মুসলিম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, ঢাকা

স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৪′ উত্তর ৯০°২২′ পূর্ব / ২৩.৭৩৩° উত্তর ৯০.৩৬৭° পূর্ব / 23.733; 90.367
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল
ঠিকানা


স্থানাঙ্ক২৩°৪৪′ উত্তর ৯০°২২′ পূর্ব / ২৩.৭৩৩° উত্তর ৯০.৩৬৭° পূর্ব / 23.733; 90.367
তথ্য
ধরনসরকারী
নীতিবাক্যশিক্ষাই আলো
প্রতিষ্ঠাকাল১৮৭৪ (নবপর্যায়-১৯১৬)
বিদ্যালয় কোড১০৮৪৯২ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
অনুষদ
শ্রেণী৫ম থেকে ১০ম
ক্যাম্পাসনগর
রঙ     সাদা শার্ট and      নীল প্যান্ট
ডাকনামDGMHS
প্রত্যয়নমাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকা
ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল প্রাঙ্গণ ও ভবন

ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল (ঢাকা সরকারি মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়), ঢাকা বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার লক্ষীবাজার এলাকায় অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় যা ঢাকায় মুসলমানদের শিক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে এটি ১৮৭৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯১৬ সালে এটির উর্দু ও ফারসি বিভাগ বন্ধ করে স্কুলে রুপান্তর করা হয়। এটির অন্তর্ভুক্ত একটি ছাত্রাবাস রয়েছে যার নাম ডাফরিন মুসলিম হোস্টেল।

ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল একটি ঐতিহ্যবাহী স্কুল।১৪৬ বছরের ইতিহাস বহন করে চলেছে এই স্কুল। প্রতিবছর অসংখ্য ছাত্র জ্ঞান অর্জন করে পৃথিবীময় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখছেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর আজ অবধি ৪৮টি ব্যাচ কালের স্বাক্ষী। রথী মহারথী, প্রেসিডেন্ট, মন্ত্রী, এমপি, সচিব, বিজ্ঞানীসহ সর্বস্তরেই ছড়িয়ে আছে এই বিদ্যালয়ের ছাত্রবৃন্দ।

অবস্থান[সম্পাদনা]

বাহাদুরশাহ পার্ক,ঢাকা-১১০০

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মুসলিম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয় ১৮৭৪ সালে। এর প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ছিলেন খান বাহাদুর কাজী জহিরুল হক। স্কুল টি ঢাকার পুরাতন স্কুল গুলোর মধ্যে একটি। স্কুলটি ব্রিটিশ যুগে হাজী মুহাম্মদ মহসীন ফান্ড থেকে পরিচালনা করা হত পরে সরকারি করন করা হয়। ঢাকার পুরাতন লাইব্রেরিগুলোর মধ্যে এখানার লাইব্রেরি একটা যা ১৯১১ সালে প্রতিষ্ঠিত।এই স্কুলে আজও যোহরের নামাজ ও টুপি পড়ার ঐতিহ্য ধরে রাখা হয়েছে যা বাধ্যতামূলক এবং এখানে বাদ্যযন্ত্র ছাড়া প্র‍তিদিন সকালের জাতীয় সংগীত পরিচালনা করা হয়।

১৯৭৯ সালে অত্র স্কুলের প্রথম পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর যথাক্রমে ১৯৮২ সালে, ২০১২ সালে ও ২০১৭ সালে প্রাক্তন ছাত্র পুনর্মিলন উদ্‌যাপন করা হয়। এ যাবতকালের মধ্যে অনুষ্ঠেয় অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২০১৭ সালের পুনর্মিলন অনুষ্ঠানকে সবদিক বিবেচনায় সর্বশ্রেষ্ঠ বিবেচনা করা হয়। ২০১৭ সালের পুনর্মিলন উদ্‌যাপন কমিটির উদ্যোগে ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন প্রস্তুতি কমিটি গঠিত হয় এবং পুনর্মিলনের ইতিহাসে এই প্রথম অনুষ্ঠানের উদ্বৃত্ত অর্থে এলামনাই এসোসিয়েশন গঠন -এর জন্যে ৮ লক্ষাধিক টাকার বিশাল ফান্ড এফডিআর করা হয়েছে।। ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন প্রস্তুতি কমিটির উদ্যোগে প্রাক্তন ছাত্রদের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন 'ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন' গঠন ও সদস্য সংগ্রহের লক্ষ্যে পরিচালিত কার্যক্রমে ৮ শতাধিক প্রাক্তনছাত্র এলামনাই এসোসিয়েশনের সদস্যপদ গ্রহণ করে ভোটার হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন। ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন প্রস্তুতি কমিটি নির্বাচন বোর্ড গঠন করে দেয়। ১৫ জানুয়ারি ২০২১ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত বিরতিহী্নভাবে নির্বাচনে ৬৬৫ জনের ভোট প্রয়োগের মাধ্যমে ইতিহাসে এই প্রথম স্বচ্ছ, সুষ্ঠ, নিরপেক্ষ ও আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সর্বপ্রথম নির্বাচিত  “এলামনাই এসোসিয়েশন" পেলো ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল-এর প্রাক্তনছাত্রবৃন্দ। সবদিক থেকে সফল পুনর্মিলন উদ্‌যাপন কমিটির সবচেয়ে ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ  সদস্যের সমন্বয়ে গঠিত প্যানেল "ইউনাইটেড মুসলিমিয়ান" নামে নির্বাচনে কলম মার্কা প্রতীকে প্রতিদন্দ্বিতা করে সকল পদে বিপুলভাবে জয়লাভ করে।


নির্বাচিত ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন কভিড-১৯ চলাকালে কার্যক্রম পরিচালনায় বাধাগ্রস্ত হয়। এরই মধ্যে নির্বাচিত সদস্যদের শপথগ্রহণ, দুঃস্থদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ, অসহায় প্রাক্তন ছাত্রদের জন্যে জাকাত ফান্ড, ইফতার পার্টি, ভাষা দিবস উদযাপন, বার্ষিক সধারণ সভা, সফল  দুটি পিকনিক এবং আরো সফল বিবিধ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এই নবনির্বাচিত ঢাকা গভঃ মুসলিম হাই স্কুল এলামনাই এসোসিয়েশন কমিটির উদ্যোগেই অনুষ্ঠিত হবে সার্ধশত বছরপুর্তি পুনর্মিলনী উৎসব।

ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

উল্লেখযোগ্য শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

প্রধানমন্ত্রী

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]