মিনিমাতা আগম দাস গুরু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মিনিমাতা আগম দাস গুরু (১৫ মার্চ ১৯১৬ - ১৯৭৩) একজন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস পার্টির ভারতীয় এবং প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, এবং পঞ্চম লোকসভা (ভারতের সংসদের নিম্নকক্ষ) সংসদ সদস্য ছিলেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মিনিমতা ১৯১৬ সালে আসামের নওয়াগাঁও জেলায় জন্মগ্রহণ করেন।[১] তিনি নওয়াগাঁও ও রায়পুরের বালিকা বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করেন।[২]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

মিনিমাতা তৎকালীন এমপি তার স্বামী গুরু আগামদাসের মৃত্যুর পর ১৯৫৫ সালের উপনির্বাচনে বিজয় লাভ করার মাধ্যমে লোকসভার সদস্য হিসেবে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হন।কংগ্রেস দলের মনোনয়ন নিয়ে তিনি একই আসন পুনরায় জিতেছিলেন। ১৯৬২ সালে, তিনি মধ্যপ্রদেশের বালোদা বাজারে একটি নির্ধারিত জাতের সংরক্ষিত আসনে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তিনি ভোটের ৪২% এর বেশি ভোট পেয়ে প্রজা সমাজতান্ত্রিক দলের প্রার্থীকে পরাজিত করেছিলেন।[৩] ১৯৬৭ সালে, তিনি জানজগিরে জন্য নির্ধারিত জাতের সংরক্ষিত আসনে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন, তখন সেটি মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের অর্ন্তভুক্ত ছিল, এবং ৬২% ভোট পেয়ে বিজয়ী হন।[৪] ১৯৭১ সালে তিনি আবারও ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস পার্টির পক্ষে সেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন এবং পুনরায় নির্বাচনে জয়ী হন।[৫] ১৯৭৩ সালে তাঁর সংসদীয় মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই তিনি মারা যান, যার ফলস্বরূপ সেখানে একটি উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

সংসদীয় কাজের পাশাপাশি তিনি রাজ্য কংগ্রেস কমিটির সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন; গুরু ঘাসিদাস সেবা সংঘের সভাপতি; হরিজন শিক্ষা সোসাইটির সভাপতি; স্টেট ডিপ্রেসড ক্লাস লীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট; মহিলা মণ্ডল, রায়পুরের সচিবে দায়িত্ব পালন করেন।[২] তিনি সমাজকল্যাণ বোর্ড, রায়পুর ও রায়পুর জেলা কংগ্রেস কমিটির সদস্য ছিলেন।[২] মনিমাতা সত্তমী রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল, এটি ছিল আম্বেদকরিত দলিত আত্মনির্ভরতার একটি রূপ।[৬] তার স্বামী মৃত্যুর পর, তিনি উক্ত সম্প্রদায়ের নেতৃত্ব গ্রহণ করেন।[৬] তিনি বর্ণবাদ ও অস্পৃশ্যতা, পাশাপাশি বাল্যবিবাহ ও যৌতুকের বিরুদ্ধে সৌচ্চার ছিলেন।[১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ২ আগস্ট, ১৯৩০ সালে শ্রী আগম দাস গুরুর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।[২] তার সংসদীয় জীবনবৃত্তান্তে তার শখ হিসেবে সেলাইয, সূচিকর্ম, রান্না ও বাগান এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে বিতর্ক এবং আলোচনা বিষয়গুলো তালিকাভুক্ত করা আছে।[২] রায়পুর থেকে দিল্লির একটি ফ্লাইটে বিমান দুর্ঘটনায় মিনিমতা মারা যান; প্লাম বিমানবন্দরে অবতরণের চেষ্টার সময় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kshīrasāgara, Rāmacandra (১৯৯৪)। Dalit movement in India and its leaders, 1857-1956https://books.google.co.in/books/about/Dalit_movement_in_India_and_its_leaders.html?id=5WxuAAAAMAAJ: M.D. Publications। পৃষ্ঠা 270–271। 
  2. "Lok Sabha member profiles"Lok Sabha। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৭ 
  3. Statistical Report on General Elections, 1962, to the Third Lok Sabhahttp://eci.nic.in/eci_main/StatisticalReports/LS_1962/Vol_I_LS_62.pdf: Election Commission of India। পৃষ্ঠা 109। 
  4. Statistical Report on General Elections, 1967, to the Fourth Lok Sabhahttp://eci.nic.in/eci_main/StatisticalReports/LS_1967/Vol_I_LS_67.pdf: Election Commission of India। পৃষ্ঠা 131। 
  5. Statistical Report on General Elections, 1971 to the Fifth Lok Sabhahttp://eci.nic.in/eci_main/StatisticalReports/LS_1971/Vol_I_LS71.pdf: Election Commission of India। পৃষ্ঠা 142। 
  6. Singh, Yasna (২০১৩)। Satnami Self-Assertion and Dalit Activism: everyday life and caste in rural Chhattisgarh (central India) (PhD Dissertation)http://etheses.lse.ac.uk/689/1/Singh_Satnami_self-assertion.pdf: London School of Economics and Political Science e-theses। 
  7. Sen, Ilina (২০১৪)। Inside Chhattisgarh: A Political Memoir। Penguin।