ভ্যাটিকান সিটির রেল পরিবহন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ভ্যাটিকান সিটির রেল পরিবহন ব্যবস্থা ভ্যাটিকান সিটির মধ্যে দুই সেট ৩০০ মিটার রেলপথ এবং দুইটি মালগাড়ীর সাইডিং( sidings ) এর সমন্বয়ে গঠিত ( নাম ভ্যাটিকান রেলওয়ে, Ferrovia Vaticana),এটি এক স্টেশন বিশিষ্ট বিশ্বের সবচেয়ে স্বল্প দূরত্বের রেলপথ ব্যবস্থা । [১]  ল্যাটারান চুক্তির মাধ্যমে এটি ইটালীয় রেলপথে প্রবেশানুমতি পায় এবং পোপ পায়াস একাদশ এর রাজত্ব কালে স্টেশন ও রেলপথ নির্মিত হয়।  একমাত্র স্টেশনটি ভ্যাটিকান সিটি হিসেবে অভিহিত। (অফিসিয়ালি: Città del Vaticano [tʃitˈta del vatiˈkaːno], এবং  Stazione Vaticana [statˈtsjoːne vatiˈkaːna]).

বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই এই রেলপথ মালামাল আমদানির ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়, যদিও এই রেলপথ মাঝে মাঝে যাত্রীও পরিবহন করেছে, যেটি সাধারণত আনুষ্ঠানিক বা প্রতীকী ।[২][৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

পোপ গ্রেগরি ষোড়শ (মৃত্যু ১৮৪৬) পোপদের রাজ্যে রেলপথ নির্মাণ প্রতিরোধ করেন। তার সুখ্যাতি ছিল  "chemin de fer, chemin d'enfer" (" লোহার রাস্তা, জাহান্নামের পথ ").[৪]  বলার জন্যে। গ্রেগরি ষোড়শ এর উত্তরাধিকারী , পোপ পায়াস নবম,আংকোনা তিরানা থেকে একটি রেলপথ নির্মাণ শুরু করেন, কিন্তু এটা সম্পন্ন করার আগে এ অঞ্চল ১৮৬১ সালে রিসরজিমেন্টও এর সৈন্যবাহিনী দ্বারা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। [৫] ১৯ শতকের তীর্থ যাত্রীদল রেলের উপকারিতা বুঝতে পারে,১৮৫৮ দিকে রোমান কিউরিয়ারদের ভেতর এই প্রযুক্তির প্রতি বিদ্বেষী ভাবের প্রতি  কোমলতা আসে যেটি আসলে শুরু হয়েছিল ১৮৫৮ দিকে।[৬]

১১ই ফেব্রুয়ারি ১৯২৯ সালে ল্যাটারন চুক্তির মাধ্যমে ভ্যাটিকান সিটিতে রেলস্টেশন  নির্মাণ এবং এটির ইতালীয় রেলপথের সাথে সংযুক্তি নিশ্চিত করা হয়। ইতালি রাজ্যের গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের নতুন রেলপথ নির্মাণ অধিদপ্তর সমুদ্রতল থেকে ৩৮ মিটার উপরে পায়াজা সান্তা মার্তা এবং রাজবাড়ীর মধ্যে বাঁধ নির্মাণ করে। [৭] ইতালীয় সরকার এর  ₤ ৭৫০ মিলিয়ন ল্যাটারন চুক্তি থেকে ।[৮] রেলপথ নির্মাণে মোট  ₤ 24 মিলিয়ন খরচ করা হয়েছিল। [৯]

স্টেশন ভবন ( নীচে দেখুন ) ১৯২৯ এবং ১৯৩৩ সালের মধ্যে নির্মিত হয়েছে।

প্রথম লোকোমোটিভ মার্চ ১৯৩২সালে ভ্যাটিকান প্রবেশ করে। স্টেশনটি অক্টোবর ২, ১৯৩৪ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে খোলা হয়।[১০] সেপ্টেম্বর ১২ , ১৯৩৪ সালে  ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটির মধ্যে একটি রেল কনভেনশন অনুমোদন করা হয়,এই দিনেই Ferrovie dello Stato (ইতালীয় রেলওয়ে) এর সম্পত্তি পোপের কর্তৃত্ব দেওয়া হয় । [৭] 

অক্টোবর ১৯৩৪ সালে গণপূর্ত মন্ত্রণালয় যথাক্রমে ভ্যাটিকান সিটি ও ইতালীয় রাজ্য রেলওয়ে কে সম্পূর্ণ সমাপ্ত রেলপথ হস্তান্তর করে।.[৭] অধিকার সূত্রের উপর আইন (জুন ৭,১৯২৯)ইতালীয় রেলওয়েকে  ভ্যাটিকান নিয়ন্ত্রিত রেলপথে পরিণত করে। [৭]

১৯৪৪ সালে মার্চের শেষের দিকে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় যখন রোম সমন্বিত বোমাবর্ষণ করছিল, ভ্যাটিকান একটি জার্মান যুদ্ধোপকরণে সজ্জিত ট্রেন ভ্যাটিকান রেলওয়ে স্টেশন লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় আবিস্কার করে।

