মনাঙ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মনাঙ
मनाङ
Manangbhot
মনাঙ। পটভূমিতে অন্নপূর্ণা ৩ (৭,৫৫৫ মিটার) এবং গঙ্গাপূর্ণা (৭,৪৫৫ মিটার) পর্বত দৃশ্যমান।
মনাঙ। পটভূমিতে অন্নপূর্ণা ৩ (৭,৫৫৫ মিটার) এবং গঙ্গাপূর্ণা (৭,৪৫৫ মিটার) পর্বত দৃশ্যমান।
মনাঙ নেপাল-এ অবস্থিত
মনাঙ
মনাঙ
নেপালে অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৮°৪০′০″ উত্তর ৮৪°১′০″ পূর্ব / ২৮.৬৬৬৬৭° উত্তর ৮৪.০১৬৬৭° পূর্ব / 28.66667; 84.01667স্থানাঙ্ক: ২৮°৪০′০″ উত্তর ৮৪°১′০″ পূর্ব / ২৮.৬৬৬৬৭° উত্তর ৮৪.০১৬৬৭° পূর্ব / 28.66667; 84.01667
রাষ্ট্রনেপাল
প্রসা. বিভাগগণ্ডকী অঞ্চল
জেলামনাঙ জেলা
উচ্চতা৩,৫১৯ মিটার (১১,৫৪৫ ফুট)
জনসংখ্যা (২০০১)
 • মোট১,২৯৯
সময় অঞ্চলনেপাল সময় (ইউটিসি+০৫:৪৫)

মনাঙ নেপালের মনাঙ জেলার একটি শহর। মনাঙ শহরটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৩,৫১৯ মিটার (১১,৫৪৫ ফিট) উচ্চতায় অবস্থিত।[১] নেপালের ২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে মনাঙ শহরের জনসংখ্যা ৬,৫২৭। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৩ জন।[২]

অন্নপূর্ণা পর্বতশৃঙ্গের উত্তরে মারসিয়াংদি নদীর তীরবর্তী উপত্যকায় মনাঙ শহরের অবস্থান। মারসিয়াংদি নদীটি পূর্বদিকে প্রবাহিত হয়েছে। পূর্বে রয়েছে থরং লা পাস। ৫,৪১৬ মিটার উচ্চতায় অবস্থিত থরং লা পাস মানুষের গমনযোগ্য পৃথিবীর উচ্চতম পথ। এই পথ দিয়ে মনাঙ থেকে মুক্তিনাথ হয়ে গান্ডাকি নদী তীরের উপত্যকায় যাওয়া যায়। মনাঙ এর উত্তরে রয়েছে চুলু পর্বত, যার উচ্চতা ৬,৫৮৪ মিটার (২১,৬০১ ফিট)। অন্নপূর্ণায় ট্রেকিং-এ আসা অভিযাত্রীরা সাধারণত মনাঙ-এ কয়েকদিন বিশ্রাম নেয়। এর অন্যতম কারণ মনাঙ-এ থেকে আবহাওয়াগত অভিযোজন সম্পন্ন করা। থরং লা পাস দিয়ে যাওয়ার পূর্বে মনাঙ এ দুই-একদিন বিশ্রাম অধিক উচ্চতায় গমনের জন্য শরীরের অভিযোজনে সাহায্য করে। মনাঙ শহরটি পর্বতের উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত, ফলে দিনের বেলায় অধিক সূর্যালোক এই অংশে পড়ে এবং শীতকালে অপেক্ষাকৃত কম তুষারপাত হয়। এছাড়া মনাঙ-এর চাষযোগ্য জমিগুলোও পর্বতের উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত।

মনাঙ-এ কোন রাস্তা নেই। তবে ট্রেইল রয়েছে। ট্রেইল দিয়েই এই শহরের মানুষ যাতায়াত করে। পণ্য পরিবহনের মাধ্যম গাধা বা খচ্চর। এছাড়া কুলিরাও পণ্য পরিবহন করে থাকে। মনাঙ-এর ২.৫ কিলোমিটার পূর্বে রয়েছে একটি ছোট বিমানবন্দর। এই বিমানবন্দরটির কাজ ১৯৮৫ সালে শুরু হয়। মনাঙ-এর সাথে অন্নপূর্ণা সংরক্ষিত অঞ্চলের সংযোগকারী প্রথম ট্রেইলের কাজ সম্পন্ন হয় ২০১১ সালে।

ট্রেকারদের জন্য খাদ্য উৎপাদন ছাড়াও মনাঙ-এ চমর পালন করা হয়ে থাকে। মনাঙ-এ একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্র রয়েছে, এখানে উচ্চতাজনিত অসুস্থতার চিকিৎসাব্যবস্থা রয়েছে।

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Manangbhot, Nepal Page - Falling Rain Genomics (ইংরেজি ভাষায়)
  2. (ইংরেজি ভাষায়), নেপাল জনগণনা ব্যুরো http://dl.dropbox.com/u/37323160/Archive%20Data/Preliminary%20Result%202011/Premilinary%20Result%202011%20%28Summary%20Sheet%29.xls, সংগ্রহের তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১২  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]