মঈদুল হাসান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মঈদুল হাসান একজন বাংলাদেশী লেখক এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক।

জন্ম এবং ছেলেবেলা[সম্পাদনা]

মঈদুল হাসান ১৯৩৬ সালের ২৯ জুলাই, বাংলা ১৪ শ্রাবণ, ১৩৪৩ সালে বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। সেখানেই শৈশব কাটে তাঁর।

পড়াশোনা এবং কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মঈদুল হাসান পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাঁর ভর্তির সাল ছিল ১৯৫৬। ১৯৬০ সালের দিকে শেষ বর্ষের ছাত্র অবস্থায় তিনি সে সময়ের বহু প্রচারিত দৈনিক ইত্তেফাক-এ সম্পাদকীয় লেখা শুরু করেন। এতে করে তিনি পূর্ব বাংলার অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক গতিধারা পর্যবেক্ষণ করেন গভীরভাবে।[১]

মুক্তিযুদ্ধে অবদান[সম্পাদনা]

সাংবাদিকতা ছেড়ে দিয়ে মঈদুল হাসান একসময় সম্পাদকীয় লেখা একরকম বন্ধ করে দেন। ছয় বছর পর তিনি ১৯৭১ সালে প্রবাসী মুজিবনগর সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পালন করেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। মুজিবনগর সরকারের পক্ষে ভারতের উচ্চপর্যায়ের নীতিনির্ধারক সঙ্গে আলাপ-আলোচনা ছিল তাঁর অন্যতম দায়িত্ব। উপধারা একাত্তর: মার্চ-এপ্রিল থেকে কিছু কথা উদ্ধৃত করা হলোঃ

"[অধ্যাপক] ড্যানিয়েল থর্নার আমাকে বলেন, [ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সচিব] পি এন হাকসার পরদিন বেলা ১১টায় আমাদের ‘কফি খেতে ডেকেছেন’। আমি ধরে নিই, প্রকৃত আলোচনার সময় ততটা লম্বা না-ও হতে পারে। কাজেই আগের কয়েকটা দিন যেসব তথ্য ও সমীক্ষা সংগৃহীত হয়েছে, সেগুলো বিবেচনায় রেখে তাজউদ্দীন যে কিছু জানতে চেয়েছিলেন, তার উপস্থাপন ফলপ্রসূ করার জন্য আমি গুছিয়ে নোট করে নিই।" [২]

প্রকাশিত বই[সম্পাদনা]

মঈদুল হাসানের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বহুউল্লেখিত বই হচ্ছে মূলধারা '৭১। এছাড়াও তাঁর আরও অনেক বই আছে। তাঁর উল্লেখযোগ্য কিছু বইঃ[৩]

  • মুক্তিযুদ্ধে কসবা
  • উপধারা একাত্তর মার্চ-এপ্রিল
  • মুক্তিযুদ্ধের পূর্বাপর (এ কে খন্দকার এবং এস আর মীর্জাকে সাথে নিয়ে লেখা)
  • মূলধারা '৭১
  • শব্দের পদ্মফুল[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ডেস্ক, স্বপ্ন ’৭১ অনলাইন। "মূলধারা '৭১ গ্রন্থের লেখক মঈদুল হাসান"swapno71.com। ২০১৮-০৭-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৪ 
  2. "মঈদুল হাসান - বিষয় - প্রথম আলো"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৪ 
  3. "মঈদুল হাসান"www.goodreads.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৪ 
  4. "শব্দের পদ্মফুল - মঈদুল হাসান"www.rokomari.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৯-১৪