সান্দ্রা দেউই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সান্দ্রা দেউই
জন্ম
মনিকা নিকোল সান্দ্রা দেউই গুনাওয়ান বসরি

(1983-08-08) ৮ আগস্ট ১৯৮৩ (বয়স ৩৬)
জাতীয়তাইন্দোনেশিয়ান
জাতিসত্তাচাইনিজ ইন্দোনেশিয়ান[১]
যেখানের শিক্ষার্থীলন্ডন স্কুল অফ পাবলিক রিলেশন
পেশাঅভিনেত্রী, মডেল
কার্যকাল২০০৭–বর্তমান
উচ্চতা১.৬৮ মিটার (৫ ফুট ৬ ইঞ্চি)
ওজন৪৮ কিলোগ্রাম (১০৬ পা)
দাম্পত্য সঙ্গীহার্ভি মইস (২০১৬–বর্তমান)
ওয়েবসাইটঅফিসিয়াল ওয়েবসাইট

মনিকা নিকোল সান্দ্রা দেউই গুনাওয়ান বসরি (৮ আগস্ট ১৯৮৩), যিনি সান্দ্রা দেউই নামে অধিক পরিচিত, হচ্ছেন ইন্দোনেশিয়ার একজন মডেল এবং অভিনেত্রী। তিনি ইন্দোনেশিয়ায় এবং দক্ষিণ পূর্ব এশীয় পণ্যগুলির একজন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করেন।[২]

জীবনী[সম্পাদনা]

সান্দ্রা দেউই ১৯৮৩ সালের ৮ আগস্ট ইন্দোনেশিয়ার বাংকা দ্বীপ এর পঙ্কাল পিনাগ এ জন্মগ্রহণ করেন। তিনি হচ্ছেন ইন্দোনেশিয়ার অন্যতম সেরা অভিনেত্রী, মডেল, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর, টেলিভিশন উপস্থাপক এবং একজন ব্যবসায়ী। তিনি হচ্ছেন অ্যান্দ্রিয়াস গুনাওয়ান বসরি এবং চাথারিনা এরলিয়ানি,[৩] এর ঘরে জন্মগ্রহণ করা তিন সন্তানের মধ্যে সবচেয়ে জ্যেষ্ঠ। তিনি হচ্ছেন একজন ক্যাথলিক;[৪] এবং চীনা, জাপানি ও পালেম্বাং বংশধর। পঙ্কাল পিনাগ[১] এ বেড়ে ওঠার পর এবং ক্যাথলিক স্কুলে পড়ার পর,[৪] সান্দ্রা দেউই লন্ডন স্কুল অব পাবলিক রিলেশনে যোগ দেন। তিনি ২০০১ সালে তার পরিবারের সাথে জাকার্তাতে চলে যান।[১] পরবর্তীতে, তিনি "মিস এনচেনটোর সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা" জয়লাভ করেছেন এবং ২০০২ সালে পশ্চিম জাকার্তার জন্য একজন "পর্যটন দূত" হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। পরে তিনি "কসোপোলিট্যান্টান ইন্দোনেশিয়া" দ্বারা স্পন্সরকৃত,[৩] ২০০৬ সালে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতা "স্প্যানিশ ফান ফিমেল" এ অংশগ্রহণ করেন, যেখানে তিনি দ্বিতীয় স্থান অধিকার করতে সক্ষম হয়েছিলেন।[১] সান্দ্রা দেউই ২০০৭ সালের কমেডি সিরিজ "কুইচি এক্সপ্রেস" এ তার ভূমিকা নিয়ে মূলধারার সফলতা লাভ করেন,[১] যার জন্য তিনি ২০০৮ সালের সেরা নবাগত হিসেবে ইন্দোনেশিয়ান মুভি অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছিলেন।[৩] পরের বছর, তিনি ডিভি সান্দ্রা এবং লুনা মায়া এর গান, "প্লে" এ তাদের সাথে সহযোগিতা করেন, যা ইউরো ২০০৮ এর জন্য মুক্তি প্রদান করা হয়েছিল। অতঃপর তিনি টারজান কে কোটা এ অভিনয় করেন এবং সেইসাথে মুভিটির জন্য কিছু গানও গেয়েছিলেন।[৩]

সান্দ্রা দেউই সিনেটর (ইন্দোনেশিয়ান সোপ অপেরা) এবং বেশ কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছেন। হিদায়াহে, তিনি একজন মুসলিম চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তিনি মুলান জমিলায় ২০০৮ সালের একক "ওয়ান্ডার উইমেন" এর জন্য ভিডিও ক্লিপ সঞ্চালনা করেন। পরে তিনি বলেছিলেন, এই অভিজ্ঞতাটি তাকে আরও উপযুক্তভাবে অভিনেত্রী হতে সাহায্য করেছিল।[৪] পরে তাকে ইয়াহু ইন্দোনেশিয়া কর্তৃক "সর্বাধিক অনুসন্ধানকারী শিল্পী" হিসেবে অভিহিত করা হয়।[১] তিনি এখনও নিজেকে একজন ধার্মিক অনুশীলনকারী ক্যাথলিক হিসাবে বর্ণনা করেন।[৪][৫]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

সান্দ্রা দেউই হচ্ছেন ডিজনির একজন ভক্ত। তিনি ইন্দোনেশিয়ার অনেক ডিজনির ইভেন্টেও উপস্থিত হয়েছিলেন। তার একটি খুব ভাল "পাবলিক ইমেজ" আছে এবং তিনি সবসময় পরীদের কাহিনী সম্পর্কে আলোচনা করেন, কারণ তিনি সকল মানুষকে বিশ্বাস করাতে চান যে যদি আপনি মহান কিছু বিশ্বাস করতে পারেন তাহলে আপনি মহান কিছু অর্জন করতে পারবেন। তিনি মানুষকে ইতিবাচক হতে অনুপ্রাণিত করতে চান এবং তাদের স্বপ্ন অর্জনের জন্য নিজেদের স্বার্থে বিশ্বাস করাতে চান। তিনি ২০১৫ ডিজনি রাজকুমারী ক্যালেন্ডারের জন্য "সিন্ড্যারেলা" হিসাবে হাজির হতে বলা হয়েছিল। সান্দ্রা দেউই উক্ত প্রকল্পটিতে জড়িত হওয়া একমাত্র ইন্দোনেশিয়ান নারী। থাইল্যান্ডের ফটোগ্রাফার মাইকেল চেভাস এর নির্দেশে ছবিটি ব্যাংকক-থাইল্যান্ডে স্থান পেয়েছে। তিনি স্বীকার করেন যে যখনই তিনি ডিজনিল্যান্ডে যাওয়ার সুযোগ পাবেন, তখন তিনি ডিজনিল্যান্ডে যাবেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

পাদটীকা
গ্রন্থপঞ্জি
  • "Bersinar Cantik" [Shining Beautifully]। TokohIndonesia.com (Indonesian ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  • Hari, Kurniawa (৭ ফেব্রুয়ারি ২০১০)। "Sandra Dewi: 'I love to just hang out at home'"The Jakarta Post। ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১১ 
  • Hari, Kurniawa (২৫ জানুয়ারি ২০০৯)। "Sandra Dewi: Success is a heavenly bonus"The Jakarta Post। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১১ 
  • "Sandra Dewi"KapanLagi.com (Indonesian ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  • "Sandra Dewi fasting to show solidarity"The Jakarta Post। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]