্রকাশ করেছিলেন। স্টেনদাল নিজের নামে প্রকাশিত একমাত্র বই হল হিস্ট্রি অফ পেইন্টিং(১৮১৭)। রোমের প্রকাশনা নেপলস, ফ্লোরেন্স (১৮১৮ সালের সেপ্টেম্বর) থেকে তিনি "এম ডি স্টেনদাল, অফিসার ডি ক্যাভালারি" ছদ্মনামে তাঁর রচনাগুলি প্রকাশ করেছিলেন। তিনি এই নামটি সেই সময়ের বিখ্যাত ইতিহাসবিদ ও প্রত্নতাত্ত্বিক জোহান জোয়াছিম উইঙ্কেলম্যানের জন্মস্থান,  জার্মান শহর স্টেন্ডাল থেকে নিয়েছিলেন ।

১৮০৭ সালে স্টেনদাল, স্টেনদাল শহরে উইলহেলমাইন নামে এক মহিলার প্রেমে পরে যান, যাকে তিনি মিনেট বলে ডাকতেন এবং তার জন্যেই তিনি সেখানে থেকে যান। "এই স্বর্ণকেশী এবং মোহনীয় মিনেট ব্যতীত এখন আমার কোনও ঝোঁক নেই, উত্তরের এই আত্মা, যেমন আমি ফ্রান্স বা ইতালিতে কখনও দেখিনি।" স্টেনদাল আরও একটি "এইচ" যুক্ত করেছেন জার্মান উচ্চারণ আরও স্পষ্ট করার জন্য ।

স্টেনদাল তাঁর আত্মজীবনীমূলক লেখাগুলি এবং চিঠিপত্রের ক্ষেত্রে বহু উপমা ব্যবহার করেছিলেন এবং প্রায়শই প্রাপকদের জন্য ছদ্মনাম ব্যবহার করতেন, যাদের মধ্যে কেউ কেউ নিজে সেই নামটি গ্রহণ করেছিলেন। স্টেনদাল শতাধিক ছদ্মনাম ব্যবহার করেছেন, যা আশ্চর্যরকমভাবে বৈচিত্র্যময় ছিল। কিছু কিছু তিনি একাধিকবার ব্যবহার না করলেও, কয়েকটা তিনি সারা জীবন ব্যবহার করে গেছেন । "ডোমিনিক" এবং "সালভিয়াটি" অন্তরঙ্গ পোষ্যের নাম হিসাবে কাজ করেছিল।  কোটনেট, বোম্বেট, চামিয়ার: ইত্যাদি হাস্যকর নামগুলিতে তিনি মুদ্রণ করেছেন "যা তাকে নিজের তুলনায় আরও বুর্জোয়া করে তোলে" । তিনি অনেক হাস্যকর নাম ব্যবহার করেছেন: "ডন কফ", "জর্জিও ভাসারি", "উইলিয়াম কুমির", " পোভেরিনো "," ব্যারন ডি কিউটেন্ড্রে "। তার একজন সংবাদদাতা, প্রসপার মারিমি বলেছিলেন: "তিনি কখনও ছদনাম সই না করে কোনও চিঠি লেখেননি।"

স্টেনদালের জার্নাল এবং আত্মজীবনীমূলক লেখাগুলিতে মুখোশের উপর অনেক মন্তব্য এবং "বহু সংস্করণে প্রানবন্ত বোধ করা" এমন আনন্দ প্রকাশ পেয়েছে । "জীবনকে একটি মুখোশযুক্ত বলের  মত দেখ," পরামর্শটি স্টেনডাল ১৮১৪ সালে তাঁর ডায়েরিতে নিজেকে দিয়েছিলেন। একজন ইঙ্গিস্টের এক স্মৃতিতে তিনি লিখেছেন: "আমার বিশ্বাস হবে কি যদি আমি বলি যে আমি একটি মুখোশ পরেছি আমার নামটি পরিবর্তন করতে পেরে আনন্দিত? আমার পক্ষে সর্বোচ্চ সুখ হ'ল একটি লম্বা, স্বর্ণকেশী জার্মান হিসাবে পরিবর্তিত হওয়া এবং প্যারিসে এমনভাবে চলতে পারা ।

