শিশা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শিশা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
স্থাপিত১৯৬৪ (1964)
প্রাতিষ্ঠানিক অধিভুক্তি
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, রাজশাহী
অধ্যক্ষমোঃ শহীদুল ইসলাম
ঠিকানা, ,
শিক্ষাঙ্গনমফস্বল

শিশা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগে অবস্থিত একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এটি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, রাজশাহী এর অধীনে পরিচালিত।[১]

অবস্থান[সম্পাদনা]

এটি নওগাঁ জেলার অন্তর্গত পোরশা উপজেলার, মুশিদপুর ইউনিয়নের শিশা বাজারে এই বিদ্যালয়টি অবস্থিত।

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়টিতে তিনটি ছোট ভবন রয়েছে। এ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠটি বিদ্যালয় হতে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বর্তমানে প্রায় ৫২০ জন শিক্ষার্থী, ১৩ জন সাধারন শিক্ষক ও ৪ জন কারিগরি বিভাগের শিক্ষক, একজন ৩য় শ্রেনীর কর্মচারী ও ২ জন ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারী রয়েছে এই বিদ্যালয়ে।

শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

প্রতি বছর প্রায় ১৫০ জন শিক্ষার্থী, ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে ভর্তি হয়। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কলা, বিজ্ঞান ও কারিগরি বিভাগে শিক্ষা দেওয়া হয়। বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন জনাব মোঃ শহীদুল ইসলাম। সহকারী প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন, জনাব মোঃ মকলেছুর রহমান। এছাড়াও আরো ১১ জন সহকারী শিক্ষক কর্মরত আছেন। এছাড়াও বিদ্যালয়ে মোঃ আশরাফুল আলম শাহ্ চৌধুরী এর সভাপতিত্বে ১০ জনের একটি ব্যবস্থাপনা কমিটি রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৬৪ সালে শিশা প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ছয়ফুদ্দীন শাহ্ এর নেতৃত্বে ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত শিশা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় নামে বিদ্যালয়টি যাত্রা শুরু করে। বিংশ শতাব্দীর প্রথম দিকে শিশা হাটে একটি মক্তবে শিক্ষা প্রদান করা হতো। ১৯২৪ সালে শামসুদ্দীন আহমেদ শাহ্ চৌধুরী মক্তবটি সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে সেখানে নিজস্ব সম্পত্তিতে শিশা প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত করেন।

পরবর্তীতে ১৯৬৪ সালে ছয়ফুদ্দীন শাহ্ এর উদ্দোগ্যে ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত শিশা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় নামে বিদ্যালয়টি যাত্রা শুরু করে। এই বিদ্যালয়ের উন্নয়নে অন্যতম ভূমিকা পালন করেন, নূর মোহাম্মদ খলিফা।। পরবর্তীতে এই বিদ্যালয়ে দশম শ্রেনী পর্যন্ত শিক্ষা দেওয়া হয় ও নাম শিশা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও পরবর্তীতে ২০০৮ সাল পর্যন্ত শিশা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় নামে পরিচিত ছিল। ২০০৮ সালে বিদ্যালয়টিতে কারিগরি বিভাগ চালু করা হলে এর নাম পরিবর্তন করে, শিশা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় রাখা হয়।

অর্জন[সম্পাদনা]

  • উপজেলা পর্যায়ে, শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ২০১৫
  • শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ২০১৭
  • উপজেলা পর্যায়ে, শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক, ২০১৭
  • জেলা পর্যায়ে, ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা-২০১৬ তে প্রথম স্থান অধিকার

বহিঃস্থ সংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Institute Basic Info"Education Management Information System। Directorate of Secondary And Higher Education।