বুদ্ধগুপ্তনাথ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বুদ্ধগুপ্তনাথ

বুদ্ধগুপ্তনাথ ষোড়শ শতাব্দীর একজন ভারতীয় বৌদ্ধ তান্ত্রিক ছিলেন। তার শিষ্য তারানাথের রচিত জীবনী থেকে তার সম্বন্ধে বিস্তারিত জানা যায়।

সংক্ষিপ্ত জীবনী[সম্পাদনা]

তারানাথের রচিত জীবনী গ্রুব-ছেন-বুদ্ধ-গুপ্ত'ই-র্নাম-থার-র্জে-ব্ত্সুন-ন্যিদ-ক্যি-ঝাল-লুং-লাস-গ্ঝান-দু-রাং-র্তোগ-গি-দ্রি-মাস-মা-স্বাগ্স-পা'ই-য়ি-গে-য়াং-দাগ-পা (ওয়াইলি: grub chen buddha gupta'i rnam thar rje btsun nyid kyi zhal lung las gzhan du rang rtog gi dri mas ma sbags pa'i yi ge yang dag pa) অনুযায়ী, বুদ্ধগুপ্তনাথ ভারতের ইন্দ্রলিঙ্গ শহরে এক ধনী বণীক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। যৌবনে তিনি পিতার অনুমতিতে রসযান তত্ত্বের শিক্ষক নাথ সম্প্রদায়ের থির্তিনাথের নিকট শিক্ষালাভ করেন। এই সময় তিনি এই সম্প্রদায়ের দেবনার ও দীপনাথ নামক দুই শিক্ষকের নিকট ব্যাকরণ সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। এছাড়া এই সম্প্রদায়ের ব্রহ্মনাথ ও কৃষ্ণনাথ তার উল্লেখযোগ্য শিক্ষক ছিলেন। শিক্ষার শেষে তিনি হিমালয়ে সাধনা করেন ও ভারতের বৌদ্ধ তীর্থস্থানগুলি যাত্রা করেন। এরপরের ষোল বছর তিনি দক্ষিণ ভারতে সাধনা করেন। এরপর সুমতি নামক এক বৌদ্ধ তান্ত্রিকের নিকট হেবজ্রচক্রসম্বর তন্ত্র সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করে তিনি সমুদ্রা যাত্রা করে সিংহল পৌঁছে সেখানে শান্তিগুপ্ত ও তার দীনকর নামক দুই পণ্ডিতের নিকট শিক্ষালাভ করেন। এরপর বুদ্ধগুপ্তনাথ উত্তরে যাত্রা করে অসম হয়ে তিব্বত প্রবেশ করেন। মধ্য তিব্বতে তার সাথে কিশোর তারানাথের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ হয়। তারানাথ তার নিকট হতে তারাযোগিনী, গুহ্যসমাজতন্ত্র, মহামুদ্রা, বসন্ততিলক, জালন্ধরী পার দোঁহা, বজ্রনৈরাত্ম্য, বজ্রবরাহী, মহাকাল, হেবজ্র প্রভৃতি বিভিন্ন বিষয় সম্বন্ধে শিক্ষালাভ করেন। তিন বছর তিব্বতে বসবাস করার পর বুদ্ধগুপ্তনাথ ভারত ফিরে যান ও পরে ভারতীয় উপমহাদেশের বিভিন্ন স্থান ভ্রমণে ব্যস্ত থাকেন।[১][২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Drime, Sherab (ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৫)। "Buddhaguptanatha"The Treasury of Lives: Biographies of Himalayan Religious Masters। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৩-২১ 
  2. Buddhaguptanatha and the Late Survival of the Siddha Tradition in India, by David Templeman

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Tucci, Giuseppe 1931, “The Sea and Land Travels of a Buddhist Sadhu in the Sixteenth Century,” Indian Historical Quarterly, vol. VII, 4 (Dec. 1931), pp. 683–702.
  • Tucci, Giuseppe. 1949. Tibetan Painted Scrolls. Rome: La Libreria dello Stato , vol. 1, p. 164, vol. 2, p. 552.

T*ucci, Giuseppe 1967, Tibet, Land of Snows (J. S. Stapleton Driver, transl.), New Delhi: Oxford & IBH Publishing Co.

  • Waddell, L.A. (transl.) 1893, “A 16th Century Account of Indian Buddhist shrines by an Indian Buddhist Yogi, translated from the Tibetan,” Proceedings of the Asiatic Society of Bengal, Jan.-Dec. 1893, pp. 55–61.
  • Zongtse, Champa Thupten 1993, Tāranāthas Biographie des Buddhaguptanātha mit besonderer Berücksichtigung des Abschnittes über Sri Lanka, in: “Festschrift Prof. Dr. Heinz Bechert: Studien zur Indologie und Buddhismuskunde,” Reinhold Grünedahl, Jens-Uwe Hartmann & Petra Krieffer (ed.), Bonn: Indica et Tibetica Verlag, 503 ff. (জার্মান)