সংগো ম্নারা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সংগো ম্নারা
সংগো ম্নারা তানজানিয়া-এ অবস্থিত
সংগো ম্নারা
সংগো ম্নারার ধ্বংসাবশেষ
অবস্থানতানজানিয়া
স্থানাঙ্ক৯°২′৫৮″ দক্ষিণ ৩৯°৩৪′২″ পূর্ব / ৯.০৪৯৪৪° দক্ষিণ ৩৯.৫৬৭২২° পূর্ব / -9.04944; 39.56722স্থানাঙ্ক: ৯°২′৫৮″ দক্ষিণ ৩৯°৩৪′২″ পূর্ব / ৯.০৪৯৪৪° দক্ষিণ ৩৯.৫৬৭২২° পূর্ব / -9.04944; 39.56722

সংগো ম্নারা হচ্ছে দক্ষিণ তানজানিয়ার সোয়াহিলি উপকূলে অবস্থিত একটি পাথুরে শহর। প্রস্তর শহরটির বয়স ১৪ থেকে ১৬ শতাব্দীকার[১]। ইউনেস্কো সংগো ম্নারাকে নিকটবর্তী পাথুরে শহর কিলওয়া কিসিওয়ানির সংগে বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে ঘোষণা । প্রত্নতত্ত্ববিদ গণ এখানে সর্বমোট ছয়টি মসজিদ, চারটি কবরস্থান এবং তিনটি উন্মুক্ত স্থানসহ দ্বীপে দুই ডজন বাড়ির সন্ধান পেয়েছেন[২] । সংগো ম্নারা প্রধানত রুক্ষ প্রবাল এবং মর্টার দিতে গঠিত।[৩] এটা ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে গড়ে ওঠা অনেক বাণিজ্যিক শহরের একটি।

সোয়াহিলি শহর বিন্যাস[সম্পাদনা]

প্রত্নবিদগণ পাথুরে শহরের বিন্যাস বিশ্লেষণ করে সোয়াহিলি উপকূলে মসজিদ এবং বাড়ির সম্পর্ক থেকে সোয়াহিলি উপকূলে ইসলামি সংস্কৃতির প্রভাব, অঞ্চলের অর্থনীতি এবং জমির সত্বাধিকারীদের আনুষ্ঠানিক প্রথা বোঝার চেষ্টা করেছেন। খোলা জায়গা বিভিন্ন সামাজিক কর্মে ব্যবহার করা হতো। শহর দেয়ালের ভেতর এবং বাহির উভয় পাশে কবরখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। সংগো ম্নারা এবং সোয়াহিলি উপকূলীয় পাথুরে শহরগুলোর বিন্যাস প্রায় একই রকমের।

খনন[সম্পাদনা]

খনন প্রক্রিয়া প্রত্নতত্ত্ববিদ দের সংগো ম্নারার জীবন যাপন ভালোভাবে বুঝতে সহায়তা করেছে। বিভিন্ন স্থানে খননকাজ চালানো হয়েছে। এর মধ্যে ৪০ টি গৃহ আছে। বিভিন্ন ধরণের হস্তনির্মিত দ্রব্য পাওয়া গেছে। এর বেশ কিছুকে খননকৃত ঘর গুলো থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। প্রত্নবিদ গণ সাবধানে প্রাপ্ত জিনিসের মানচিত্র এবং রেকর্ড রাখছেন। [৪]

বাণিজ্য[সম্পাদনা]

চীন, ভারত এবং অন্য দেশসমূহ যারা ভারত মহাসাগরে ব্যবসা করতো তাদের ব্যবসা ছিলো সোয়াহিলি উপকূল জুড়ে। সংগো ম্নারায় কারা ব্যবসা করতো এটা খুঁজতে গিয়ে চীন ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার সিরামিক ফলক পাওয়া গেছে। চীনা সিরামিক গুলো নীল এবং সাদা পোর্সেলিনের, সবুজাভ পাথুরে সামগ্রী ১৪ শতকের। দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার টুকরো গুলো নিষ্প্রভ এবং সবুজ উজ্জ্বল গুলো থাই থেকে আনা।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Stoetzel, Jack (২০১১)। "Field Report: Archaeological Survey of Songo Mnara Island"। Nyame Akuma76: 9–14। 
  2. Fleisher, Jeffrey; Wynne-Jones, Stephanie (২০১২)। "Finding Meaning in Ancient Swahili Spatial Practices"। African Archaeological Review29: 171–207। doi:10.1007/s10437-012-9121-0 
  3. Fleisher, Jeffery। "How Public Space is Used in Ancient Cities: The Case of Songo Mnara, a Medieval Swahili City in Tanzania" (PDF)। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৪ 
  4. Fleisher, Jeffrey; Wynne-Jones, Stephanie। "Archaeological Investigations at Songo Mnara, Tanzania: Urban Space, Social Memory and Materiality on the 15th- and 16th-century Southern Swahili Coast" (PDF)