প্রণব ভট্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

প্রণব ভট্ট বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় ঔপন্যাসিক ছিলেন। তার আবির্ভাব ১৯৯০ দশকের মাঝামাঝি ভাগে। টেলিভিশনের জন্য ধারাবহিক নাটক লিখে তিনি সাহিত্যামোদী মানুষের দৃষ্টি আর্কষণ করতে সক্ষম হন। তিনি চাকুরী সূত্রে কাস্টমস ও ইক্সাইজ বিভাগে কর্মরত ছিলেন। ২০০৭ খ্রিষ্টাব্দে তার অকাল প্রয়াণ হয়।[১]

শৈশব ও শিক্ষা[সম্পাদনা]

জন্ম ৫ জানুয়ারি, ১৯৫০। নােয়াখালীর মাইজদীতে। শিক্ষাগত যােগ্যতা স্নাতকোত্তর।

সাহিত্যকৃতি ও প্রকাশনা[সম্পাদনা]

প্রকাশিত গ্রন্থের সংখ্যা ত্রিশের ওপরে। উল্লেখযােগ্য গ্রন্থ প্রেয়সী, বলাে তুমি কার, অভিমানী, অন্তরে তুমি, বাতিল ইত্যাদি। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের জন্য নাটক রচনা করেছেন অসংখ্য। উল্লেখযােগ্য নাটক— ‘সােনার কাকন’, ‘আংটি', 'বন্যার চোখে জল', ‘হিয়ার মাঝে।

তিনি কতটা নাট্যকার, কতটা কথাসাহিত্যিক- এ প্রশ্নের উত্তর হয়তাে তিনি নিজেও জানেন না। তার সফলতা নাটকে যতটা উপন্যাস-গল্পেও ততটাই। উপন্যাস, বিশেষত প্রেমের উপন্যাসে তিনি একটি নিজস্ব গতিময় সাবলীল ধারা তৈরি করেছেন। পাঠকরাও পছন্দ করেছে তার এই গতিময় গদ্যরীতি। প্রেমের উপন্যাস লিখলেও সেখানে জীবন, বিশেষত জীবনের নানা জটিলতা, দৈন্য, ঘাতপ্রতিঘাত পরিস্ফুট থাকে। চলমান জীবনের নানা অসঙ্গতিও তিনি বলেন তার কাহিনীতে সাবলীল ভাষায় ।

পুরস্কার ও স্বীকৃতি[সম্পাদনা]


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. আলম, মাহবুবুল (ফেব্রুয়ারি ২০০৯)। বাংলাদেশের সাহিত্য। ঢাকা, বাংলাদেশ। পৃষ্ঠা ৩৫৫।