বাইকজের সম্রাট অঞ্জো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
বাইকজের সম্রাট অঞ্জো
হাঙ্গুল온조왕
হাঞ্জা溫祚王
সংশোধিত রোমানীকরণঅঞ্জো-ওয়াং Onjo-wang
ম্যাক্কিউন-রাইশাওয়াOnjo-wang

অঞ্জো(অজানা-২৮ খৃস্টাব্দ, রাজত্বকাল ১৮ খ্রৃষ্টপূর্ব থেকে ২৮ খৃষ্টাব্দ পর্যন্ত[১]) ছিলেন বাইকজের প্রতিষ্ঠাতা সম্রাট যেটি ছিল কোরিয়ার তিনটি রাজ্যের একটি।[২] সামগুক সাগি (삼국사기,三國史記), এর অনুযায়ী তিনি ছিলেন বাইজাকের সকল রাজাদের মধ্যে সবার সেরা।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ছিলেন রাজা ডংমায়ং এর তৃতীয় ছেলে, যিনি কোরিয়ার উত্তরদিকের রাজ্য গগইয়ারু এর প্রতিষ্ঠাতা।[৩] অঞ্জো ছিলেন গগইয়ারু এর দ্বিতীয় রাজা ইউরি এর ছোট সৎ ভাই এবং তার দ্বিতীয় ভাই বিরু যিনি একটি ছোট প্রদেশ মিকহোহুল প্রতিষ্ঠা করে ছিলেন। [৪]

বাইকজ এর প্রতিষ্ঠা এবং বিস্তার[সম্পাদনা]

ডংমায়ং এর ছেলে ছিল তিনজনঃ ইউরি, বিরু এবং অঞ্জো।যখন ইউরি এর জন্ম হয় ডংমায়ং এর আগের স্ত্রী এর কাছে ডংবুয়েতে, তারা গগইয়ারুতে আসে এবং সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হয়। বিরু এবং অঞ্জো দক্ষিণদিকে চলে যান নিজেদের সম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করতে।[৫] সামগুক ইউসা অনুযায়ী, বিরু মিকহোহুল এ নিজের রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন, কিন্তু তা বেশিদিন টিকেনি।[৫] বিরুর লোকেরা বিরুর মৃত্যুর পর শিপজিতে যোগদান করে এবং অঞ্জো বাইকজ নামে নামকরণ করেন। এরপর বাইকজ এর রাজধানী হাবুক উইরিসেওং থেকে সরিয়ে দক্ষিণ দিকে নেয়া হয় কারণ উত্তরে মালগাল ছিল এবং পূর্বে নাংনাং রাজ্যসমূহ অবস্থিত ছিল। দুটি রাজধানী মিলিয়েই কোরিয়ার বর্তমান রাজধানী সিওল হয়েছে। ৩ খৃস্টাব্দ এবং ৮ খৃস্টাব্দ এ মালগাল উপজাতি উত্তরদিক থেকে দু’বার আক্রমণ করে, অঞ্জো সরাসরি নেতৃত্ব দেন তার সৈন্যদের এবং আক্রমণকারীদের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে আনেন। ৫ খৃস্টাব্দতে অঞ্জো তার রাজধানী দক্ষিণে আরো রক্ষণণীয় জায়গায় নিয়ে যান হান নদীর কাছে, এবং নামকরণ করেন হানম ওয়াইরিসিয়ং নামে এবং মৈত্রী রাজ্য মাহান এর রাজার নিকট একজন দূত পাঠান সাম্প্রতিক অবস্থা বর্ণনা করে।[৫] ইতিমধ্যে অঞ্জো নকশা আঁকেন মাহান এবং জিহান রাজ্য একত্রীকরণের। ৭ খৃস্টাব্দ এর মধ্যে তিনি তার সৈন্য প্রস্তুত করতে থাকেন যুদ্ধের জন্য এবং অবশেষে ৮ খৃস্টাব্দতে আক্রমণ করেন। ৮ খৃস্টাব্দতে তিনি গোপনে তার সৈন্য সীমানায় নিয়ে যান, কৌশলে দূর্গগুলো দখল করতে এগিয়ে যান। শিগ্রই তিনি মাহানের সমস্ত দূর্গ দখল করে ফেলেন দুটি ব্যতীত।[৫][৬] বাকি দুই দূর্গের লোকেরা অঞ্জো এর নিকট আত্নসমর্পণ করে এবং তাদের কৃপা করা হয়। কিন্তু মাহানের রাজা আত্নহত্যা করেন এবং অঞ্জো এর জন্য একটি চিঠি রেখে যান, যেখানে তিনি অঞ্জোকে অনুরোধ করেন মাহানের লোকদের দয়া এবং করুণা দ্বারা গ্রহণ করতে। অঞ্জো মাহানের রাজার শেষ ইচ্ছার প্রতি সম্মান জানিয়ে তা গ্রহণ করেন। বাইকজ ব্যাপকভাবে বিস্তার হতে লাগল এবং প্রতিবছর বেশ কয়েকটি দূর্গ নির্মাণ করা হয়। আট বছর পর্যন্ত সুখে-শান্তিতে বসবাস করেছিল বাইকজবাসীরা যতক্ষণ ১৬ খৃস্টাব্দতে মাহানের প্রাক্তন জেনারেল একটি বিপ্লব ঘটান। অঞ্জো সরাসরি তার পাঁচ সহস্রাধিক সৈন্যদিয়ে বিপ্লব দমন করেন। এরপরই মালগাল উপজাতি ২২ খৃস্টাব্দ এর দিকে আবার আক্রমণ করে, কিন্তু পুনরায় অঞ্জো এবং তার সেনাবাহিনীর কাছে পরাজিত হয়।[৫][৬]

মৃত্যু এবং উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

অঞ্জো ২৮ খৃস্টাব্দে স্বাভাবিকভাবে মৃত্যুবরণ করেন তার রাজত্বের ৪৬ বছরে। এরপর অঞ্জো এর বড় ছেলে দারু উত্তরাধিকার লাভ করেন। অঞ্জো শক্তিশালী রাজবংশের জন্য যে ভিত্তিস্থাপণ করে গিয়েছিলেন সেটি প্রায় ৬৭৮ বছর ধরে এবং ৩১ শাসকের শাসনের মধ্যে টিকে ছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. info by the translators of Il-yeon: Samguk Yusa: Legends and History of the Three Kingdoms of Ancient Korea, translated by Tae-Hung Ha and Grafton K. Mintz. Book One, page 25. Silk Pagoda (2006). আইএসবিএন ১-৫৯৬৫৪-৩৪৮-৫
  2. Gina Barnes, «State Formation in Korea: Emerging Elites», p.13, Routledge, 2013, আইএসবিএন ১১৩৬৮৪০৯৭৪
  3. Martin Zatko. «The Rough Guide to Seoul», p.170, Penguin, 2011, আইএসবিএন ১৪০৫৩৮১০২৭
  4. Yŏng-jun Chʻoe, «Land and Life: A Historical Geographical Exploration of Korea», p.258, Jain Publishing Company, 2005, আইএসবিএন ০৮৯৫৮১৮৩৫৩
  5. Jinwung Kim, «A History of Korea: From "Land of the Morning Calm" to States in Conflict», p.38, Indiana University Press, 2012, আইএসবিএন ০২৫৩০০০৭৮৫
  6. Duk-kyu Jin, «Historical Origins of Korean Politics», p.87, 2005, আইএসবিএন ৮৯৪২৩৩০৬৩০