শো উইন (জেনারেল)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভাইস সিনিয়র জেনারেল

Soe Win
စိုးဝင်း
Soe Win.jpg
মিয়ানমারের উপ প্রধানমন্ত্রী[১]
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১ আগস্ট ২০২১
রাষ্ট্রপতিমাইইন্ট সোয়ে (ভারপ্রাপ্ত)
প্রধানমন্ত্রীমিন অং হ্লাইং
পূর্বসূরীনতুন কার্যালয়
ভাইস চেয়ারম্যান অব দ্য স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কাউন্সিল
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২ ফেব্রুয়ারি ২০২১
রাষ্ট্রপতিমাইইন্ট সোয়ে (ভারপ্রাপ্ত)
চেয়ারম্যান অব দ্য স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কাউন্সিলমিন অং হ্লাইং
পূর্বসূরীনতুন কার্যালয়
মিয়ানমার সশস্ত্র বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার-ইন-চীফ
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৩০ মার্চ ২০১১
রাষ্ট্রপতিথেইন সেইন
তিন কিয়াউ
উইন মাইইন্ট
মাইইন্ট সোয়ে (ভারপ্রাপ্ত)
পূর্বসূরীভাইস সিনিয়র জেনারেল মং আই
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মশো উইন
(1960-03-01) ১ মার্চ ১৯৬০ (বয়স ৬২)[২]
নাগরিকত্ববার্মীজ
দাম্পত্য সঙ্গীথান থান নোয়ে
প্রাক্তন শিক্ষার্থীমিয়ানমার ডিফেন্স সার্ভিস একাডেমী
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্য মিয়ানমার সশস্ত্র বাহিনী
শাখা মিয়ানমারের সেনাবাহিনী
কাজের মেয়াদ১৯৮০ - বর্তমান
পদVice Senior General Tatmadaw (Final).gif ভাইস সিনিয়র জেনারেল
কমান্ডডেপুটি কমান্ডার-ইন-চীফ, মিয়ানমার সশস্ত্র বাহিনী
কমান্ডার-ইন-চীফ, মিয়ানমার সেনাবাহিনী

ভাইস সিনিয়র জেনারেল শো উইন মিয়ানমারের বর্তমান উপ প্রধানমন্ত্রী এবং মিয়ানমার সশস্ত্র বাহিনীর বর্তমান ডেপুটি কমান্ডার-ইন-চীফ সহ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বর্তমান সর্বাধিনায়ক এবং দেশটির ন্যাশনাল ডিফেন্স এ্যান্ড সিকিউরিটি কাউন্সিল-এর একজন সদস্য।[৩][৪] ২০১২ সালের মে মাসে দেশটির সাবেক রাষ্ট্রপতি থেইন সেইন জেনারেল শো উইনকে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে অধিষ্ঠিত করেন। মিয়ানমারের স্টেট পিস এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল এর সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান জেনারেল মং আই এর খুব কাছের লোক ছিলেন শো উইন। জেনারেল শো দেশটির দ্বিতীয় প্রধান সামরিক কর্মকর্তা হিসেবে অধিষ্ঠিত ছিলেন।

সামরিক জীবন[সম্পাদনা]

শো উইন ১৯৮০ সালে মিয়ানমার সেনাবাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত হন প্রতিরক্ষা সেবা বিদ্যায়তনের (ডিফেন্স সার্ভিসেস একাডেমী) ২২তম ব্যাচের মাধ্যমে। ২০০৮ এর জুন মাসে তিনি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর উত্তরাঞ্চলীয় সেনাদলের (নর্দান কমান্ড) অধিনায়ক হিসেবে নিয়োগ পান।[৩] ২০১০ সালের আগস্টে শো উইন চীফ অব দ্যা ব্যুরো অব স্পেশাল অপারেশন্স এর দায়িত্বে অর্পিত হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Myanmar Junta Forms Caretaker Government; Min Aung Hlaing is Prime Minister"VOA Burmese (ইংরেজি ভাষায়)। ১ আগস্ট ২০২১। 
  2. "Issuance of Executive Order "Blocking Property With Respect To The Situation In Burma;" Burma-related Designations and Designations Updates"। U.S. Department of the Treasury। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  3. "Tatmadaw Deputy Commander-in-Chief - Regime Watch - ALTSEAN Burma"www.altsean.org। Alternative ASEAN Network (ALTASEAN)। ১৯ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১৬ 
  4. "Vice-Senior General Soe Win visits military commands in Pyin Oo Lwin | Ministry Of Information"www.moi.gov.mm। সংগ্রহের তারিখ ৭ মে ২০১৬