ব্রাইট সাইড (ইউটিউব চ্যানেল)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ব্রাইট সাইড
ওয়েবসাইটbrightside.me
ইউটিউব তথ্য
চ্যানেল
কার্যকাল২০১৭–বর্তমান
ধারা
সদস্য৩৬ মিলিয়ন
মোট ভিউ৬.৮ বিলিয়ন
YouTube Silver Play Button 2.svg ১,০০,০০০ সদস্য
YouTube Gold Play Button 2.svg ১০,০০,০০০ সদস্য
YouTube Diamond Play Button.svg ১,০০,০০,০০০ সদস্য
১৭ আগস্ট ২০২০ পর্যন্ত সদস্য এবং মোট ভিউ সংখ্যা হালনাগাদকৃত

ব্রাইট সাইড হলো সাইপ্রাসভিত্তিক মিডিয়া প্রকাশক দ্যসৌল পাবলিশিং কর্তৃক পরিচালিত একটি ইউটিউব চ্যানেল। চ্যানেলটি কীভাবে (হাউ-টু) জাতীয় তুচ্ছ বিষয় থেকে ইতিহাস এবং জ্ঞানসংক্রান্ত বিষয়ে ভিডিও প্রচার করে থাকে। সেপ্টেম্বর ২০২০-এর হিসাব অনুযায়ী, ৩৬ মিলিয়ন সাবস্ক্রাইবার এবং ৬.৮ বিলিয়ন ভিডিও দর্শনসহ ইউটিউবের সর্বাধিক সাবস্ক্রাবকৃত চ্যানেলের তালিকায় ব্রাইট সাইডের অবস্থান ৪৪তম।[১][২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের ১৫ মার্চ ইউটিউবে ইতিহাস, জ্ঞান এবং কীভাবে (হাউ-টু) জাতীয় ভিডিও প্রচারের জন্য ব্রাইট সাইড নামে চ্যানেল তৈরি করা হয়। এছাড়া চ্যানেলটি বাস্তবতা ও ধাঁধাঁ সংক্রান্ত সাধারণ অ্যানিমেটেড ভিডিও তৈরিতেও মনোনিবেশ করে।[৩] ব্রাইট সাইডকে "জনপ্রিয় কন্টেন্ট ফার্ম চ্যানেল" নামেও আখ্যায়িত করা হয়।[৪]

২০১৯ সালের জুন মাসে, ব্রাইট সাইড অ্যাঙ্গাস বারবিয়েরির ৩৮২ দিনের উপবাস সংক্রান্ত একটি ভিডিও প্রকাশের মাধ্যমে এটিকে ইউটিউবে ব্যাপক জনপ্রিয় করে তোলে। ভিডিওটি আপলোড করার এক সপ্তাহের মধ্যেই প্রায় ৩ লক্ষ বার দেখা হয়ে যায়।[৫]

চ্যানেলটির সর্বাধিক জনপ্রিয় অর্থাৎ সর্বাধিক দেখা ভিডিও হলো "১৩ টিপস অন হাউ টু সার্ভাইভ ওয়াইল্ড অ্যানিমেল অ্যাটাকস" ("13 Tips on How to Survive Wild Animal Attacks"; বন্যপ্রাণির আক্রমণ থেকে বাঁচার ১৩ উপায়)। ২০১৭ সালের শেষের দিকে তৈরির পর ২০২০ সালের জুন নাগাদ ভিডিওটি ৮০ মিলিয়নের বেশিবার দেখা হয়েছে।

চ্যানেলটি দুইজন রাশান নির্মাতা, পাভেল রাদায়েভ এবং মারাট মুখামেতভ, কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত সাইপ্রাসভিত্তিক প্রতিষ্ঠান দ্যসৌল পাবলিশিং দ্বারা পরিচালিত হয়। এছাড়াও এই প্রতিষ্ঠান ৫-মিনিট ক্রাফটস, ৫-মিনিট ক্রাফটস কিডস, ৫-মিনিট ক্রাফটস গার্লি, ৭-সেকেন্ড রিডলস৫-মিনিট ম্যাজিক প্রভৃতি ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করে।[১] প্রতিষ্ঠানটি এবং এর ৫৫০ জন কর্মী প্রতি মাসে ১,৫০০ ভিডিও প্রকাশ করে এবং ১০টি ভাষায় প্রায় ৪০টি ফেসবুক পাতা পরিচালনা করে।[৩]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kaplan, Lisa (২০১৯-১২-১৮)। "The Biggest Social Media Operation You've Never Heard of Is Run Out of Cyprus by Russians"Lawfare। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  2. "BRIGHT SIDE's YouTube Stats (Summary Profile)"socialblade.com। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  3. Jennings, Rebecca (২০১৮-১১-১২)। "Why YouTube is riddled with bizarre DIY videos"Vox। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  4. McCluskey, Megan (২০১৯-০৯-০৪)। "This '5-Minute Craft' YouTube Channel Is Captivating the Masses"Time। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  5. Reporter (২০১৯-০৬-২৮)। "Fife man Angus Barbieri's incredible food fast becomes a YouTube hit"The Courier UK। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]