ফ্রেদেরিক বাজিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রেদেরিক বাজিল, আত্মপ্রতিকৃতি, ১৮৬৫-১৮৬৬, তৈলচিত্র, শিকাগো আর্ট ইনস্টিটিউট

জঁ ফ্রেদেরিক বাজিল (ফরাসি: Jean Frédéric Bazille) (৬ ডিসেম্বর,১৮৪১ - ২৮ নভেম্বর, ১৮৭০) ছিলেন ফরাসি চিত্রকর এবং উনিশ শতকের শেষের দিকের ইমপ্রেশনিজ্‌ম আন্দোলনের অন্যতম শিল্পী। ফরাসি-প্রুশীয় যুদ্ধে মাত্র ২৮ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। ফ্রান্সের মোঁপলিয়ে শহরের একটি সম্ভ্রান্ত প্রোটেস্ট্যান্ট পরিবারে জঁ ফ্রেদেরিক বাজিলের জন্ম হয়। শিল্পী ওজেন দোলাক্রোয়া'র কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি চিত্রাঙ্কনের ব্যাপারে কৌতূহলি হন। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে চিত্রশিল্প বিষয়ে পড়াশোনার অনুমতি পান এই শর্তে যে, তাকে চিকিত্‌সাবিদ্যা নিয়েও পড়াশোনা করতে হবে।

কর্ম জীবন[সম্পাদনা]

১৯৫৯ সালে ১৮ বছর বয়সে বাজিল চিকিত্‌সাবিদ্যা বিষয়ে পড়াশোনা শুরু করেন। ১৮৬২ সালে প্যারিসে পড়াশোনা চালিয়ে যাবার জন্য চলে আসেন। সেখানেই পিয়ের ওগুস্ত রনোয়ার এবং আলফ্রেদ সিসলে'র সাথে তার পরিচয় ঘটে। এখানে তিনি ইম্প্রেশনিস্ট পেইন্টিং শুরু করেন এবং 'শার্ল গ্লেইয়েরের স্টুডিও' তে (Charles Gleyere's Studio) ক্লাস নেয়া শুরু করেন। ১৮৬৪ সালে চিকিত্‌সাবিদ্যা বিষয়ে অকৃতকার্য হবার পর পুরো সময়টুকুই চিত্রাঙ্কনের পেছনে ব্যয় করেন। সহশিল্পী হিসেবে ক্লোদ মনে, আলফ্রেদ সিসলে এবং এদুয়ার মানে'র মতো শিল্পীদের পান। উল্লেখ্য পরিবারের পৃষ্ঠপোষকতায় বাজিল বাসাতে একটি স্টুডিও তৈরী করেন। বাজিল তার নিজ সম্পদের ব্যাপারে উদারভাবাপন্ন ছিলেন। সে সুবাদে তার বন্ধুরা সরাসরি স্টুডিও এবং বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহারের দ্বারা সরাসরি উপকৃত হতেন।

জঁ ফ্রেদেরিক বাজিল যেসব কাজের জন্য পরিচিত; সে কাজগুলো করবার সময় তার বয়স ছিল মাত্র ২৩ বছর। এর মধ্যে গোলাপী জামা (ফরাসি La Robe rose; আনু. ১৮৬৪, মুজে দর্সে, প্যারিস) উল্লেখযোগ্য। এই প্রতিকৃতিটি ছিল মূলত বাজিলের এক আত্মীয়ার প্রতিকৃতি। তার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কাজ হলো Family Reunion of 1867–1868 (মুজে দর্সে, প্যারিস)।

১৮৭০ সালের অগাস্ট মাসে তিনি "জুয়াভ (Zouave) রেজিমেন্ট"-এ যোগ দেন। এর মাসখানেক পরেই ফরাসি-প্রুশীয় যুদ্ধ আরম্ভ হয়। নভেম্বর মাসের ২৮ তারিখে বোন-লা-রোলঁদ-এর যুদ্ধে (Battle of Beaune-la-Rolande) বাজিল যখন তার ইউনিটের সাথে ছিলেন, তখন তার অফিসার আহত হন। ফলে বাজিলকে সৈন্যদলের দায়িত্ব নিতে হয়। নেতৃত্ব পাবার পর তিনি জার্মান সৈন্যদের বিপরীতে পর পর দুইবার হামলা পরিচালনা করেন। সামনে থেকে নেতৃত্ব দেবার সময় হঠাৎ শত্রুপক্ষের হাতে জঁ ফ্রেদেরিক বাজিল মারা যান। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ২৮ বছর। কিছুদিন বাদে তার পিতা যুদ্ধের ময়দান থেকে বাজিলের মৃতদেহ নিয়ে আসেন এবং তারও কয়েক সপ্তাহ পরে বাজিলের জন্মস্থান মোঁপলিয়ে শহরে সমাধিস্থ করেন।

উল্লেখযোগ্য কাজ[সম্পাদনা]

  • La Robe rose, (১৮৬৪) - ১৪৭ x ১১০ সেঃমি
  • Atelier de la rue Furstenberg, - ৮০ x ৬৫ সেঃমি
  • Aigues-Mortes, - ৪৬x ৫৫ সেঃমি
  • Autoportrait (১৮৬৫) - ১০৯x৭২ সেঃমি
  • Réunion de Famille, (১৮৬৭) - ১৫২ x ২৩০ সেঃমি
  • Le Pécheur à l'épervier, (১৮৬৮) - ১৩৪ x ৮৩ সেঃমি
  • Vue de village, (১৮৬৮) - ১৩০ x৮৯ সেঃমি
  • Scène d'été, (১৮৬৯) - ১৫৮ x ১৫৮ সেঃমি
  • La Toilette, (১৮৭০) - ১৩২ x ১২৭ সেঃমি
  • L'Atelier de la rue Condamine, (১৮৭০) - ৯৮ x ১২৮.5 সেঃমি
  • Paysage au bord du Lez, (১৮৭০) - ১৩৭.৪ x ২০২.৫ সেঃমি

নির্বাচিত চিত্রাংকন[সম্পাদনা]

Pierre-Auguste Renoir, Frederic Bazille painting The Heron

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

Pitman, Dianne W. (1998). Bazille: Purity, Pose and Painting in the 1860s. University Park: Penn State University Press. আইএসবিএন ৯৭৮-০-২৭১-০১৭০০-৬. Rosenblum, Robert (1989). Paintings in the Musée d'Orsay. New York: Stewart, Tabori & Chang. আইএসবিএন ১-৫৫৬৭০-০৯৯-৭

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

Gallery at MuseumSyndicate[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ] Impressionism: a centenary exhibition[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ], an exhibition catalog from The Metropolitan Museum of Art , which contains material on Bazille (p. 37-39)