মোহাম্মদ শাকিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মোহাম্মদ শাকিল
পশ্চিম লক্ষ্ণৌ-এর জন্য
উত্তর প্রদেশ লেজিসলেটিভ সভার সদস্য
কার্যালয়ে
১৯৭৪ – ১৯৭৯
পূর্বসূরী সৈয়দ আলী জহির
উত্তরসূরী জাফর আলী নাকভী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম ২১ জুলাই ১৯২৭
লক্ষ্ণৌ
মৃত্যু ২৪ ডিসেম্বর ২০০৭[১]
লক্ষ্ণৌ
সমাধিস্থল লক্ষ্ণৌ
জাতীয়তা ভারতীয়
রাজনৈতিক দল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস
অন্যান্য রাজনৈতিক
দল
ভারতের বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি, প্রজা সমাজতন্ত্রী দল
দাম্পত্য সঙ্গী বেগম আখতার জিহান
সম্পর্ক হাকিম আব্দুল আজিজ এর নাতি
সন্তান
বাসস্থান আকবরী গেট, লক্ষ্ণৌ
জীবিকা ট্রেড ইউনিয়ন কর্মী
পেশা শ্রম উকিল
কমিটি নির্বাহী কমিটি, লক্ষ্ণৌ মিউনিসিপাল কর্পোরেশন
ধর্ম ইসলাম

এম শাকিল (পুরো নাম: মোহাম্মদ শাকিল, বিকল্প নাম: এম শাকীল) ছিলেন ভারতের লক্ষ্ণৌ শহর থেকে একজন ভারতীয় মুক্তিযোদ্ধা, রাজনীতিবিদ, উর্দু ঔপন্যাসিক, ট্রেড ইউনিয়ন কর্মী এবং শ্রম আইনজীবী।[২][৩] তিনি বিখ্যাত আজিজি চিকিত্সক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং হাকিম আব্দুল আজিজ হলেন তার নানা।[৪]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

শাকিল ১৯২৭ সালে ভারতের লক্ষ্ণৌ জন্মগ্রহণ করেন এবং তিনি ভারতীয় জাতীয় আন্দোলন যোগদান করেন।[৫][৬] জাতীয় আন্দোলনে সম্পৃক্ততা থাকার কারনে তিনি মাত্র ১৪ বছর বয়সে ব্রিটিশ কর্তৃক কারারুদ্ধ হন।[৭] যদিও তিনি মাত্র ২১ দিন পরে মুক্তি পেয়েছিলেন। এরপর তিনি তার উত্তেজনাপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করার জন্য বছরের পর বছর ধরে বেশ কয়েকবার গ্রেফতার হয়েছিলেন। ভারতের স্বাধীনতা লাভের পরে শাকিল প্রজা সমাজতান্ত্রিক পার্টিতে যোগদান করেন এবং জয়প্রকাশ নারায়ণ, রাম মনহর লহিয়া এবং আচার্য ক্রিপলানী তার ঘনিষ্ট সহচর ছিলেন। Hতার স্ত্রী বেগম আখতার জিহান একজন শিক্ষাবিদ এবং "কাশ্মীরি মহল্লা গার্লস স্কুল" এর প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন।

রাজনৈতিক কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৬০ সালে শাকিল প্রাথমিকভাবে লক্ষ্ণৌ মিউনিসিপাল কর্পোরেশন থেকে নির্বাচিত হন এবং লক্ষ্ণৌর মধ্যে নাখাস ও প্রতাপ মার্কেট প্রতিষ্ঠায় সামাজিক কার্যক্রম ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। প্রজা সমাজতান্ত্রিক পার্টি ভেঙে যাওয়ার পরে শাকিল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলে যোগদান করেন এবং ঘনবসতিপূর্ণ লক্ষ্ণৌ ওয়েস্ট নির্বাচনকেন্দ্র থেকে ১৯৭৪ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জয় লাভ করেন।[৮][৯]

উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

শাকিল এর উর্দু কবিতা এবং সাহিত্যে "কিতাবি দুনিয়া" নামক পত্রিকা কর্তৃক প্রকাশিত হয়েছে। ২০১১ সালে লক্ষ্ণৌ থেকে শাকিলের অপরসীম অবদানের স্বীকৃতিস্বরুপ "ওল্ড সিটি" নামক একটি রাস্তাকে তার নামে নামকরণ করা হয়।[১০]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dainik Jagran। ২৮ ডিসেম্বর ২০০৭। 
  2. Details from the DNA newspaper
  3. Rashtriya Sahara। ৩১ অক্টোবর ২০০৬। 
  4. Hakim Syed Zillur Rahman (১৯৭৮)। Tazkerah Khandan Azizi (2009 revised 2nd সংস্করণ)। Aligarh/India: Ibn Sina Academy of Medieval Medicine and Sciences। পৃ: 228–229। আইএসবিএন 978-81-906070-6-3 
  5. Dainik Jagran। ১১ নভেম্বর ২০০৬। 
  6. Dainik Jagran। ২.১১.২০০৬। 
  7. Rahman, Hakim Syed Zillur (আগস্ট ১৯৭৮)। "Tahreek Azadi Main khandan Azizi Ka Hissa"। Naya Daur 35 (5): 28–32। 
  8. Highlights of 1974 elections Govt. of India
  9. Hindustan। ৮.৪.২০০৭। 
  10. Shakeel's contributions reported by Dainik Jagran newspaper