প্রথম শূরপাল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

প্রথম শূরপাল পাল সাম্রাজ্যের পঞ্চম সম্রাট ছিলেন। গরুড়স্তম্ভলিপিতে প্রথম শূরপালের উল্লেখ পাওয়া যায়।[n ১]

দেবপালের উত্তরাধিকারী বিতর্ক[সম্পাদনা]

ঐতিহাসিকেরা দেবপালের পরবর্তী পাল সম্রাট হিসেবে প্রথম শূরপাল বা প্রথম বিগ্রহপালের উল্লেখ করতেন।[২]:১৩৪ কিন্তু ১৯৮৭ খ্রিষ্টাব্দের ১৩ই মার্চ জগজ্জীবনপুর নামক স্থানে প্রাপ্ত মহেন্দ্রপালের একটি তাম্রশাসন থেকে জানা যায়, দেবপালের পুত্র ও উত্তরাধিকারী হিসেবে মহেন্দ্রপাল পরবর্তী সম্রাট হিসেবে সিংহাসনে আরোহণ করেন।[৩] তাম্রশাসনটিতে মহেন্দ্রপালের কনিষ্ঠ ভ্রাতা হিসেবে প্রথম শূরপালের নাম রয়েছে,[৪] যিনি মহেন্দ্রপালের পরবর্তী সম্রাট হিসেবে সিংহাসনে আরোহণ করেন। [৫]

প্রথম শূরপাল ও প্রথম বিগ্রহপাল বিতর্ক[সম্পাদনা]

পূর্বে রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়, অক্ষয়কুমার মৈত্রেয় প্রভৃতি ঐতিহাসিকেরা মনে করতেন যে, প্রথম শূরপাল এবং প্রথম বিগ্রহপাল একই ব্যক্তি।[২]:১৩৪, ১৩৫ কিন্তু ১৯৭০ খ্রিষ্টাব্দে মির্জাপুর জেলায় আবিষ্কৃত তাম্রশাসন থেকে জানা যায় যে, তাঁরা দুজনে খুল্লতাত ভ্রাতা ছিলেন। তাঁরা একই সময় দুইটি পৃথক স্থানে রাজত্ব করতেন না বিভিন্ন সময়ে রাজত্ব করতেন সেই নিয়ে ঐতিহাসিকদের মধ্যে দ্বিমত রয়েছে।[৬]:৩২–৩৭ তবে যেহেতু প্রথম শূরপালের কোন বংশধরের কথা জানা যায় না এবং পাল সাম্রাজ্যের পরবর্তী সম্রাটেরা সকলেই প্রথম বিগ্রহপালের উত্তরাধিকারী ছিলেন, সেহেতু মনে করা হয়, উত্তরাধিকারী না থাকায় শান্তিপূর্ণভাবেই হোক, বা বলপূর্বকই হোক, প্রথম শূরপালকে সরিয়ে প্রথম বিগ্রহপাল সিংহাসনে আরোহণ করেন।[৭]

রাজত্বকাল[সম্পাদনা]

রমেশচন্দ্র মজুমদার ৮৫০ থেকে ৮৫৩ খ্রিষ্টাব্দে[৮], আবদুল মোমিন চৌধুরী ৮৬১ থেকে ৮৬৬ খ্রিষ্টাব্দে[৯], বিন্দেশ্বরী প্রসাদ সিনহা ৮৬০ থেকে ৮৬৫ খ্রিষ্টাব্দে[১০] এবং দীনেশচন্দ্র সরকার ৮৫০ থেকে ৮৫৮ খ্রিষ্টাব্দে[১১] প্রথম শূরপালের রাজত্বের সময়কালকে নির্ণয় করেছেন। এর মধ্যে প্রথম তিনজন মনে করেন প্রথম শূরপাল ও প্রথম বিগ্রহপাল একই সময়ে পৃথক স্থানে রাজত্ব করতেন।

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. যস্যেজাসু বৃহস্পতিপ্রতিকৃতেঃ শ্রীশূরপালো নৃপঃ
    সাক্ষাদিন্দ্র ইব ক্ষতাপ্রিয়বলো গত্বৈব ভূয়ঃ স্বয়ং।
    নানাম্ভোনিধিমেখলস্য জগতঃ কল্যাণসঙ্গী চিরং
    শ্রধাম্ভঃপ্লুতমানসো নতশিরা জগ্রাহ পূতম্পয়ঃ।।
    [১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. গৌড়লেখমালা, পৃঃ ৭৪
  2. রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়, বাঙ্গালার ইতিহাস, প্রকাশক- দে’জ পাবলিশিং, ১৩, বঙ্কিম চ্যাটার্জি স্ট্রিট, কলকাতা-৭৩, প্রথম দে’জ অখণ্ড সংস্করণ, জানুয়ারী, ২০০৮, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-২৯৫-০৭৯১-৪
  3. Debala Mitra; Gouriswar Bhattacharya (১৯৯১)। Akṣayanīvī: Essays Presented to Dr. Debala Mitra in Admiration of Her Scholarly Contributions। Sri Satguru Publications। আইএসবিএন 978-81-7030-275-9 
  4. Niharranjan Ray; Brajadulal Chattopadhyaya (১ জানুয়ারি ২০০০)। A Sourcebook of Indian Civilization। Orient Blackswan। পৃষ্ঠা 621–623। আইএসবিএন 978-81-250-1871-1 
  5. Paresh Chandra Das Gupta; Asok Kumar Datta (১ জানুয়ারি ১৯৯১)। Studies in Archaeology: Papers Presented in Memory of P.C. Dasgupta। Books & Books। আইএসবিএন 978-81-85016-29-0 
  6. Susan L. Huntington (১ জানুয়ারি ১৯৮৪)। The "Påala-Sena" Schools of Sculpture। Brill Archive। আইএসবিএন 90-04-06856-2 
  7. Dilip Kumar Ganguly (১ জানুয়ারি ১৯৯৪)। Ancient India, History and Archaeology। Abhinav Publications। পৃষ্ঠা 29। আইএসবিএন 978-81-7017-304-5 
  8. Ramesh Chandra Majumder, History of Ancient Bengal, pp. 161-162, 1971
  9. Abdul Momin Chowdhury (১৯৬৭)। Dynastic history of Bengal, c. 750-1200 CE। Asiatic Society of Pakistan। পৃষ্ঠা 272–273। 
  10. Bindeshwari Prasad Sinha (১ জানুয়ারি ১৯৭৭)। Dynastic History of Magadha, Cir. 450-1200 A.D.। Abhinav Publications। পৃষ্ঠা 253–। GGKEY:KR1EJ2EGCTJ। 
  11. Dineshchandra Sircar (১৯৭৫–৭৬)। "Indological Notes - R.C. Majumdar's Chronology of the Pala Kings"। Journal of Indian HistoryIX: 209–10। 
পূর্বসূরী
মহেন্দ্রপাল
পাল সম্রাট
প্রথম শূরপাল
উত্তরসূরী
প্রথম বিগ্রহপাল