মাধবপ্রসাদ ঘিমিরে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জাতীয় কবি (রাষ্ট্রকবি)

মাধবপ্রসাদ ঘিমিরে
Madhav Pd Ghimire.JPG
স্থানীয় নাম
माधवप्रसाद घिमिरे
জন্ম(১৯১৯-০৯-২৩)২৩ সেপ্টেম্বর ১৯১৯[১]
পুস্তুন, লমজুঙ, নেপাল
মৃত্যু১৮ আগস্ট ২০২০(2020-08-18) (বয়স ১০০)
কাঠমান্ডু, নেপাল
পেশাকবি, সাহিত্যিক, গীতিকার ও শিক্ষাবিদ
জাতীয়তানেপালি

মাধবপ্রসাদ ঘিমিরে (নেপালি: माधवप्रसाद घिमिरे; ২৩ সেপ্টেম্বর ১৯১৯ – ১৮ আগস্ট ২০২০) একজন নেপালি কবি, সাহিত্যিক, গীতিকার ও শিক্ষাবিদ। গৌরী, মালতিমঙ্গল, নবমঞ্জরী (বি.স ১৯৯৪), ঘামপানী (বি.স ২০১০), নয়াঁ নেপাল (বি.স ২০১৩), কিন্নর-কিন্নরী (বি.স ২০১৩) ইত্যাদি সাহিত্যকর্মের জন্য তিনি বিখ্যাত। নেপালি সাহিত্যে অসামান্য অবদানের জন্য ২০০৩ সালে নেপাল সরকার তাকে জাতীয় কবি (নেপালি: राष्ट्रकवि, প্রতিবর্ণী. রাষ্ট্রকবি) হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।[২][৩]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মাধবপ্রসাদ ১৯১৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর নেপালের লমজুঙ জেলার পুস্তুন নামক গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র তিন বছর বয়সেই তিনি তার মাকে হারান। ৬ বছর বয়সে তিনি পড়তে শেখেন এবং আট বা নয় বছর বয়সে ফুলেবাবা নামক এক ব্যক্তির কাছ থেকে তিনি পঞ্চাঙ্গম শেখেন। ১১ বছর বয়সে তিনি সংস্কৃত ভাষা শিখতে দুরাডাঁডা গ্রামে যান। পরবর্তীতে তিনি কাঠমান্ডু গিয়ে সংস্কৃত প্রধান পাঠশালাতিনধারা সংস্কৃত পাঠশালায় লেখাপড়া করেন। এরপর তিনি ভারতের বেনারসে গমন করেন এবং সেখানেই উচ্চশিক্ষা লাভ করেন।[৪][৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মাত্র ১৪ বছর বয়সেই ঘিমিরের লেখা জ্ঞানপুষ্প গোর্খাপত্র পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। বেনারস থেকে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করে ১৯৪১ সালে তিনি ভাষানুবাদ পরিষদে মাসিক ২৫ রূপি বেতনে লেখক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৪৪ সালে তিনি গোর্খাপত্রের সহ-সম্পাদক নিযুক্ত হন।[৬] এরপর, ১৯৫১ সালে তিনি গ্রামে ফিরে এসে শিক্ষকতা শুরু করেন। ১৯৫৩ সালে তিনি লক্ষ্মীপ্রসাদ দেবকোটা নেতৃত্বাধীন কাব্য প্রতিষ্ঠানের সদস্য হন।[৫]

১৯৭৯ সালে তিনি নেপাল রাজকীয় প্রজ্ঞা প্রতিষ্ঠান (নেপাল রয়েল অ্যাকাডেমি)-এর উপাচার্যের দায়িত্ব পান। ১৯৮৮ সালে তাকে আচার্য হিসেবে পদোন্নতি দেওয়া হয় এবং ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন।[৭]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০২০ সালের ১৮ আগস্ট (বিক্রম সংবৎ:২ ভাদ্র ২০৭৭) ঘিমিরে শ্বাসকষ্টজনিত কারণে কাঠমান্ডুর নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন।[৮][৯]

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

ঘিমিরে ২০০৩ সালে নেপালের জাতীয় কবির স্বীকৃতি পান। এছাড়াও তিনি ছিলেন নেপালি সেনাবাহিনীর সম্মানসূচক কর্নেল। তার অন্যান্য অর্জনের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল:[৭][১০]

  • ডিস্টিংগুইশড একাডেমি পদক
  • শ্রী প্রসিদ্ধ প্রবাল গোর্খা দক্ষিণাবাহু
  • ভানুভক্ত পুরস্কার
  • ত্রিভূবন প্রজ্ঞা পুরস্কার
  • পদ্মশ্রী সাধনা সম্মান পুরস্কার
  • সাঝা পুরস্কার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "राष्ट्रकवि माधव घिमिरेको निधन"हिमालयन कङ्गारू (नेपाली ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. निरन्तर, न्युज ::। "अस्ताए राष्ट्रकवि माधव घिमिरे"निरन्तर न्युज। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ 
  3. "राष्ट्रकवि माधव घिमिरे रहेनन्"कायाकैरन (নেপালি ভাষায়)। ২০২০-০৮-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ 
  4. "Madhav Ghimire -- Nepali poet"The South Asian Literary Recordings Project (Library of Congress New Delhi Office)। ২১ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-২০ 
  5. रौनियार, रुबी। "Nagarik News - महाविद्यावारिधि मुस्कान" (ইংরেজি ভাষায়)। ২১ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১০-২০ 
  6. "Madhav Ghimire -- Nepali poet: The South Asian Literary Recordings Project (Library of Congress New Delhi Office)"www.loc.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ 
  7. "Madhav Ghimire -- Nepali poet: The South Asian Literary Recordings Project (Library of Congress New Delhi Office)"www.loc.gov। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ 
  8. "Rastrakavi Madhav Prasad Ghimire Passes Away"The Rising Nepal। সংগ্রহের তারিখ ১৮ আগস্ট ২০২০ 
  9. "Nepal's National Poet Madhav Prasad Ghimire passes away at 102"in.news.yahoo.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৮ 
  10. "Rastra Kavi Madhav Prasad Ghimire no more"kathmandupost.com (English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৮-১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]