বিসিআইএম অর্থনৈতিক করিডর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Map of Asia, showing the OBOR initiative
  ছয়টি বেল্ট এবং রোড করিডোর
চীন লালচে, এশিয়ান অবকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাংক- এর সদস্যরা কমলাতে, ছয়টি করিডোর কালো[১]

বাংলাদেশ-চীন-ভারত-মায়ানমার অর্থনৈতিক করিডর বা বিসিআইএম অর্থনৈতিক করিডর হল ভারত,চীন,বাংলাদেশ ও মায়ানমারের মধ্যে প্রস্তাবিত একটি অর্থনৈতিক করিডর।[২][৩] এই করিডর প্রধানত সড়ক পথের দ্বারা গড়ার কথা হয়। এই করিডরের মোট দৈর্ঘ্য ২৮০০ কিলোমিটার।

২০১৫ সালে, চীন বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের অংশ হিসাবে বৈশ্বিক সংযোগের উদ্যোগের জন্য করিডোরটির প্রস্তাব করে। বিআরআই প্রথম থেকেই ভারত বয়কট করে। ২০১২ সালের মে মাসে বিসিআইএম'কে ৩য় করিডোর এবং প্রকল্পগুলির তালিকায় দ্বিতীয় বেল্ট অ্যান্ড রোড ফোরামে অংশ নেওয়া রাষ্ট্রীয় নেতাদের দ্বারা জারি করা একটি যৌথ আলোচনায় উল্লেখ করা হয়নি, যা বিসিআইএম'কে বিআরআই থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে ইঙ্গিত দেয়। একই বছরে ভারত ইউসি'র ১৩তম বিসিআইএম ফোরামে একটি প্রতিনিধি প্রেরণ করে বিসিআইএম'কে অক্ষত রাখতে চায়, যদিও করিডোর বিআরআই'য়ের পূর্বাভাস দেয়।[৪]

প্রস্তাবিত করিডোরটি এই অঞ্চলে সড়ক, রেল, জল এবং বিমান সংযোগের মধ্য দিয়ে চীন ইউনান প্রদেশ, বাংলাদেশ, মায়ানমার ও পূর্ব ভারতের পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৪৪০ মিলিয়ন মানুষকে ধারণ করে ১৬.৬৫ মিলিয়ন বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে থাকবে।[৫] বিসিআইএম পণ্য, পরিষেবা ও জ্বালানি, বাজারজাতকরণ ব্যতীত বাধা নির্মূল, উন্নত বাণিজ্যের সহজলভ্যতা, অবকাঠামো উন্নয়নে বিনিয়োগ এবং খনিজ, জল ও অন্যান্য প্রাকৃতিক সম্পদের যৌথ অনুসন্ধান ও বিকাশের জন্য বৃহত্তর বাজারে প্রবেশের কল্পনা করে।[৬]

সড়ক ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

বিসিআইএম করিডর গড়ার প্রধান লক্ষ্য হল ভারত এর পূর্ব অঞ্চলের প্রধান ও দেশের অন্যতম বাণিজ্য কেন্দ্রের কলকাতার সঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিম চীন এর প্রধান বাণিজ্য কেন্দ্র কুনমিং এর উন্নত যোগাযোগ ও বাণিজ্যের প্রসার ঘটান।করিডরটি পশ্চিমবঙ্গ এর রাজধানী কলকাতা থেকে শুরু হয়ে বনগাঁর পেট্রোপলএ ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে অতিক্রম করে বাংলাদেশ এর রাজধানী ঢাকা হয়ে আসাম-বাংলাদেশ সমান্ত অতিক্রম করে আবার ভারত এ প্রবেশ করে শিলচল শহরে পৌচ্ছায় ।এরপর এটি হম্ফল হয়ে ভারত-মায়ানমার সীমান্ত অতিক্রম করে মায়ানমারের শহর মান্ডালায় পৌচ্ছায় ।শেষে মায়ানমার-চীন সীমান্ত অতিক্রম করে চীন এর কুনমিং শহরে পৌচ্ছায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. চীন ব্রিটেন বিজনেস কাউন্সিল: One Belt One Road ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৩ জুলাই ২০১৭ তারিখে
  2. Dasgupta, Saibal (২০ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Plan for economic corridor linking India to China approved"Times of India। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০১৪ 
  3. "The BCIM economic corridor: Prospects and challenges"Observer Research Foundation। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  4. "Kunming meet revives BCIM link plan"Economic Times। জুন ২৪, ২০১৯। 
  5. "Bangladesh–China–India–Myanmar Economic Corridor Builds Steam"Asia Briefing। Dezan Shira and Associates। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৪ 
  6. Rahman, Mustafizur (১৫ মার্চ ২০১৫)। "BCIM-economic corridor: An emerging opportunity"The Daily Star। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০১৪