সিরীয় যুদ্ধসমূহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

সিরীয় যুদ্ধসমূহ সেলেকিড সাম্রাজ্য এবং মিশরের টলেমীয় সাম্রাজ্যের, আলেকজান্ডার গ্রেট সাম্রাজ্যের উত্তরাধিকারী রাজ্য, মধ্যে খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় এবং দ্বিতীয় শতাব্দীর মধ্যবর্তী সময়ে সংঘটিত ধারাবাহিক ছয়টি যুদ্ধ। এই যুদ্ধগুলোতে উভয় পক্ষের সম্পদ এবং জনশক্তি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছিল এবং যুদ্ধগুলো তাদের ধ্বংস করেছিল এবং রোম এবং পার্থিয়া সেখানে বিজয় লাভ করে। বুকস অব দি মক্কাবিস নামক গ্রন্থগুলোতে তাদের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আলেকজান্ডারের মৃত্যুর পর ডায়াদচি যুদ্ধের সময়, কোয়েলে-সিরিয়া প্রাথমিকভাবে অ্যান্টিগোনাস ১ মোনোফথলমাসের অধীনে এসেছিল। খ্রিস্টপূর্ব ৩০১ এ টলেমি ১ সোটার, যিনি চার বছর আগে নিজেকে মিশরের রাজা হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন, এই অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য ইপসসের যুদ্ধের চারপাশে ঘটনাগুলি আয়ত্ত্বে নিয়েছিলেন। ইপসাসের বিজয়ীরা, কোয়েলে-সিরিয়াকে টলেমিযর সাবেক সহকর্মী সেলুকাস ১ নিকোটারকে, সেলেকিড সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা, বরাদ্দ করেছিলেন। সেলুকাস, টলেমি যাকে ক্ষমতায় আরোহণের সময় সহায়তা করেছিল, এই অঞ্চলের পুনরুদ্ধারের জন্য কোন ধরনের সামরিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি। যখন তারা দুইজনই মারা গেল, তাদের উত্তরাধিকারীরা নিজেদের মধ্যে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে।

প্রথম সিরীয় যুদ্ধ (২৭৪-২৭১ খ্রিস্টপূর্ব)[সম্পাদনা]

তার শাসনকালের এক দশক পর, টলেমি ২ স্যলিউইড রাজা এন্তিওকাস ১ এর মুখোমুখি হন যিনি সিরিয়া ও আনাতোলিয়ায় তার সাম্রাজ্যের পরিধি প্রসারিত করার চেষ্টা করছিলেন। টলেমি নিজেকে একজন জোরালো শাসক এবং দক্ষ প্রশাসক হিসেবে প্রমাণিত করেছিলেন।

উপরন্তু, তার সাথে মিসরের আরসিনোয় ২ তার সাম্প্রতিক বিয়েটি মিশরীয় আদালতটিকে স্থিতিশীল করেছিল যা টলেমি সফলভাবে প্রচারণা চালাতে সক্ষম হয়েছিল।

প্রথম সিরীয় যুদ্ধ টলেমীদের জন্য একটি বড় বিজয় ছিল। এন্তিওকাস তার প্রাথমিক অভিযানে টলেমির নিয়ন্ত্রণে থাকা সিরিয়ার উপকূলীয় এলাকা এবং দক্ষিণ আনাতোলিয়া নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছিল।খ্রিস্টপূর্ব ২৭১ অব্দে টলেমি পুনরায় ঐ এলাকাগুলো দখলে নেয় এবং ক্যারিয়া এবং সিলিসিয়া অধিকাংশ এলাকাজুড়ে তার সাম্রাজ্য বিস্তৃত করেন। টলেমি পূর্ব দিকে তার দৃষ্টি মনোনিবেশে করেন, তার সৎভাই মগাস তার রাজ্য সিরেনাইকাকে স্বাধীন হিসেবে ঘোষণা দেন। ২৫০ খ্রিস্টপূর্ব অব্দ পর্যন্ত টলেমীয় সাম্রাজ্য কর্তৃক দখল হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত এটি স্বাধীন ছিল।

দ্বিতীয় সিরীয় যুদ্ধ (২৬০-২৫৩ খ্রিস্টপূর্ব)[সম্পাদনা]