সৃষ্টি[সম্পাদনা]

তখনকার সমসাময়িক বাস্তববাদী পাঠকরা রোমান্টিক স্ট্যান্ডালকে সম্পূর্ণ মেনে নিতে পারেননি।  বিংশ শতাব্দীর শুরু পর্যন্ত তিনি তেমন ভাবে জনপ্রিয়তা পাননি। তিনি তাঁর রচনাগুলো "দ্য হ্যাপি ফিউ"কে উৎসর্গ করেছিলেন। লর্ড বায়রনের ডন জুয়ান এর 'কান্টো ১১' এর আলোকে এটি ব্যাখ্যা করা যেতে পারে, যা "দা থাউজেন্ড হ্যাপি ফিউ" যারা উচ্চসমাজে বসবাসকারী, বা উইলিয়াম শেক্সপিয়রের লাইন "উই ফিউ, উই হ্যাপি ফিউ, উই ব্যান্ড অফ ব্রাদার্স"- কে বোঝায়।  তবে স্ট্যান্ডাল সম্ভবত ওলিভার গোল্ডস্মিথের ভিকার অফ ওয়াকফিল্ডকে বুঝিয়েছেন, যার কয়েকটি অংশ তিনি ইংরেজী শেখার সময় মুখস্থ করেছিলেন।

ওয়েকফিল্ডের ভিকার-এ, "দা হ্যাপি ফিউ" বিদ্রূপাত্মকভাবে সংখ্যায় ছোট কিছু লোকদের বোঝায় যারা মূল চরিত্রের অজ্ঞাত এবং একগামিতার পেডেন্টিক গ্রন্থটি পড়েছিলেন। রাসিনি এবং শেক্সপিয়ারের মতো সাহিত্য সূক্ষ্মদর্শী হিসাবে স্টেনদাল জিন রাসিনির ধ্রুপদীতার শরীয়ত এবং শেকসপিয়রের বিন্যাসের সাথে যথাযথ তুলনা করে এবং গদ্যের নাটকের রচনাকে সমর্থন করে রোমান্টিক নান্দনিকতার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন।

স্টেনদালের সমাধি

আজ, স্টেনদালের রচনাগুলি তাদের বিদ্রূপ, মনস্তাত্ত্বিক এবং ঐতিহাসিক দিকগুলির জন্য মন আকর্ষণ করে। স্টেনদাল সংগীতে বিশেষ আগ্রহী ছিলেন, বিশেষত সুরকার ডোমেনিকো সিমারোসা, ওল্ফগ্যাং অ্যামাদিয়াস মোজার্ট এবং গিয়াকচিনো রসিনির গানের বিশেষ ভক্ত ছিলেন তিনি। তিনি রসিনির একটি জীবনী লিখেছেন (ভি ডি রসিনি), এটি এখন ঐতিহাসিক বিষয়বস্তুর চেয়ে তার বিস্তৃত সংগীতশৈলীর জন্য অধিক চর্চিত ।

উপন্যাস[সম্পাদনা]

  • আরমেন্স -১৮২৭[১]>
  • লে রুজ এট লে নোয়া (Le Rouge et le Noir)-১৮৩০
  • লুসিয়েন লুয়েন - ১৮৯৪[২]>
  • দা পিঙ্ক অ্যান্ড দা গ্রিন ১৮৩৭[৩]>
  • লা চার্ট্রেস ডি পারমে ১৮৩৯[৪]>
  • লেইমেল ১৮৩৯-১৮৪২[৫]>

উপন্যাসিকা[সম্পাদনা]

