লিংকন (ফুটবলার, জন্ম ১৯৯৮)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
লিংকন
Lincoln Henrique Oliveira dos Santos.jpg
২০১৫ সালে গ্রেমিওর হয়ে লিংকন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম লিংকন এনরিকে অলিভেইরা দোস সান্তোস
জন্ম (1998-11-07) ৭ নভেম্বর ১৯৯৮ (বয়স ২৩)
জন্ম স্থান পোর্তু আলেগ্রি, ব্রাজিল
উচ্চতা ১.৭৭ মিটার (৫ ফুট   ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান মধ্যমাঠের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
সান্তা ক্লারা
জার্সি নম্বর ১০
যুব পর্যায়
২০০৭–২০১৪ গ্রেমিও
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
২০১৫–২০১৯ গ্রেমিও ২১ (০)
২০১৭–২০১৮চায়কুর রিজেস্পোর (ধার) ১৮ (৩)
২০১৮আমেরিকা মিনেইরো (ধার) (০)
২০১৯– সান্তা ক্লারা ৪৯ (১)
জাতীয় দল
২০১৪–২০১৫ ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ ১৬ (৫)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং ১২:০৪, ১৬ মার্চ ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সকল তথ্য সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা ১২:০৪, ১৬ মার্চ ২০২১ (ইউটিসি) তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

লিংকন এনরিকে অলিভেইরা দোস সান্তোস (ইংরেজি: Lincoln; জন্ম: ৭ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮; লিংকন নামে সুপরিচিত) হলেন একজন ব্রাজিলীয় পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়। তিনি পর্তুগালের পেশাদার ফুটবল লীগের শীর্ষ স্তর প্রিমেইরা লিগার ক্লাব সান্তা ক্লারার হয়ে একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেন। তিনি মূলত একজন আক্রমণাত্মক মধ্যমাঠের খেলোয়াড় হিসেবে খেললেও মাঝেমধ্যে বাম পার্শ্বীয় আক্রমণভাগের খেলোয়াড় এবং ডান পার্শ্বীয় আক্রমণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলে থাকেন।

২০০৭–০৮ মৌসুমে, ব্রাজিলীয় ফুটবল ক্লাব গ্রেমিওর যুব পর্যায়ের হয়ে খেলার মাধ্যমে লিংকন ফুটবল জগতে প্রবেশ করেছেন এবং এই দলের হয়ে খেলার মাধ্যমেই তিনি ফুটবল খেলায় বিকশিত হয়েছেন। ২০১৫–১৬ মৌসুমে, ব্রাজিলীয় ক্লাব গ্রেমিওর মূল দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছেন, যেখানে তিনি ২ মৌসুম অতিবাহিত করেছেন; গ্রেমিওর হয়ে তিনি ২০ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন। অতঃপর ২০১৭–১৮ মৌসুমে তিনি ধারে তুর্কি ক্লাব চায়কুর রিজেস্পোরে যোগদান করেছেন, চায়কুর রিজেস্পোরের মাত্র ১ মৌসুম অতিবাহিত করার পর তিনি পুনরায় ধারে ব্রাজিলীয় আরেক ক্লাব আমেরিকা মিনেইরোর সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন, যেখানে তিনি ৩ ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছেন। ২০১৯–২০ মৌসুমে, তিনি গ্রেমিও হতে ব্রাজিলীয় ক্লাব সান্তা ক্লারায় যোগদান করেছেন।

২০১৪ সালে, লিংকন ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক পর্যায়ে অভিষেক করেছিলেন।

দলগতভাবে, লিংকন এপর্যন্ত ২টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ১টি গ্রেমিওর হয়ে এবং ১টি ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে জয়লাভ করেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লিংকন এনরিকে অলিভেইরা দোস সান্তোস ১৯৯৮ সালের ৭ই সেপ্টেম্বর তারিখে ব্রাজিলের পোর্তু আলেগ্রিতে জন্মগ্রহণ করেছেন এবং সেখানেই তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন।

আন্তর্জাতিক ফুটবল[সম্পাদনা]

লিংকন ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে খেলার মাধ্যমে ব্রাজিলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। ২০১৪ সালের ২৮শে নভেম্বর তারিখে তিনি অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৭ দলের বিরুদ্ধে এক প্রীতি ম্যাচে ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছেন। ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে তিনি ২০১৫ ফিফা অনূর্ধ্ব বিশ্বকাপ এবং ২০১৫ দক্ষিণ আমেরিকান অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করেছেন,[১] যার মধ্যে ২০১৫ দক্ষিণ আমেরিকান অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপে তার দল উক্ত প্রতিযোগিতার ইতিহাসে ১১ বারের মতো শিরোপা ঘরে তুলতে সক্ষম হয়েছিল।[২] ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে তিনি ১৬ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ৫টি গোল এবং ১টি শিরোপা জয়লাভ করেছেন। তিনি ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-১৭ দলের তার অভিষেক ম্যাচেই ব্রাজিলের বয়সভিত্তিক দলের হয়ে প্রথমবারের মতো গোল করেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "FIFA U-17 World Cup Chile 2015: List of Players" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ৫ নভেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০২১ 
  2. "Sudamericano Masculino Sub 17"কনমেবল (পর্তুগিজ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মার্চ ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]