খ্রিস্টপূর্ব ২৬১ অব্দে দ্বিতীয় এন্তিওকাস তার পিতার উত্তারাধিকারী হন এবং এভাবেই সিরিয়া নতুন যুদ্ধের শুরু হয়। তিনি ম্যাকডোনার তৎকালীন অ্যান্টিগনিড রাজা, দ্বিতীয় অ্যান্টিগোনস গোনাটাসের, যিনি দ্বিতীয় টলেমিকে এজিয়ানের ক্ষমতা থেকে নামাসোর জন্য আগ্রহী ছিলেন, সঙ্গে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছিলেন। ম্যাসিডোনের সমর্থনে, দ্বিতীয় এন্তিওকাস এশিয়ার টলেমি সাম্রাজ্যের ঘাঁটিগুলোতে আক্রমণ শুরু করে।

দ্বিতীয় সিরীয়া যুদ্ধ সম্পর্কে অধিকাংশ তথ্যই হারিয়ে গেছে। এটা স্পষ্ট যে আন্তিগনাসের নৌকায় খ্রিস্টপূর্ব ২৬১ অব্দে কোস যুদ্ধে টলেমি নৌবাহিনীর ক্ষমতা ধ্বংস করে দেয়ার মাধ্যমে অ্যান্টিগোনাসের সেনা বজর টলেমীদের উপর বিজয় লাভ করে। টলেমীয়রা সিলিসিয়া, পামফিলিয়া ও আইনিয়াতে নিজেদের আধিপত্য হারিয়ে ফেলে, অপরদিকে এন্তিওকাস মিলেটাসএফেসাসর ক্ষমতায় পুনারয় আরোহন করেন। খ্রিস্টপূর্ব ২৫৩ অব্দে যখন করিন্থ ও চ্যালসিসের বিদ্রোহের ফলে, সম্ভবত টলেমি দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে, পাশাপাশি ম্যাসেডোনের উত্তর সীমান্ত বরাবর শত্রু কার্যকলাপ বৃদ্ধির কারণে অ্যান্টিগোনাস দুর্বল হয়ে পড়ে, তখন ম্যাসিডোনের হস্তক্ষেপে যুদ্ধ স্থগিত হয়।

খ্রিস্টপূর্ব ২৫৩ অব্দে টলেমির কন্যা বেরেনিস সিরার সাথে এন্তিওকাসের বিয়ের ফলে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে। এন্তিওকাস তার পূর্ববর্তী স্ত্রী লাইডাইসকে প্রত্যাখ্যাত করেন এবং তার জন্য যথেষ্ট পরিশাণ সম্পত্তি রেখে দেন। কিছু সূত্র অনুসারে খ্রিস্টপূর্ব ২৪৬ অব্দে লাইডাইস কর্তৃক বিষ প্রয়োগে এফেসাস এ তিনি মারা যান। একই বছরে দ্বিতীয় টলেমি মারা যান।

তৃতীয় সিরীয় যুদ্ধ (২৪৬-২৪১খ্রিস্টপূর্ব)[সম্পাদনা]

তৃতীয় সিরীয় যুদ্ধটি, লাওডিসিয়ান যুদ্ধ নামেও পরিচিত, হেলেনীয় রাষ্ট্রগুলির উপর চাপ সৃষ্টি করেছে এমন বহু সংকটগুলির একটি। দ্বিতীয় এন্তিওকাস, দুইজন উচ্চাকাঙ্ক্ষী মা, তার প্রত্যাখ্যাত স্ত্রী লাইডাইস এবং দ্বিতীয় টলেমির কন্যা বেরেনিস সিরা, যারা সিংহাসনে তাদের নিজ নিজ পুত্রদের স্থাপন প্রতিযোগিতায় নেমেছিলেন তাদের ত্যাগ করেন। লাইডাইস দাবি করেছিলেন যে এন্তিওকাস তাঁর মৃত্যুর সময় তার পুত্রকে উত্তরাধিকারী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিলেন, কিন্তু বেরেনিস যুক্তি দেন যে তার নবজাতক পুত্রই হচ্ছে বৈধ উত্তরাধিকারী। বেরেনিস তার ভাই তৃতীয় টলেমিকে, নতুন টলেমীয় রাজা, এন্তিওকায় আসার জন্য অনুরোধ করেন এবং সিংহাসনে তাঁর পুত্রকে আরোহন করার ব্যাপারে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন। যখন টলেমি সেখানে পৌঁছেন, বেরেনিস এবং তার সন্তান হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]