সংবিধান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
এরিস্টোটল কর্তৃক সংবিধানের শ্রেণিবিভাজন

সংবিধান হলো কোন শাসনব্যবস্থার মূল গ্রন্থ যাতে, স্বায়ত্তশাসিত কোন রাজনৈতিক সত্তার কর্তব্য নির্ধারণের মৌলিক নিয়ম ও সূত্রসমূহ লিপিবদ্ধ থাকে।[১] কোন দেশের ক্ষেত্রে এই শব্দ সেই দেশের জাতীয় সংবিধানকে বোঝায়, যা রাজনৈতিক মৌলিক নিয়ম ও সরকারের পরিকাঠামো, পদ্ধতি, ক্ষমতা ও কর্তব্যকে প্রতিস্থাপিত করে। সংবিধান দুই ধরনের হতে পারে এক, লিখিত দুই, অলিখিত৷

অলিখিত সংবিধানঃযেই সংবিধনের কিছু অংশ লিখিত, কিছু অংশ প্রথা দ্বারা প্রচলিত এবং যা একটি নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্বারা পাশ হয় না তাকে অলিখিত সংবিধান বলে।

যেমন-গ্ৰেট ব্রিটেনের সংবিধান,সৌদি আরবের সংবিধান,বাংলাদেশের সংবিধান,ভারতের সংবিধান,মিশরের সংবিধান,পাকিস্তানের সংবিধান,প্যালেস্টাইনের সংবিধান,ব্রাজিলের সংবিধান,আর্জেন্টিনার সংবিধান,ইসরাইলের সংবিধান,লেবাননের সংবিধান,ইরানের সংবিধান,মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান,জাপানের সংবিধান,চীনের সংবিধান,সংযুক্ত আরব আমিরাতের সংবিধান

প্রথম লিখিত সংবিধান[সম্পাদনা]

পৃথিবীর প্রথম লিখিত সংবিধান হল মদিনার সনদইবনে হিশামের মতে এ সনদের ৫৩টি ধারার রয়েছে। উইলিয়াম মন্টগোমারি ওয়াটের মতে এই সনদের ধারার সংখ্যা ৪৭টি।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. McKean, Erin (২০০৫-০৫-১৯)। The New Oxford American Dictionary (ইংরেজি ভাষায়)। Oxford University Press, USA। পৃষ্ঠা ২০৫১। আইএসবিএন 978-0-19-517077-1 
  2. "মদিনা সনদ পৃথিবীর প্রথম লিখিত সংবিধান"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০৩