  • মিনা দে ভানহেল -১৮৩০
  • ভ্যানিনা ভ্যানিনি -১৮২৯[৬]>
  • ইতালিয়ান ক্রোনিক্স ১৮৩৭-৩৯[৭]>
  • ভিটোরিয়া অ্যাকোর্ম্বনি
  • সেন্সি (লেস সেন্সি , ১৮৩৭)
  • লা দুচেসে দে প্যালিয়ানো
  • এল'আবেদেস ডি কাস্ত্রো

জীবনী[সম্পাদনা]

  • এ লাইফ অফ নেপোলিয়ন
  • এ লাইফ অফ রসিনি

আত্মজীবনী[সম্পাদনা]

  • দা লাইফ অফ হেনরি বুলারড[৮]>

ক্রিটালাইজেসন ধারনা[সম্পাদনা]

স্টেনদাল তার ১৮২২ এর ক্লাসিক অন লাভে তিনি "প্রেমের জন্ম" বর্ণনা করেছেন বা তুলনা করেছেন, যেখানে প্রেমের বিষয়টি মনে মনে 'ক্রিস্টালাইজড' হয়ে থাকে, তার মতে যেটি রোম ভ্রমণের অনুরূপ বা অনুরূপ প্রক্রিয়া। সাদৃশ্যগুলিতে, বোলোনা শহর উদাসীনতা এবং রোম নিখুঁত প্রেমের প্রতিনিধিত্ব করে:

আমরা যখন বোলগনায় থাকি তখন আমরা সম্পূর্ণ উদাসীন; আমরা যার সাথে সম্ভবত একদিন প্রেমে পাগল হব তার সম্বধে আমরা উদ্বিগ্ন নই; তারপরও আমাদের কল্পনাগুলি তাদের দিকে ঝুঁকছে। এক কথায়, বোলোনায় "ক্রিটালাইজেসন" এর যাত্রা এখনও শুরু হয়নি। যাত্রা শুরু হলে প্রেম বিদায় নেয়। একজন বোলোনা ছেড়ে চলে যায়, অ্যাপেনাইনগুলি উপরে উঠে রোমের রাস্তায় চলে যায়। স্টেনডালের মতে এই প্রস্থানটির কারও ইচ্ছার সাথে কোনও সম্পর্ক নেই; এটি একটি সহজাত মুহূর্ত। এই রূপান্তর প্রক্রিয়াটি যাত্রার পাশাপাশি চারটি পদক্ষেপের ক্ষেত্রে কার্যকর হয়:

  1. প্রশংসা - প্রিয়জনের গুণাবলী অবাক হয়া
  2. স্বীকৃতি - প্রিয়জনের সান্নিধ্য অর্জন সুখি বোধ করা
  3. আশা - প্রিয়জনের ভালোবাসা অর্জনের কল্পনা করা
  4. আনন্দ - এক ব্যক্তির সৌন্দর্য এবং যোগ্যতা্য মহানন্দ বোধ করা যার ভালবাসা জয়ের আশা রয়েছে

স্ফটিককরণ প্রক্রিয়াটি (উপরে দেখানো হয়েছে) স্টেনদাল স্লেজবার্গ লবণের খনিতে ভ্রমণের সময় ম্যাডাম ঘেরার্ডির সাথে কথা বলার সময় একটি প্লে কার্ডের পিছনে বিশদ বর্ণনা করেছিলেন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

ওয়ার্কস বাই স্টেনডাল, প্রোজেক্ট গুটেনবার্গ [১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "oxfordreference" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  2. "Lucien_Leuwen" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  3. "The_Pink_and_the_Green" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  4. "The_Charterhouse_of_Parma" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  5. "Lamiel77" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  6. "ভ্যানিনা ভ্যানিনি" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  7. "ইতালিয়ান ক্রোনিক্স" (ইংরেজি ভাষায়)। 
  8. "দা লাইফ অফ হেনরি বুলারড" (ইংরেজি ভাষায়)।