বিদেশমুখিতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বিদেশমুখিতা বা বিদেশমুখিনতা হল নিজ জাতির সাংস্কৃতিক ও বাণিজ্যিক পণ্য, শৈলী, ও চিন্তার চেয়ে অন্য জাতির পণ্য, শৈলী, চিন্তাকে অধিকতর গুরুত্ব দেওয়া।[১] সাধারণত সাংস্কৃতিক হীনম্মন্যতাউপনিবেশী মানসিকতা থেকে বিদেশমুখিনতার জন্ম হয়।[২] বাংলাদেশে বিদেশমুখিতার কারণে নিজস্ব সাংস্কৃতিক ও বাণিজ্যিক পণ্য বা ব্র্যান্ড গড়ে উঠছে না।

ভোক্তার বিদেশমুখিতা[সম্পাদনা]

তার ডক্টরেট গবেষণায় স্টিভেন জেমস লরেন্স মত দেন যে ভোক্তাদের নিজ দেশের পণ্যকে বাদ দিয়ে বিদেশি পণ্য কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে বিদেশমুখিতা একটি প্রভাবশালী কারণ হতে পারে।[৩]

পূজা মণ্ডল ভারত থেকে কিছু উদাহরণ উদ্ধৃত করেছেন:

"ভারতের লোকজন অনেক সময় ধরে নেয় যে ভারতীয়দের চেয়ে ব্রিটিশ জীবনশৈলী (পোশাক-আশাক ইত্যাদি), ফরাসি ফ্যাশন কিংবা জাপানিজ বৈদ্যুতিক সামগ্রী (টিভি, মোবাইল ইত্যাদি) এবং সুইস ঘড়ি ইত্যাদি বেশি উন্নত।"

— [৪]

'দেশি সাংস্কৃতিক ও বাণিজ্যিক পণ্য, শৈলী, ও চিন্তা চেয়ে বিদেশি সামগ্রী, সংস্কৃতি উন্নততর' এই বিদেশমুখি বিশ্বাস ও পক্ষপাত ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিমা শিক্ষায় শিক্ষিতদের ভিতর আত্মপরিচয়ে সংকট করে যা বন্ধ হওয়া উচিত বলে মনে করেন, গ্রেস সুসেটো।[৫]

ভোক্তার বিদেশমুখিতার পরিমাপ[সম্পাদনা]

ভোক্তাদের বিদেশমুখিতা পরিমাপ করার জন্য স্টিভেন জেমস লরেন্স CXENO নামে একটি পরিমাপক প্রস্তাব করেছেন যা ভোক্তাদের বিদেশমুখিতা কীভাবে তাদের ক্রেতাসূচক আচরণ প্রভাবিত করে তা বলতে পারবে।[৩] সম্প্রতি প্রস্তাবিত আরেকটি পরিমাপক হল XSCALE যা ভোক্তাদের সামাজিক ও ক্রেতাসূচক উভয় আচরণকে বিচার বিদেশমুখি ক্রয়স্বভাবকে সাংখ্যিক মান প্রদর্শন করে।[৬]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Johnson, Allan G. (২০০০), The Blackwell Dictionary of Sociology: A User's Guide to Sociological Language (2 সংস্করণ), Wiley-Blackwell, পৃষ্ঠা 351, আইএসবিএন 978-0-631-21681-0 
  2. Kent, Donald P.; Burnight, Robert G. (১ জানুয়ারি ১৯৫১)। "Group Centrism in Complex Societies": 256–259। doi:10.1086/220943জেস্টোর 2771646 
  3. Lawrence, Steven (জানুয়ারি ২০১২)। ""Consumer Xenocentrism And Consumer Cosmopolitanism: The De-Velopment A" by Steven James Lawrence"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৫ 
  4. "Sociology of Culture: Concepts Involved in Sociology of Culture"। ২০১৪-০৩-২৫। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৫ 
  5. Grace Susetyo। "Perception of Xenocentrism and Cultural Identity in Western-Educated Indonesian Teenage Music Students"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০১৫ 
  6. Rojas-Méndez, José I.; Chapa, Sindy (১ জানুয়ারি ২০১৭)। Rescuing Xenocentrism: The Missing Construct in Consumer Behavior—An AbstractCreating Marketing Magic and Innovative Future Marketing Trends। Developments in Marketing Science: Proceedings of the Academy of Marketing Science (ইংরেজি ভাষায়)। Springer, Cham। পৃষ্ঠা 1089। doi:10.1007/978-3-319-45596-9_200আইএসবিএন 978-3-319-45595-2