রবার্ট রেসনিক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রবার্ট রেসনিক
জন্ম(১৯২৩-০১-১১)১১ জানুয়ারি ১৯২৩
বাল্টিমোর, মেরিল্যান্ড
মৃত্যুজানুয়ারি ২৯, ২০১৪(2014-01-29) (বয়স ৯১)
পিটসবার্গ, পেনসিলভেনিয়া
নাগরিকত্বমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
কর্মক্ষেত্রপদার্থবিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠানপিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়
রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট
প্রাক্তন ছাত্রজনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়
উল্লেখযোগ্য
পুরস্কার
অরস্টেড মেডেল (১৯৭৫)

রবার্ট রেসনিক (১১ জানুয়ারি, ১৯২৩ - ২৯ জানুয়ারি, ২০১৪) ছিলেন একজন পদার্থবিজ্ঞান শিক্ষাবিদ এবং পদার্থবিজ্ঞান পাঠ্যপুস্তক লেখক।

তিনি ১১ জানুয়ারি, ১৯২৩ সালে মেরিল্যান্ডের বাল্টিমোরে জন্মগ্রহণ করেন[১] এবং ১৯৩৯ সালে বাল্টিমোর সিটি কলেজ হাই স্কুল থেকে স্নাতক হন। তিনি ১৯৪৩ সালে বিএ এবং ১৯৪৯ সালে জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি থেকে পদার্থবিদ্যায় পিএইচডি অর্জন করেন। ১৯৪৯ থেকে ১৯৫৬ সাল পর্যন্ত, তিনি পিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় অনুষদের একজন সদস্য ছিলেন, যেখানে তার ডেভিড হ্যালিডের সাথে প্রথম সাক্ষাৎ হয়। তার সাথেই তিনি তার সর্বাধিক পঠিত পাঠ্যপুস্তকগুলো লিখেছিলেন। পরে তিনি রেনসেলার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক হন এবং সেখানে ১৫ বছর তিনি আন্তঃবিভাগীয় বিজ্ঞান পাঠ্যক্রমের প্রধান ছিলেন। এ সময়ে, তিনি আপেক্ষিকতা, কোয়ান্টাম পদার্থবিদ্যা এবং সাধারণ পদার্থবিদ্যার উপর সাতটি পাঠ্যপুস্তক একক বা যৌথভাবে রচনা করেছেন, যা ৪৭টিরও বেশি ভাষায় অনূদিত হয়েছে। অনুমান করা হয়, তার বই থেকে ১০ মিলিয়নেরও বেশি শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করেছে।[২][৩] ১৯৬০ সালে, ফিজিক্স শীর্ষক প্রথম বর্ষের পাঠ্যপুস্তকটি প্রকাশিত হয় যা তিনি অধ্যাপক ড. হ্যালিডের সাথে রচনা করেন। তার ফিজিক্স বইটি ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়েছে এবং অনেকে মনে করেন, বইটি পদার্থবিদ্যা শিক্ষায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনেছে। এর দশম সংস্করণ জার্ল ওয়াকার দ্বারা সংশোধিত ও দুই-খণ্ডে ফান্ডামেন্টালস অব ফিজিক্স শিরোনামে এখনও অত্যন্ত সমাদৃত। স্পষ্ট ও প্রমিত চিত্রায়ণ, পুঙ্খানুপুঙ্খ কিন্তু পঠনযোগ্য শিক্ষণবিজ্ঞানের প্রয়োগ, আধুনিক পদার্থবিদ্যার দৃষ্টিভঙ্গি উপস্থাপন এবং চ্যালেঞ্জিং চিন্তন-উদ্দীপক সমস্যা-সংগ্রহের জন্য বইটি উল্লেখযোগ্য। ২০০২ সালে আমেরিকান ফিজিক্যাল সোসাইটি এই পুস্তকটিকে "বিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে অসামান্য পদার্থবিদ্যার পাঠ্যপুস্তক" হিসেবে অভিহিত করে।[৩]

