রাজা অচ্যুত সেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাজা অচ্যুত সেন
পুন্ড্র ও বরেন্দ্র রাজা
রাজবংশপরবর্তী সেন রাজবংশ
সন্তানাদিভদ্রাবতী দেবী
ধর্মবিশ্বাসসনাতন ধর্ম

রাজা অচ্যুত সেন, গৌড়াধিপতি ফিরোজ শাহর করদ রাজা ছিলেন। তার রাজধানী ছিল কমলাপুর। [১] জানা যায়, ফিরোজ শাহের পুত্র বাহাদুর শাহ অচ্যুত সেন রাজার কন্যা অপরূপ সুন্দরী ভদ্রাবতীকে দেখে মুগ্ধ হন। তিনি তাকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন। কিন্তু রাজা অচ্যুত সেন সম্মত না হওয়ায় বাহাদুর শাহ কমলাপুর আক্রমণ করে ভদ্রাবতীকে অপহরণ করে নিমগাছিতে নিয়ে যান।

রাজা অচ্যুত সেন তাঁর সৈন্যবাহিনীসহ বাহাদুর শাহকে আক্রমণ করেন। নিমগাছি প্রান্তরে ব্যাপক যুদ্ধ হয়। বাহাদুর শাহের মুষ্টিমেয় সৈন্য সেনরাজের বিরাট সৈন্যবাহিনীর কাছে যুদ্ধে (১৫৩২-৩৪ খ্রি.) পরাজয়বরণ করেন। রাজা অচ্যুত সেন যুদ্ধে জয়লাভ করে ভদ্রাবতীকে উদ্ধার করেন। এ বিজয় গৌরবের স্মৃতি হিসেবে এবং পরকালের কল্যাণের জন্য তিনি নিমগাছির কাছে ‘জয়সাগার’ নামে এক দিঘি খনন করান। যুদ্ধজয়ের কারণেই দিঘিটির নাম হয় জয়সাগর। ৪ পারে ২৮টি বাধা ঘাট দিয়ে জয়সাগর দীঘি তৈরি করা হলেও, বর্তমানে এ ঘাটের কোনো চিহ্ন নেই। বল্লাল সেনের বংশধর রাজা অচ্যুত সেনের দুর্গ ও সেনানিবাস ছিল এই দীঘির পারে, এখন তা বিলুপ্ত হয়েছে গেছে। জয়সাগর দীঘি ছাড়াও রাজা অচ্যুত সেন তার সেনাপতি প্রতাপের নামে, প্রতাপ দীঘি, ভৃত্য উদয়ের নামে উদয় দীঘি এবং কন্যা ভদ্রাবতির নামে ভদ্রা দীঘি খনন করেন। [২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "পাতা:জীবনীকোষ-ভারতীয় ঐতিহাসিক-প্রথম খণ্ড.pdf/২৯ - উইকিসংকলন একটি মুক্ত পাঠাগার"bn.wikisource.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-১৩ 
  2. "রাজা অচ্যুত সেন" http://m.kholakagojbd.com/prints/42726