[১১]

ভ্যাটিকান সিটি রেলওয়ে ষ্টেশন[সম্পাদনা]

ভ্যাটিকান সিটি রেলওয়ে স্টেশন ( ইতালি ভাষায় Stazione Città del Vaticano অথবা Stazione Vaticana) হল ভ্যাটিকান রেলপথের একমাত্র স্টেশন। এটি প্রধানফটক থেকে প্রায় ২০ মিটার দূরে নির্মিত যার স্থপতি জুসেপ্পে মম।[৭] এপ্রিল ৩ ,১৯২৯ সালে নির্মাণ শুরু হয় এবং স্টেশন ১৯৩৩ সালে কাজ শুরু করে।[৭] লেখক এইচ ভি মর্টন এর ইতালীয় সাদা মার্বেল ডিজাইনকে লন্ডনের  এর বার্কলে ব্যাংকএর শাখা হিসেবে বর্ণনা করেন।  স্টেশন   ভবনটি ৬১ x ২১.৫ মিটার আয়তনের সাদা মার্বেল পাথর দিয়ে নির্মিত। এটি মাঝের দিকে ১৬.৮৫ মিটার লম্বা এবং আড়াআড়ি ভাবে ৫.৯৫ মিটার।[১২] স্টেশন ভবনের একটি অংশ  যাত্রী স্টেশন এবং মালামালের অফিস হিসেবে ব্যবহার করা হয়। অন্য অংশে রেলওয়ে স্টেশনের ছোট ভ্যাটিকান শুল্কমুক্ত ডিপার্টমেন্ট স্টোর,  শুধুমাত্র ভ্যাটিকানের বিষয় ও কূটনীতিকদের জন্য উন্মুক্ত একটি ব্যক্তিগত সুবিধা ঘরও আছে।[১৩]

গমন পথ[সম্পাদনা]

রোমা সান পিয়েরটো রেলস্টেশনের রোম রোমা রেল লাইন থেকে ভ্যাটিকান সিটি স্টেট রেলওয়ে পর্যন্ত শাখা বিস্তৃত, এটি ১৪৩.১২ মিটার দীর্ঘ রাজমিস্ত্রির তৈরি আটটি ১৫.৩০ মিটার তোরণ যা ভিয়ালে ভ্যাটিকানো এবং ভিয়া অউরেলিয়া দিয়ে অতিক্রম করে। ভায়া দেল্লে গুহা এবং ভায়া দেল্লে গেলসমিনো ও এই তোরণের মাঝে পরে আর এটি এইভাবে অরেলিয়ার সঙ্গে একত্রিত হয় .[৭]

ভ্যাটিকান সিটি রেল স্টেশন এবং ভ্যাটিকান সিটির দেয়াল পাড় হওয়ার আগে এই রেলপথ একটি  তোরনের নিচে দিয়ে যায় যেখানে  পোপ পায়াস একাদশ কোট অফ আর্ম  এর সজ্জিত দুই খণ্ড ৩৫.৫ টন লোহার স্লাইডিং গেইট আছে এটি ভ্যাটিকানের দেয়ালের সাথে সংযুক্ত। যখন এই পথে কোন যান চলাচল থাকে না তখন এটি বন্ধ থাকে।[১][৭][১৪] 

এই রেলপথের দুইটি রাস্তা আছে ( মূল ফটকের বাইরে রোমে), এর মধ্যে শুধু একটি স্টেশনের প্লাটফর্মের সাথে যুক্ত। ভবনের উত্তর-পূর্ব দিকে ভিনদেশি ওয়াগনের জন্যে দুইটি রাস্তা আছে।এগুলো মূল রাস্তার সাথে যুক্ত যেটি হেডশান্ট গুহার দিকে গিয়েছে।

 স্টেশনটি সেন্ট পিটার্সের গির্জার পেছনে , ভ্যাটিকান বাগানের কাছাকাছি অবস্থিত। গেটওয়ে যা রেলপথকে ইতালিও রাজ্যের দিকে বিভক্ত করেছে তা লিওনিন দেয়ালের একটি অংশ।স্টেশনের কাছে অন্যান্য ভবন হল গভার্নেটের প্রাসাদ ও সেন্ট মার্থাার ঘর।

ব্যবহার [সম্পাদনা]

ভ্যাটিকান রেলওয়ে প্রাথমিকভাবে ( মোটরগাড়িতে ভ্রমন বেশি প্রচলিত ও কম ব্যয়বহুল হয়ে ওঠার আগে ) ভ্যাটিকানের মধ্যে পণ্য আমদানি করার জন্য এবং  সাধারণ যাত্রী ট্রেন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে [১৫]

পায়াস একাদশের পরিকল্পিত "পোপদের ট্রেন" নির্মাণ কখনো হয়নি এবং ভ্যাটিকান কখনো রেলপথের জন্যে শ্রমিক নেয়নি।[৭] পোপ পায়াস একাদশ এর আনুষ্ঠানিক ট্রেনটি রোমের জাদুঘরে প্রদর্শিত আছে।[৫]

