বিষয়বস্তুতে চলুন

সুবিমল মিশ্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সুবিমল মিশ্র
সুবিমল মিশ্র
জন্ম২০ জুন, ১৯৪৩
মৃত্যু৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
কলকাতা
নাগরিকত্বভারতীয়
পেশাসাহিত্যিক

সুবিমল মিশ্র (২০ জুন, ১৯৪৩ — ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩) একজন প্রথাবিরোধী বাংলা ছোটগল্পকার ও ঔপন্যাসিক। যিনি মতাদর্শগত কারণে তার দীর্ঘ অর্ধশতকের সাহিত্য জীবনে কখনো বৃহৎ পত্রিকায় লেখেননি।[১]

ব্যক্তিগত জীবন

[সম্পাদনা]

মিশ্র প্রথম জীবনে শিক্ষকতা করতেন। তার স্ত্রী প্রয়াত ও এক মেয়ে বর্তমান। দক্ষিণ কলকাতার শম্পা মির্জানগরের বাসিন্দা ছিলেন। হৃদরোগে ও বয়সজনিত অসুস্থতায় সুবিমল মিশ্র মারা যান ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ভোর ৪টে ৫০-এ।[২][৩]

সাহিত্য

[সম্পাদনা]

সুবিমল মিশ্রের নিজের ও পাঠকদের ভাষায় তার লেখা ছোটগল্পগুলো অ্যান্টি-গল্প এবং উপন্যাসকে অ্যান্টি উপন্যাস বলা হয়। তার যে ছোটগল্পটি বাংলা সাহিত্যজগতে প্রথম আলোড়ন ফেলে সেটি হল ৬৭ সালে প্রকাশিত 'হারান মাঝির বিধবা বৌ এর মড়া অথবা সোনার গান্ধীমূর্তি'। এই গল্পটি ইংরেজিতে অনূদিত হয়। তার প্রায় সমস্ত লেখাতেই রাজনৈতিক, সামাজিক অবক্ষয়ের প্রতি দ্বিধাহীন বিশ্লেষন ও মধ্যবিত্ত সমাজের যৌনতা নিয়ে অচ্ছুতপনার বিরুদ্ধে জেহাদ লক্ষ করা যায়। রাষ্ট্র ব্যবস্থা, তার শোষন, সুবিধাভোগী শ্রেনীর প্রতি ব্যঙ্গ, অবক্ষয়, দ্বন্দ্ব, লেখার কোলাজ এবং বিশেষভাবে নৈরাজ্য ইত্যাদি সুবিমলের লেখার অন্যতম বৈশিষ্ট্য।[৪] বাণিজ্যিক পত্রিকাতে তিনি কখনো লেখেননি, তাদের প্রতি সুবিমল কঠোর অবস্থান নিয়ে থাকেন এবং তার সাহিত্যকর্ম দুই বাংলার মননশীল লিটল ম্যাগাজিনে প্রকাশিত ও সমাদৃত হয়েছে একাধিকবার।[১][৫]

প্রকাশিত গ্রন্থ

[সম্পাদনা]

আটটি উপন্যাস:

  • তেজস্ক্রিয় আবর্জনা
  • আসলে এটি রামায়ণ চামারের গল্প হয়ে উঠতে পারতো
  • নাঙা হাড় জেগে উঠেছে,
  • রঙ যখন সতর্কীকরণের চিহ্ন,
  • কন্ঠ পালক ওড়া
  • হাড়মটমটি
  • ওয়ান পাইস ফাদার মাদার
  • চেটে চুষে চিবিয়ে গিলে

তার নাটকটির নাম ভাইটু পাঁঠার ইস্টু। এগুলি ছাড়াও সুবিমল বহু ছোটগল্প ও প্রবন্ধ লিখেছেন যা বই এর আকারে প্রকাশিত হয়। বেশিরভাগ বই নিজেই দায়িত্ব সহকারে সম্পাদনা, প্রকাশ ও বিক্রয় করে থাকেন ব্যতিক্রমী এই সাহিত্যিক।[৬][৭]

প্রভাব

[সম্পাদনা]

সুবিমল মিশ্রের সাহিত্যকর্মে চিত্র পরিচালক জাঁ-লুক গদার, লুই বুনুয়েল, আন্দ্রেই তার্কভ্‌স্কি এবং ঋত্বিক ঘটকের প্রভাব রয়েছে। এছাড়া তিনি জঁ-পল সার্ত্র্‌, জেমস জয়েস, স্যামুয়েল বেকেটের সাহিত্য দ্বারাও বিশেষভাবে প্রভাবিত হয়েছেন।

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. অংকুর সাহা। "নিবিড় পাঠ, প্রথাবিরোধী সুবিমল"। পরবাস, তৃতীয় বর্ষ, প্রথম সংখ্যা। সংগ্রহের তারিখ ৪.০১.২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "বাংলা সাহিত্যে যুগাবসান, প্রয়াত সাহিত্যিক সুবিমল মিশ্র"sangbadpratidin (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-০৮ 
  3. "বাংলা সাহিত্যে নক্ষত্র পতন, প্রয়াত সুবিমল মিশ্র"Aaj Tak বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০২-০৮ 
  4. "সুবিমল মিশ্রের ঐতিহাসিক অবতরণ : - Poriborton"www.kholakagojbd.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-২৫ 
  5. অমর মিত্র, পুস্তক পরিচয় ২। "লেখা যেন কোনোভাবেই মহত না হয়ে যায়"। আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ৪.০১.২০১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  6. সুবিমল মিশ্র (জানুয়ারি ২০০৬)। কিকা কাট আউট। কলকাতা- ১৪৩: সুবিমল মিশ্র। পৃষ্ঠা ২৬১। 
  7. সুবিমল মিশ্র (১৯৭৪)। নাঙা হাড় জেগে উঠেছে। কলকাতা: পাঠক সমবায়। পৃষ্ঠা ৬।