তিনি অরস্টেড পদক (১৯৭৪) লাভ করেন,[৪] যা আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন অফ ফিজিক্স টিচার্স কর্তৃক প্রদত্ত সর্বোচ্চ পুরস্কার। ১৯৮৬ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি সেই সোসাইটির সভাপতি ছিলেন। ফুলব্রাইট স্কলার হওয়ার পাশাপাশি, তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের (১৯৬৪-৬৫) একজন সম্মানিত রিসার্চ ফেলো এবং ভিজিটিং প্রফেসরও ছিলেন। তার অর্জিত অন্যান্য কৃতিত্বের মধ্যে রয়েছে গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের অনারারি ভিজিটিং প্রফেসর (১৯৮১ এবং ১৯৮৫ সালে), অসাধারণ শিক্ষাদানের জন্য এক্সন ফাউন্ডেশন পুরস্কার (১৯৫৪), রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট বিশিষ্ট অনুষদ পুরস্কার (১৯৭১), বছরের সেরা শিক্ষাবিদ (১৯৭২ সালে), আমেরিকান ফিজিক্যাল সোসাইটি এবং আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য অ্যাডভান্সমেন্ট অফ সায়েন্সের ফেলোশিপ এবং ফি বেটা কাপ্পা এবং সিগমা জাই সোসাইটির সম্মানজনক সদস্য।

১৯৯৩ সালে অবসর গ্রহণের পর, তিনি রেনসেলার পলিটেকনিকের সূচনা বক্তা ছিলেন। তার সম্মানে পদার্থবিদ্যা শিক্ষায় একটি বিশেষ জাতীয় পৃষ্ঠপোষক আন্তর্জাতিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট রবার্ট রেসনিক সেন্টার ফর ফিজিক্স এডুকেশন এবং "রবার্ট রেসনিক লেকচার" তৈরি করেছেন যেখানে একজন বিশিষ্ট বিজ্ঞানী স্কুল পরিদর্শন করেন। অতীতের সূচনা বক্তাদের মধ্যে ২০০২ সালের লিয়ন লেডারম্যান এবং ২০০৫ সালের কিপ থর্ন অন্যতম। তিনি ২০০৩ সালে রেনসেলারের হল অফ ফেম-এ অন্তর্ভুক্ত হন।[৫] তিনি ২৯শে জানুয়ারি, ২০১৪ তারিখে পেনসিলভেনিয়ার পিটসবার্গে তার বাড়িতে মারা যান।[২]

যেসব পদে কর্মরত ছিলেন[সম্পাদনা]

  • জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রপতির তহবিল স্কলার (1946-49)
  • পদার্থবিদ্যা অনুষদ, পিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় (১৯৪৯-৫৬)
  • অধ্যাপক, রেনসেলার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট (১৯৫৬-৭৪)
  • এডওয়ার্ড পি. হ্যামিল্টন বিজ্ঞান শিক্ষার বিশিষ্ট অধ্যাপক, রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট (১৯৭৪-৯৩)
  • রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে ইমেরিটাস অধ্যাপক (১৯৯৩- আমৃত্যু)
  • বোর্ড অব ন্যাশনাল কমিশন অন কলেজ ফিজিক্স (১৯৬০-৬৮)
  • উপদেষ্টা বোর্ড প্রকল্প অ-বিজ্ঞানীদের জন্য পদার্থবিজ্ঞান (১৯৬৪-৬৮)
  • পদার্থবিদ্যা প্রদর্শনী পরীক্ষায় জাতীয় প্রকল্পের সহ-পরিচালক (১৯৬২-৭০)
  • উপদেষ্টা সম্পাদক, জন উইলি অ্যান্ড সন্স পাবলিশার্স (১৯৬৭-১৯৮৩)
  • চেয়ারম্যান ইন্টারডিসিপ্লিনারি সায়েন্স কারিকুলাম, রেনসেলার পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট (১৯৭৩-১৯৮৮)
  • আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন অফ ফিজিক্স টিচার্সের সভাপতি (১৯৮৬-৮৯)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Robert Resnick." Marquis Who's Who. Marquis Who's Who, 2008. Reproduced in Biography Resource Center. Farmington Hills, Mich.: Gale, 2008.
  2. Wilson, Jack M.; Stith, James H. (১ মে ২০১৪)। "Robert Resnick": 66–67। ডিওআই:10.1063/PT.3.2393অবাধে প্রবেশযোগ্য  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "obit" নামটি একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  3. "Biography of Robert Resnick"। Archived from the original on মার্চ ১, ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০০৬-১২-১১ 
  4. Robert Resnick: Oersted Medalist for 1974 American Journal of Physics. 43, 387 (January, 1975)
  5. "Robert Resnick"। RPI Alumni Hall of Fame। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৯-০৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]