সার্স-কোভি-২ ভাইরাসের ল্যাম্বডা প্রকারণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সার্স-কোভি-২ ভাইরাস

সার্স-কোভি-২ ল্যাম্বডা প্রকারণ, যা সি.৩৭ বংশ নামেও পরিচিত, সার্স-কোভি-২ (গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী ভাইরাস-২) নামক ভাইরাসটির একটি প্রকারণ, যে ভাইরাসটি মানবদেহে করোনাভাইরাস রোগ ২০১৯ (কোভিড-১৯) রোগের সৃষ্টি করে।[১] ২০২০ সালের আগস্ট মাসে দক্ষিণ আমেরিকার পেরুতে এটি সর্বপ্রথম শনাক্ত করা হয়।[১] বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ২০২১ সালের ১৪ই জুন তারিখে এটিকে ল্যাম্বডা প্রকারণ নামটি প্রদান করে।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ল্যাম্বডা প্রকারণের প্রথম নমুনাগুলি ২০২০ সালের আগস্ট মাসে পেরুতে শনাক্ত হয় এবং ২০২১ সালের এপ্রিল মাস নাগাদ পেরুর ৮০ শতাংশেরও বেশি নতুন কোভিড-১৯ রোগীর দেহে এই প্রকারণটি ধরা পড়ে।[১][২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Tracking SARS-CoV-2 variants"World Health Organization (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ 
  2. "WHO reports on Lambda: the new variant of COVID-19 that is affecting South America"Entrepreneur (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৬-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