দ্বিতীয় ভ্যাটিকান কাউন্সিল শুরু হওয়ার এক সপ্তাহ আগে পোপ জন তেইশ , প্রথম পোপ হিসেবে অক্টোবর ৪, ১৯৬২ তে লরেটো  এবং আসসিসিতে তীর্থযাত্রার সময় ইতালীয় রাষ্ট্রপতির ট্রেনে ভ্যাটিকান রেলওয়ে ব্যবহার করেন। এই ভ্রমনটি ইউরোভিসন নেটওয়ার্ক সম্প্রচার করে। পোপ পায়াস নবম একই সাথে শেষ পোপ যিনি লরেটো ভ্রমন করেন এবং শেষ পোপ যিনি ট্রেনে ভ্রমন করেন।[৫] পোপ জন ২৩,  পোপ পায়াস দশম এর দেহাবশেষ ভ্যাটিকান রেলওয়ে ব্যবহার করে ভেনিস স্থানান্তরিত করেন।

ভ্যাটিকান সিটি স্টেশনে নিয়মিত যাত্রী ট্রেনএর কোনো শিডিউল নেই। 

২১ শতকে[সম্পাদনা]

পোপ জন পল দ্বিতীয় ৮ নভেম্বর ১৯৭৯সালে এই রেলপথ কয়েকবার সিম্বোলিক কারণে ব্যবহার করেছিলেন, কিন্তু ২৪ জানুয়ারি ২০০২ এর আগে রোম ত্যাগ করার জন্যে রেলপথ ব্যবহার করেননি ।[৭]

শনিবার 21 মে 2011 তারিখে একটি বিশেষ ট্রেন কারিতাস এর 60th বার্ষিকী স্মরণে ভ্যাটিকান সিটি স্টেশন থেকে ছাড়ে। [১৬][১৭]

পোপ বেনেডিক্ট ষোড়শ ও এই পথ ব্যবহার করেছিলেন XVI ( যেমন এসিসসিতে একটি তীর্থযাত্রা জন্য অক্টোবর ২৭ ২০১১ তে।).[১৮]

পোপ ফ্রান্সিসের ইচ্ছায় ভ্যাটিকান জাদুঘর এবং ইতালীয় রেলওয়ে ভ্যাটিকান সিটি স্টেশন থেকে জনসাধারণের জন্যে সাপ্তাহিক বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করে। সেপ্টেম্বর ১২ , ২০১৫ থেকে শুরু করে, প্রতি শনিবার ভ্যাটিকান জাদুঘরের দর্শকেরা ট্রেনে উঠতে করতে পারেন এবং গন্ডফো প্রাসাদের চমৎকার বাগানবাড়ী ভ্রমন করতে পারেন।[১৯] এই যাত্রীরা সদ্য প্রস্তুত করা জাদুঘর চমৎকার,বাগান ও শহর ঘুরতে পারে। এই ভ্রমণ সন্ধায় রোমা সান পিয়েরতো স্টেশনেই শেষ হয়।[২০]

১১ই সেপ্টেম্বর ২০১৫ তে আমন্ত্রিত অতিথি এবং সাংবাদিকদের জন্যে একটি বিশেষ ট্রেন এই যাত্রার উদ্বোধন করে ।উদ্বোধনী ট্রেনটি ১৯১৫ সালে নির্মিত এফএস ৬২৫ বাষ্পীয় লোকমটিভ দ্বারা চালানো হয়।এই ইঞ্জিনটিই ইতালীয় রাজ পরিবার ব্যবহার করতেন এবং  ১৯৬২ সালে লরেটো এবং আসসিসিতে পোপ জন ২৩ কে পরিবহনে করে। । নির্ধারিত ট্রেন কমিউটার রেল ব্যবহার করে ভ্যাটিকান সিটি রেল স্টেশন থেকে গ্যান্ডলফো প্রাসাদ হয়ে অ্যালবানো লাজিয়ালেট ভ্রমণ করে।[২০]

গ্যালারী [সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

রেফারেন্স[সম্পাদনা]

  1. Korn, Frank J. 2000.
  2. Walsh, Michael J. 2005.
  3. Garwood, Duncan. 2006.
  4. Pollard, John. 2005.
  5. Prusak, Bernard P. 2004.
  6. Alberigo, Giuseppe, and Komonchak, Joseph A. 2003.
  7. Holy See Press Office. 28 January 2001.
  8. Reese, Thomas J. 1996.
  9. Anon. 1934.
  10. Infos about the station on www.vatican.va (Italian)
  11. Chadwick, Owen. 1988.
  12. (Italian) Infos about the building on www.vatican.va
  13. Vatican Tax-Free Department Store Busy This Season
  14. (Italian) Infos about the gateway on www.vatican.va
  15. (Italian) Infos about the traffic on www.vatican.va
  16. Kennedy, Duncan.
  17. Lewis, Joan.
  18. The Vatican Railway Station: off to Assisi ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৪ এপ্রিল ২০১২ তারিখে, Vatican Radio, 2011-11-26
  19. "Little engine that could: Pope coaxes Vatican to open railway to villa".
  20. "Train ride from the Vatican to Castel Gandolfo" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে.