বিষয়বস্তুতে চলুন

বায়তুল হুদা মসজিদ, সিডনি

স্থানাঙ্ক: ৩৩°৪৩′৩২.৮″ দক্ষিণ ১৫০°৫০′৩৩.৮″ পূর্ব / ৩৩.৭২৫৭৭৮° দক্ষিণ ১৫০.৮৪২৭২২° পূর্ব / -33.725778; 150.842722
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বায়তুল হুদা মসজিদ
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
যাজকীয় বা
সাংগঠনিক অবস্থা
মসজিদ
মালিকানাআহমাদিয়া মসজিদ
অবস্থাচাল রয়েছে
অবস্থান
অবস্থানসিডনি, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া
স্থাপত্য
ধরনমসজিদ
সম্পূর্ণ হয়জুলাই ১৯৮৯
বিনির্দেশ
গম্বুজসমূহ
মিনার
ওয়েবসাইট
www.ahmadiyya.org.au

বায়তুল হুদা মসজিদ হল আহমাদিয়া মুসলিম সম্প্রদায় কর্তৃক নির্মিত একটি ঐতিহাসিক মসজিদ যেটি সিডনি শহরতলির নিউ সাউথ ওয়েলস অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত। মসজিদটি আহমাদিয়া মুসলিম সম্প্রদায় (AMC) দ্বারা পরিচালিত হয়।

মসজিদ নির্মাণের ইতিহাস

[সম্পাদনা]

১৯৮৩ সালে সিডনির মার্সডেন পার্কে মসজিদটির জন্য প্রথমে জমি কেনা হয়েছিলো । ১৯৮৩ সালের ৩০ শে সেপ্টেম্বর মির্জা তাহির আহমদ, খলিফাতুল মসীহ চতুর্থ অস্ট্রেলিয়ায় তার প্রথম ভ্রমণের সময় মসজিদটির জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।[১]

প্রথম ধর্মপ্রচারক মি. শাকিল আহমদ মুনির ও তার স্ত্রী মিসেস মো. নাইমা মুনির, ১৯৮৫ সালের ৫ জুলাই অস্ট্রেলিয়ায় আসেন। ১৯৮৭ সালের ৭ সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার আহমদিয়া জামাত অস্ট্রেলিয়া ইনকর্পোরেটেডের আহমদিয়া মুসলিম অ্যাসোসিয়েশন হিসাবে নিবন্ধিত হয়েছিল।

১৯৮৯ সালের জুলাই মাসে মির্জা তাহির আহমদ, খলিফাতুল মসীহ চতুর্থ।-এর দ্বিতীয় সফরে মসজিদটি উদ্ভোধন করেন।

২০০৮ সালে, খিলাফত (সংগঠনের নেতৃত্বদানকারী উত্তরসূরিদের) শতবর্ষ উদযাপনের জন্য এতে একটি এক্সটেনশন হল নির্মাণ করা হয়।

২০১৫ সালের ডিসেম্বরে, প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল অস্ট্রেলিয়ায় আহমাদিয়া সম্প্রদায়ের অবদানের কথা স্বীকার করেন।[২] আহমদিয়া মুসলিম অ্যাসোসিয়েশন অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় মুখপাত্র আজিজ ওমর বলেছেন, "আমরা অস্ট্রেলিয়ার প্রতি অনুগত এবং আমরা চাই আমাদের সন্তানরা অস্ট্রেলিয়ার প্রতি অনুগত থাকুক", এ উদ্দেশ্যে সমিতির সদস্যদের মাঝে ৫০০,০০০টি "হোমল্যান্ডের প্রতি আনুগত্য" লিফলেট বিতরণ করা হয়। মসজিদটিতে অস্ট্রেলিয়া দিবস উদযাপনের দিনে রয়েছে জাতীয় পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠান, জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া এবং বারবিকিউ।

আরও দেখুন

[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. Historie Ahmadiyya in Australia ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২০০৮-০৭-১৯ তারিখে
  2. Bianchi, Camille (২৭ ডিসেম্বর ২০১৫)। "Ahmadiyya Muslim minority find religious freedom in Australia"SBS। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ

[সম্পাদনা]