বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর
ঠিকানা
বিজিবি ক্যাম্প, সিওবাজার, রংপুর

সিওবাজার থেকে ১০০০গজ উত্তরে

৫৪০০

তথ্য
বিদ্যালয়ের ধরনবেসরকারি এমপিওভুক্ত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক
নীতিবাক্যইকরা বা পড়ো
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৯৬ খৃ
প্রতিষ্ঠাতাবিজিবি, রংপুর
বিদ্যালয় বোর্ডমাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, দিনাজপুর
সেশনজানুয়ারি- ডিসেম্বর
বিদ্যালয় কোড১২৭৩৭৮, স্কুল কোড- ৫৭৭৫, কলেজ কোড-৮৭৩১
চেয়ারম্যানকর্ণেল-ইয়াসির জাহান হুসাইন, পিএসসি
প্রধান শিক্ষকনুর কতুবুল আলম
কর্মকর্তা
শিক্ষকমণ্ডলী৪০
কর্মচারী
শ্রেণীপ্লে-দশম
Years offeredজানুয়ারী-ডিসেম্বর
লিঙ্গসহশিক্ষা
শিক্ষার্থী সংখ্যা১২০০+
ভাষার মাধ্যমবাংলা
ক্যাম্পাসসমূহ১টি
শিক্ষায়তনআয়তাক্ষেত্র
আয়তন১৩০ শতক
ক্যাম্পাসের ধরনঅনাবাসিক
ক্রীড়াফুটবল, ক্রিকেট ইত্যাদি
ওয়েবসাইট

বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর বাংলাদেশের রংপুর সিওবাজারের উত্তরে অবস্থিত একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বিদ্যালয়টি বিজিবি নিয়ন্ত্রিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে পরিচিত।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

স্কুলটি ১৯৯৬ সালের ১৫ এপ্রিল প্রতিষ্টিত হয়। প্রথমে প্লে, নার্সারী, কেজি-১ এবং কেজি-২ দিয়ে শুরু হয় । ১৯৯৮ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারী দশম শ্রেনি খোলা হয় এবং ২০১২ সালে কলেজ খোলা হয়। প্রতিষ্ঠানটি খোলার ব্যপারে বিজিবি, রংপুরে অবদান । কলেজে সাধারণ পাবলিকের ছেলে-মেয়েরাও ভর্তি হতে পারে।[২]

অবস্থান[সম্পাদনা]

রংপুর শহরের পশ্চিমে সিওবাজার থেকে ১০০০ গজ উত্তরে অবস্থিত। এ এলাকাকে সরদার পাড়াও বলা হয়।[২]

অবকাঠামো[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়টিতে রয়েছে সুপরিসর মাঠ, ৩ তলা ভবন, ৪ তলা ভবন, সমৃদ্ধ পাঠাগার, কম্পিউটার ল্যাব, বিজ্ঞানাগার। রয়েছে অধ্যক্ষের কার্যালয়, সুসজ্জিত শিক্ষক বিশ্রামাগার। জাতীয় চেতনার বিকাশে আছে শহীদ মিনার।[২]

শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

এ বিদ্যালয়টিতে প্লে থেকে দ্বাদশ শ্রেনি পর্যন্ত কার্যক্রম চালু আছে। নবম-দশম শ্রেনিতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষায় পাঠদান করা হয়। রয়েছে এ্যাকাডেমিক কেলেন্ডার।ডিজিটাল পদ্ধতিতে ক্লাস নেয়ার ব্যবস্থা আছে। [২] ফলাফল জেএসসি প্রায় ১০০%, এসএসসি প্রায় ১০০% এবং এইচএসসি প্রায় ৯৬%।[৩] বিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের যাবতীয় তথ্য জানার ব্যবস্থা আছে।[২]

প্রমোশন পদ্ধতি হচ্ছে-

  1. কেজি থেকে ৯ম শ্রেণি টিউটোরিয়াল পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ২৫% এবং চূড়ান্ত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ৭৫% যোগ করে চূড়ান্ত ফলাফল তৈরী করা হয় এবং উক্ত ফলাফলের উপর প্রমোশন নির্ভর করে।
  2. দশম শ্রেণি প্রাক-নির্বাচনী ও নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে এস,এস,সি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের অনুমোতি প্রদান করা হয়।
  3. একাদশ/দ্বাদশ শ্রেণি প্রাক-নির্বাচনী ও নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে এইচ,এস,সি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের অনুমোতি প্রদান করা হয়।
  4. কেজি থেকে একাদশ শ্রেণির কোন ছাত্র-ছাত্রী একটি বিষয়ে অকৃতকার্য হলে তাকে পরবর্তী শ্রেনিতে প্রমোশন দেওয়া হবেনা।
  5. পরিক্ষায় পাসের নম্বর সকল শ্রেণির জন্য শতকরা ৩৯ নম্বর পেতে হবে।[২]

শিক্ষার সুষ্টু পরিবেশের জন্য রয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নিয়ম। যেমন-

