লালবুক ডুবুরি হাঁস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

লালবুক ডুবুরি হাঁস
Mergus serrator
Red-breasted merganser.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: Chordata
উপপর্ব: Vertebrata
শ্রেণী: Aves
বর্গ: Anseriformes
পরিবার: Anatidae
গণ: Mergus
প্রজাতি: Mergus serrator
দ্বিপদী নাম
Mergus serrator
Linnaeus, 1758
MergusSerratorIUCN2018 2.png
Red-breasted merganser range      Breeding      Resident      Non-breeding      Passage
প্রতিশব্দ

Merganser serrator (Linnaeus, 1758)

লালবুক ডুবুরি হাঁস (বৈজ্ঞানিক নাম: Mergus merganser)[২][৩][৪][৫][৬][৭][৮] (ইংরেজি Red-breasted erganser) Anatidae পরিবারের অন্তর্গত Mergus গণের অন্তর্ভুক্ত এক প্রজাতির হাঁস

বিবরণ[সম্পাদনা]

একটি প্রাপ্তবয়স্ক লালবুক ডুবুরি হাঁস ৫১-৬২ সেমি লম্বা।পাখার দৈর্ঘ্য প্রায় ৭০-৮৬ সেমি।[৯] পুরুষের হাঁসের মাথায় সবুজ চকচকে পালক থাকে। এদের গলা রং সাদা এবং বুকের রং বিবর্ণ। এবং স্ত্রী হাঁসের মাথার পালক ধূসর ও বুকের রং বিবর্ণ।

খাদ্য[সম্পাদনা]

লালবুক ডুবুরি হাঁস ডুব দিয়ে পানির তলে সাঁতার কাটে।এরা খাদ্য হিসাবে ছোট মাছ ,জলজ পোকামাকড় ও ব্যাঙ খায়।

প্রজনন[সম্পাদনা]

লালবুক ডুবুরি হাঁসের প্রজনন কেন্দ্র উত্তর আমেরিকা, গ্রিনল্যান্ড, ইউরোপও জুড়ে মিঠা পানির হ্রদ এবং নদীতে

বর্তমান অবস্থা এবং সংরক্ষণ[সম্পাদনা]

বৈশ্বিক অবস্থা ন্যূনতম বিপদগ্রস্ত এবং বাংলাদেশের অবস্থায় অনিশ্চিত ও অনুমান নির্ভর।কেবলমাত্র দুইটি তালিকায় বাংলাদেশের পাখি বলে উল্লিখিত, দক্ষিণ এশিয়ায় পাখিটি অনিয়মিত ও এ প্রজাতি বাংলাদেশে দেখার আর কোন রেকর্ড নেই।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. BirdLife International (২০১২)। "Mergus serrator"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা (ইংরেজি ভাষায়)। আইইউসিএন2012। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. (1996) , database, NODC Taxonomic Code
  3. Gill, Frank, and Minturn Wright (2006) , Birds of the World: Recommended English Names
  4. Banks, R. C., R. W. McDiarmid, A. L. Gardner, and W. C. Starnes (2003) , Checklist of Vertebrates of the United States, the U.S. Territories, and Canada
  5. Banks, R. C., R. W. McDiarmid, and A. L. Gardner (1987) Checklist of Vertebrates of the United States, the U.S. Territories, and Canada, Resource Publication, no. 166
  6. (2006) , website, Zoonomen - Zoological Nomenclature Resource, 2006.12.10
  7. (2006) , website, AOU Check-List (07-2006)
  8. ITIS: The Integrated Taxonomic Information System. Orrell T.(custodian), 2011-04-26
  9. Jonsson, Lars (১৯৯২)। Birds of Europe with North Africa and the Middle East। Princeton University Press। পৃষ্ঠা 118। আইএসবিএন 0-691-03326-9 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]