লুইজি বার্তোলিনি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লুইজি বার্তোলিনি
স্থানীয় নাম
Luigi Bartolini
জন্ম(১৮৯২-০২-০৮)৮ ফেব্রুয়ারি ১৮৯২
কুপ্রামন্তানা, ইতালি
মৃত্যু১৬ মে ১৯৬৩(1963-05-16) (বয়স ৭১)
জাতীয়তাইতালীয়
পেশাচিত্রশিল্পী, লেখক, কবি
কার্যকাল১৯১৪-১৯৬৩

লুইজি বার্তোলিনি (ইতালীয়: Luigi Bartolini; ৮ই ফেব্রুয়ারি ১৮৯২ - ১৬ই মে ১৯৬৩) ছিলেন একজন ইতালীয় চিত্রশিল্পী, লেখক ও কবি। জোর্জিও মোরান্দি ও জুসেপ্পে ভিভিয়ানির সাথে তাকে বিংশ শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ ইতালীয় খোদাইশিল্পী বলে বিবেচনা করা হয়। তিনি তার রচিত উপন্যাস লাদ্রি দি বিচিক্লেত্তের জন্য সুপরিচিত। এই উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে ভিত্তোরিও দে সিকা ইতালীয় নব্যবাস্তববাদী চলচ্চিত্র লাদ্রি দি বিচিক্লেত্তে নির্মাণ করেন।[১] তার রচিত ৭০টির বেশি বই প্রকাশিত হয়।

জীবনী[সম্পাদনা]

বার্তোলিনি ১৮৯২ সালের ৮ই ফেব্রুয়ারি কুপ্রামন্তানাতে জন্মগ্রহণ করেন। একাদেমিয়া দে রোমাতে প্রশিক্ষিত বার্তোলিনি ১৯১৪ সালে তার প্রথম নকশার কাজ করেন। রেমব্রন্ট, গয়া, তেলিমাকো সিনোরিনি, জোভান্নি ফাত্তুরি এবং ১৮শ শতাব্দীর ইতালীয় খোদাইয়ের কাজ দেখার পর তার শৈলীকে উনিশ শতাব্দীর ইতালীয় প্রকৃতিবাদী রীতির সাথে যোগসূত্র স্থাপন করা হয়। তিনি ১৯২৪ থেকে ১৯৬২ সাল পর্যন্ত ভেনিস বিয়েনাল্লের প্রায় প্রত্যেকটি সংস্করণে একজন খোদাইশিল্পী এবং চিত্রশিল্পী হিসেবে অংশগ্রহণ করতেন। ১৯৪২ সালে খোদাইয়ের জন্য পুরস্কার লাভ করেন। খোদাই কাজের জন্য তিনি ১৯৩২ সালে ফ্লোরেন্সে মোরান্দি ও উমবের্তো বোচ্চোনির সাথে যৌথভাবে পুরস্কার লাভ করেন, এবং ১৯৩৫ সালে রোম কুয়ার্দিন্নেলে এবং ১৯৫০ সালে লুগানোতে পুরস্কার লাভ করেন।

১৯৩৩ সালে তিনি অসিমোতে রাজনৈতিক কারণে গ্রেফতার হন। সেখানে তিনি কয়েক বছর ধরে ফ্যাসিবাদী শাসনব্যবস্থার সঙ্গে বসবাস করেছিলেন এবং তিনি নিজেও ফ্যাসিবাদের সাথে জড়িত ছিলেন। পরে আনকোনা জেলখানায় এক মাস জেল খাটার পর তিনি মন্তেফুস্কোর ছিলেন এবং তারপর মেরানোতে ১৯৩৮ সাল পর্যন্ত বসবাস করেন। তার জীবনীকারদের একজন লুসিয়ানো ত্রোসিওর মতে, একটি "প্রক্রিয়া এবং একটি কারাবাস প্রহসন" অনুযায়ী কারণ "ফ্যাসিবাদ বিরোধী" বার্তলিনি কিছুটা ভিন্ন ছিলেন, কারণ ফ্যাসিস্ট বিরোধীদের কারাগারে সন্তান ধারণ ক্ষমতা কমিয়ে দেয়া ও নিশ্চুপ করে দেয়া হয়েছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "THE BICYCLE THIEVES by Luigi Bartolini"Kirkus Reviews। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]