  1. ছাত্রদের চুল এক ইঞ্চি অপেক্ষা রাখা যাবেনা। চুল কানের পাতা স্পর্শ করবেনা । চিপ ছোট হবে।
  2. ছাত্রিদের চুল খলা রাখা,পাম্প করা বা কন প্রকার রং করা/চোখের রং পরিবর্তনের জন্য কসমেটিক লেন্স ব্যবহার করা, ভ্রূ তোলা যাবেনা। দুই বেণি করে আসতে হবে।
  3. বড় আকৃতির ঘড়ি,বেমানান বেল্ট পরা,মোজা ছাড়া জুতা পরিধান করা যাবেনা।
  4. কালো বেল্ট ব্যবহার করতে হবে।
  5. ব্যাগ ঘাড়ে আনতে হবে,ঝুলিয়ে আনা যাবে না।[২]

এছাড়াও রয়েছে অভিভাবকবৃন্দের জন্য নিয়ম। যেমন-

  1. আপনার মূল্যবান সময়ের কিছু অংশ আপনার সন্তানকে লেখাপড়া ও দৈনন্দিন কর্মকান্ডের বিষয় সম্পর্কে জানার পিছনে ব্যয় করুন যাতে ভবিষ্যতে সে নীতি,আদর্শ ও নৈতিক মূল্যবোধে অনুপ্রাণিত হয়।
  2. পরিবার হচ্ছে সুনাগরিক গড়ে তলার সুতিকাগার । নিয়মানুবর্তিতা,শৃংখলা,সাদাচারণ সহ সকল মানবিক গ্ণাবলী আমরা পরিবার থেকেই পেতে পারি। আপনার সন্তাঙ্কে সেই ভাবে গড়ে তলার দায়িত্ব নিন।
  3. ডায়েরি আপনার সন্তানের লেখাপড়া ও অন্যান্য বিষ্যের অগ্রগতি দর্পন। নিয়মিত ডায়েরি পর্যবেক্ষণ করুন ।
  4. সপ্তাহে কমপক্ষে একদিন সরাসরি প্রতিষ্ঠানে এসে বা মোবাইল ফোনে আপনার সন্তানের বিষয়ে শ্রেণি শিক্ষকের সাথে কথা বলুন।
  5. আপনার সন্তানের সুন্দর জীবন গড়ে তলার লক্ষ্যে আপনার মূল্যবান পরামর্শ ও সহযোগীতা এক্তান্তভাবে কাম্য।[২]

পোশাক[সম্পাদনা]

শিক্ষক, স্টাপদের জন্য রয়েছে নির্ধারিত পোশাক। আর ছাত্রীদের গ্রীষ্মকালীন পোষাকঃ (৫ম শেণি পর্যন্ত)

  1. নেভী বুলু কালারের হাফ হাতা বেবি কলার সোল্ডার সহ কামিজ
  2. সাদা এপ্রোন (ক্লাপ্সহ থ্রি কয়ার্টার হাতা)
  3. সাদা সালোয়ার,ওড়না ও নেভী বুলু কাপড়ের বেল্ট
  4. এপ্লোট
  5. নেম ট্যাগ (ডান পকেটে)
  6. আইডি কার্ড (রিবন সহ)
  7. মনগ্রাম
  8. ছাত্রীদের শীতকালীন পোষাকঃ (৫ম শ্রেণি থেকে ১২শ শ্রেণি পর্যন্ত)

গ্রিষ্মকালীন পোষাকের অনুরুপ,নেভি বুলু সোয়েটার।

  1. ছাত্রীদের শীতকা্লীন পোষাকঃ (কেজি থেকে ৪র্থ শ্রেণি পর্যন্ত)

গ্রিষ্মকালীন পোষাকের অনুরুপ,নেভি বুলু সোয়েটার।

  1. ছাত্রদের শীতকালীন পোষাকঃ (কেজি থেকে ১২শ শ্রেণি পর্যন্ত)

গ্রিষ্মকালীন পোষাকের অনুরুপ,নেভি বুলু সোয়েটার।

  1. ছাত্রদের গ্রীষ্মকালীন পোষাকঃ(কেজি থেকে ১২শ শ্রেণি পর্যন্ত)

গ্রিষ্মকালীন পোষাকের অনুরুপ,নেভী বুলু প্যান্ট ও নেভী বুলু সোয়েটার।[২]


অর্জন[সম্পাদনা]

বিভিন্ন সময়ে চিত্রাঙ্কন, বিতর্ক, আবৃত্তি, রচনাসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ করে থানা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে সাফল্য আছে।

অন্যান্য[সম্পাদনা]

এখানে রয়েছে-

  1. স্কাউট
  2. বিএনসিসি
  3. ডিবেট [২]

প্রকাশনা[সম্পাদনা]

বাৎসরিক ভাবে “স্প্রাউট” নামে একটি ম্যাগাজিন বের হয়।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ"www.bgb.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০৮ 
  2. Arefin, Samsil। "Border Guard Public School & College, Rangpur – CO Bazar, BGB Sector Head Quarter, Rangpur" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০৮ 
  3. "Border Guard Bangladesh Public School And College, Rangpur - Sohopathi | সহপাঠী" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৭-০৮