বালিপরা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বালিপরা
বালিপরা
স্থানাঙ্ক: ২৬°৪৯′৩২″ উত্তর ৯২°৪৬′৩১″ পূর্ব / ২৬.৮২৫৫৬° উত্তর ৯২.৭৭৫২৮° পূর্ব / 26.82556; 92.77528

বালিপরা অসমের শোণিতপুর জেলায় অবস্থিত এটি অঞ্চল। ভৌগোলিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখলে ভারতের উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলির ঠিক মধ্যস্থলে বালিপরা অঞ্চলটির অবস্থিতি। জেলার সদর শহর তেজপুর থেকে বালিপরার দূরত্ব ২৩ কিলোমিটার। পূর্বে বিশ্বনাথ চারিআলি, গহপুর, লখিমপুর পশ্চিমে রঙাপরা, দক্ষিণে তেজপুর ও উত্তরে অসম-অরুণাচল সীমান্তের ভালুকপুং হয়ে বমডিলা, টাবাং ইত্যাদি স্থান বালিপরা চারিআলির মধ্যে দিয়েই যেতে হয়। বালিপরা বিভিন্ন ভাষা-ভাষী, জাতি-সম্প্রদায়ের লোকের বসতিস্থল ও সমন্বয় সম্প্রীতির অঞ্চল। প্রাচীন ঐতিহাসিক, সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক দিকে এই অঞ্চলের গুরুত্ব ও অরিহণা নগন্য নয়। উল্লেখযোগ্য যে, বালিপরাকে ‘চারধামের পবিত্র ভূমি’ বলে মানা হয়। চারিধাম হ’ল মানশিরি নদীর পূর্ব পারে অবস্থিত ‘কলীয়া গোঁসাই সত্র’, ভকতগাঁওয়ের দক্ষিণ পাট সত্র, এরাগাঁওয়ের ‘কমলাওয়ারী সত্র’ ও বালিগাঁওয়ের ‘কেতেকীওয়ারী সত্র’।

বালিপরা নামের উৎপত্তির কিংবদন্তী ও ভৌগোলিক সম্ভাব্য কারণ:[সম্পাদনা]

বালিপরা নামটির উৎপত্তির ক্ষেত্রে বিভিন্ন কিংবদন্তী ও ভৌগোলিক কারণ অনুমান করা হয়। উল্লেখ পাওয়া যায়- “Bana’s grandson Bhaluka made his capital at Bhalukpong, not far from Balipara at the foot of the Akahills. Remains of old fortifications are still visible there. Balipara may have some association with Bali, father of Bana. The Akas still claim Bhaluka as their progenitor.” – History of Assam, by Debabrat Dutta.[১] দৈত্যবংশী হিরণ্যকশিপুর নাতি রাজা বলি শোণিতপুরে রাজত্ব করেছিল বলে জানা যায়। বলির পুত্র ছিল বাণ রাজা এই বলি রাজার থেকেই নামান্তর হয়ে বা কোনো ঘটনা মর্মে 'বালিপরা' নামের উৎপত্তি বলে অনুমান করা হয়। অন্যদিকে, বালিপরা অঞ্চলের বর্ষীয়ান শিক্ষাবিদরা বলেন যে, ১৮৯৭ সালে অসমে হওয়া ভূমিকম্পের সময়ে এই অঞ্চলটিকে কাষরীয়া নদী বালিতে প্রোথিত করেছিল। তারপরে এই অঞ্চলটির নাম বালিপরা হয়। বর্তমান প্রবাহিত হয়ে থাকা জীয়াভরলী নদীটি বালিপরার পূর্বে অবস্থিত। ভরলী নদীর উপনদী মানশিরি, জরাসর ও কালনী বালিপরার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে গেছে। নদীর ফেলে যাওয়া পলি তথা বালুচর কালক্রমে বসবাসের উপযোগী হওয়ায় মানুষ বসতি বিস্তার করে। বালি চাপা দিয়ে বসবাস করা বাসিন্দারাই হয়তো নামাকরণ করে বালিপরা। নদীর সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বালিপরার গ্রামসমূহের নাম মনে রাখার মতো। বালিগাঁও, বোকাগাঁও, বামগাঁও, পানীপোতা ইত্যাদি নামগুলি নদী গঠিত ভূমিভাগের অতীতের কথাই বলে। [২]

বালিপরা অঞ্চলের গ্রামসমূহ[সম্পাদনা]

শোণিতপুর জেলার ১৪টা উন্নয়ন খণ্ডর ভিতর বালিপরাও একটি। চারদুয়ার রাজহ সক্তর অন্তর্গত বালিপরা অঞ্চলের অন্তর্ভুক্ত গ্রামসমূহ হ’ল: এরাগাঁও, বালিগাঁও, কমারীগাঁও, উদমারীগাঁও, বামগাঁও, বোকাগাঁও, মাজুলীগাঁও, সরুপাটগাঁও, বরপাটগাঁও, ভকতগাঁও, বুঢ়াগাঁও, ঔহলাগাঁও, ভোবোলাগাঁও, ওপরঢেকেরী, নামঢেকেরী, আমারীবারী, ভেরভেরী, ওপর কছারী, জংঘলবস্তি, দর্জীপট্টি, মহালিবস্তি, খেলমাটি, আদাবারী, পাকবিল, কালনীবস্তি, ভঙাবস্তি, দিঘলীবস্তি, মধুপুর, বালিজান, পানীপোতা, মোলানগাঁও।

বিধানসভা ও লোকসভা সমষ্টি:[সম্পাদনা]

বালিপরা অঞ্চলের একাংশ এলাকা সতিয়া বিধানসভা সমষ্টির অন্তর্ভুক্ত হওয়ার বিপরীতে বাকী একাংশ এলাকা রঙাপরা বিধানসভা সমষ্টির অন্তর্ভুক্ত। অঞ্চলটি তেজপুর লোকসভা সমষ্টির অন্তর্গত।

বালিপরা অঞ্চলর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ:[সম্পাদনা]

  1. বালিপরা মজলীয়া বিদ্যালয়
  2. বরপাটগাঁও মজলীয়া বিদ্যালয়
  3. সরকারী নেভিল মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  4. রৌমারী মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  5. বুঢ়াগাঁও মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  6. খেলমাটি আদাবারী মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  7. আমারীবারী মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  8. দীঘলী মধ্য ইংরাজী বিদ্যালয়
  9. বালিপরা উচ্চতর মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  10. খনামুখ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  11. শংকরদেব উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  12. পানীপোতা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  13. কুমুদা সুন্দরী সেন ছোবালী উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  14. শংকরদেব শিশু নিকেতন
  15. St. John School
  16. Elite Academy,CBSE School
  17. Assam Valley School
  18. বালিপরা কণিষ্ঠ মহাবিদ্যালয়

[৩]

তথ্য সংগ্রহ[সম্পাদনা]

  1. Debabrat Dutta, History of Assam
  2. ভদ্র দত্ত, বালিপরা স্মরণিকা
  3. শোণিতপুর জেলা হাইস্কুল সংস্থা রূপালী জয়ন্তী স্মরণিকা, ১৯৯৪