বিজয়ের সমাধি

স্থানাঙ্ক: ০৭°৩৪′২৭.৩″ উত্তর ৮০°০৭′৩৮.৫″ পূর্ব / ৭.৫৭৪২৫০° উত্তর ৮০.১২৭৩৬১° পূর্ব / 7.574250; 80.127361
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বিজয়ের সমাধি
විජය සොහොන
Tomb of Vijaya.jpg
সাধারণ তথ্য
অবস্থারক্ষিত
স্থাপত্য রীতিসমাধি
অবস্থানমেদাগামা কান্ডা
ঠিকানাকান্ডুবোদা,মোরাগেন
দেশশ্রীলঙ্কা
স্থানাঙ্ক০৭°৩৪′২৭.৩″ উত্তর ৮০°০৭′৩৮.৫″ পূর্ব / ৭.৫৭৪২৫০° উত্তর ৮০.১২৭৩৬১° পূর্ব / 7.574250; 80.127361
উপাধিঅার্কেওলজিক্যাল সুরক্ষিত সৌধ (৬জুলাই ২০০৭)

বিজয়ের সমাধি একটি প্রাচীন স্মৃতিস্তম্ভ।এটি শ্রীলংকার পান্ডুওয়ানুওয়ারা ডিএসের মাদাগামা কান্ডার পাহাড়ে অবস্থিত। স্মৃতিস্তম্ভের  স্তূপ আকৃতির বৃত্তাকার কাঠামো রয়েছে ।এটিকে ঐতিহ্যগতভাবে শ্রীলংকার প্রথম রেকর্ডকৃত রাজা রাজকুমার বিজয় (৫৪৩-৫০৫ খ্রি .পূ) এর সমাধি বলে মনে করা হয়। প্রাচীন রাজ্য পান্ডুওয়ানুভুরার  প্রায় ৬ কিমি (৩.৭ মা) দক্ষিণ-পূর্বে মাদাগামা কান্ডার  পাহাড় । এটি  দুটি ঐতিহাসিক মন্দির  নিকসালা অরণ্য সেনসানয়া ও ক্যান্ডে মেদগামা রাজা মহা বিহার দ্বারা বেষ্টিত। ২০০৭ সালে স্মৃতিস্তম্ভটিকে সরকার আনুষ্ঠানিকভাবে   শ্রীলংকার সংরক্ষিত প্রত্নতাত্ত্বিক স্থল  হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।[১]

এই সাইটটি একটি  ধ্বংসাবশেষ।এটা শ্রীলঙ্কার প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ আগে  খুঁজে পায়  নি। উৎখননের সময়, প্রত্নতত্ত্ববিদরা  কাঠামোর ভিতরে কিছু ভস্ম পায় । তার  রেডিওকার্বন ডেটিং  ফলাফল অনুযায়ী তারা যে ছাই পেয়েছে তার বয়স প্রায় ২,৫০০-২,৬০০ বছর ।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] ১৯৮৬ সালে প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগের সংরক্ষিত এই কাঠামোকে  একটি সংরক্ষিত স্মৃতিস্তম্ভ হিসেবে ঘোষণা করে । তাদের তদন্তে জানা যায় যে, বর্তমান  স্মৃতিস্তম্ভের ইট ১০ম শতাব্দীর।কারণ স্মৃতিস্তম্ভের  ইটে  ১০ম শতাব্দীর সিংহল লিপি আছে ।[২]

তথ্য় সূত্র[সম্পাদনা]

  1. Gazette 1505 6 July 2007, পৃ. 8।
  2. Wijesekera, Nandadeva (১৯৯০)। Archaeological Department Centenary (1890-1990): History of the Department of Archaeology (ইংরেজি ভাষায়)। Commissioner of Archaeology, 1990। পৃষ্ঠা 178। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

Wijesekera, Nandadeva (১৯৯০)। Archaeological Department Centenary (1890-1990): History of the Department of Archaeology (ইংরেজি ভাষায়)। Commissioner of Archaeology, 1990। পৃষ্ঠা 178। 

Wijesekera, Nandadeva (১৯৯০)। Archaeological Department Centenary (1890-1990): History of the Department of Archaeology (ইংরেজি ভাষায়)। Commissioner of Archaeology, 1990। পৃষ্ঠা 178।