মন্থন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মন্থন
মন্থন (চলচ্চিত্র).jpg
পরিচালকশ্যাম বেনেগাল
প্রযোজকগুজরাট কো-অপারেটিভ মিল্ক মার্কেটিং ফেডারেশন লিমিটেড
রচয়িতাকাইফি আজমী (সংলাপ)
চিত্রনাট্যকারবিজয় টেন্ডুলকার
কাহিনীকারবেরঘেসে কুরিয়েন এবং শ্যাম বেনেগাল
শ্রেষ্ঠাংশেস্মিতা পাতিল
গিরিশ কারনাড
নাসিরুদ্দীন শাহ
অমরেশ পুরী
সুরকারবনরাজ ভাটিয়া
চিত্রগ্রাহকগোবিন্দ নিহালানী
সম্পাদকভানুদাস দিবাকর
মুক্তি
  • ১৯৭৬ (1976) (ভারত)
দৈর্ঘ্য১৩৪ মিনিট
দেশভারত
ভাষাহিন্দি

মন্থন' ১৯৭৬ সালে প্রকাশিত একটি হিন্দি চলচ্চিত্র। এটির পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। মিল্ক কো-অপারেটিভের প্রতিষ্ঠাতা ডঃ ভির্গেশ কুরিয়েন এর দুগ্ধ সমবায় প্রতিষ্ঠার মুভমেন্টই সিনেমাটির মূল বিষয়বস্তু। চলচ্চিত্রের কাহিনি লিখেছিলেন ডঃ কুরিয়েন এবং বিজয় তেন্ডু্লকর, যৌথভাবে। ১৯৭০ সালে অপরেশন ফ্লাড নামে যে প্রজেক্টটি ন্যাশনাল ডেয়ারি ডেভেলপমেন্ট বোর্ড চালু করে, তাঁর ফলে প্রচুর দুগ্ধ উৎপাদক কৃষক গো-পালনকারি দরিদ্র ভারতীয় আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হন। এই সাফল্যের নাম দেওয়া হয় 'শ্বেত বিপ্লব'। মূলত এই প্রেক্ষাপটেই ছায়াছবিটি তৈরি। এটি ভারতের প্রথম গণ-অর্থায়নের চলচ্চিত্র, যেটা তৈরির জন্য প্রায় পাঁচ লক্ষ কৃষক প্রত্যেকে দুই টাকা করে অর্থসাহায্য করেছিলেন।

ছায়াছবিটি পরের বছর ১৯৭৭ সালে জাতীয় পুরস্কারের মনোনয়নে, হিন্দি ভাষায় সেরা চলচ্চিত্র, সেরা চিত্রনাট্য ও সেরা নেপথ্য গায়িকা বিভাগে প্রথম হিসেবে ঘোষিত হয়।

ছবির শিরোনাম গান (মেরা গাম কাথাপারে) গেয়েছিলেন প্রীতি সাগর। এই গানটাই পরে আমূল এর বিজ্ঞাপনে ব্যবহার করা হত।[১][২]

অভিনয়[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "গণ-অর্থায়নে সিনেমা নির্মাণের উদ্যোগ || আনন্দকণ্ঠ"জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৬ 
  2. "গণ-অর্থায়নে প্রথম ছবি ভারতের | কালের কণ্ঠ"কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-০৬