পেটিকোট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Practical Designer - Woman's Five Gore Petticoat.jpg

পেটিকোট মেয়েদের একধরনের বিশেষ পোষাকের নাম যা শাড়ি বা স্কার্টের সাথে পরা হয়। এর সুনির্দিষ্ট অর্থ শতাব্দী ও দেশভেদে পরিবর্তিত হয়। ভারতীয় উপমহাদেশে, কোমরের নিচের অংশ আবৃত্ত করার জন্য ৬ টুকরা কাপড় দিয়ে বৃত্তাকার লুঙ্গির মতো করে তৈরি করা হয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন][১]

পরিভাষা[সম্পাদনা]

কখনও কখনও পেটিকোটকে কোমর স্লিপ বা আন্ডারস্কার্ট (যুক্তরাজ্য-এ ) বা হাফ স্লিপ (মার্কিন-এ ) বলা যেতে পারে, পেটিকোট অত্যন্ত পরিপূর্ণ পোশাকের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। একটি কেমিস কাঁধ থেকে ঝুলছে। পেটিকোট যুক্তরাজ্যের একটি পূর্ণ দৈর্ঘ্যের স্লিপকেও উল্লেখ করতে পারে, যদিও এই ব্যবহারটি কিছুটা পুরানো।

ভারতীয় পেটিকোট[সম্পাদনা]

এটি শাড়ির সাথে পরা মূল অন্তর্বাস। শাড়ি পেটিকোটগুলি সাধারণত শাড়ির রঙের সাথে মেলে এবং এটি সাটিন বা সুতির তৈরি হয়। পশ্চিমা পেটিকোট এবং শাড়ি পেটিকোটের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পার্থক্যগুলির মধ্যে রয়েছে যে পরবর্তীকটি গোড়ালি দৈর্ঘ্যের চেয়ে খুব কমই ছোট এবং সর্বদা কোমর থেকে নীচে পরা থাকে। ভারতে একে একে অভ্যন্তর স্কার্ট বা ইনস্কার্টও বলা হয়।

শেপওয়্যার পেটিকোট[সম্পাদনা]

একটি শেপওয়্যার পেটিকোট হ'ল একটি অন্তর্বাস যা পরনকারীদের দেহের আকৃতিতে ফ্যাশনেবল ব্যক্তিত্ব হিসাবে কিছু দৃষ্টিভঙ্গি অর্জন করতে স্থায়ীভাবে পরিবর্তনের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে । এর কাজটি দেহের নিম্নাংশকে আরও উপস্থাপনীয় দেখানোর জন্য করা হয়।

পরিধান[সম্পাদনা]

পেটিকোট বাছার সময় কিছু বিষয়গুলি নজর রাখা হয় :

  • গোড়ালির একটু উপর পর্যন্ত দৈর্ঘ্যের পেটিকোট নির্বাচন । শাড়ির ঝুল পেটিকোটের থেকে আধ ইঞ্চি বেশি হতে হয়।
  • পেটিকোট দড়ি দিয়ে বাঁধার নিয়ম থাকে। এখন চেইন বা জিপার দেওয়া বা হুক লাগানো পেটিকোট পাওয়া যায়।
  • পেটিকোটের সঠিক রঙ নির্বাচন করাটা ব্লাউজ বাছাইয়ের মতোই গুরুত্বপূর্ণ। শাড়ির বেস কালারের সঙ্গে মানানসই পেটিকোট বেছে নেওয়া হয় । অনেকে শাড়ির সঙ্গে কনট্রাস্ট রঙের পেটিকোটও পরেন ।

শাড়ি ক্যান্সার[সম্পাদনা]

দীর্ঘদিন ধরে আঁটোসাঁটো করে পেটিকোট পরার অভ্যাস থাকলে সাবধান। চিকিত্‍সকরা জানাচ্ছেন, বহু বছর ধরে খুব শক্ত করে পেটিকোটর দড়ি বাঁধলে হতে পারে প্রাণঘাতী ক্যান্সার!চিকিত্‍সকদের মতে, দীর্ঘ দিন ধরে পেটিকোটের দড়ি অত্যন্ত শক্ত করে বাঁধার ফলে ত্বকে চুলকানি ও ক্ষত তৈরি হয়। দিনের পর দিন তা উপেক্ষা করার ফলে শেষ পর্যন্ত মারাত্মক ত্বকের ক্যান্সার দেখা দেয়। উপসর্গটিকে 'শাড়ি ক্যান্সার' নাম দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। [২]

কল্পকথা[সম্পাদনা]

পেটিকোট প্রশিক্ষণ[সম্পাদনা]

পেটিকোট প্রশিক্ষণটি মনস্তাত্ত্বিক মাইন্ড কন্ট্রোলের একটি প্রাচীন-কালীন পদ্ধতির উল্লেখ করে, ১৯৬০ এবং ১৯৭০ এর দশকে বেশান্তর কল্পকাহিনীকে জনপ্রিয় করে তোলে।

সাধারণত কোনও স্ত্রী কোনও দুর্ব্যবহারকারী স্বামীকে নিয়ন্ত্রণ করতে এই পদ্ধতি ব্যবহার করেন বা একটি মা তার অবাধ্য ছেলের সাথে এটি ব্যবহার করেন।

কাহিনীসূত্রগুলি বর্ণনা করে যে , স্বস্তি না পেয়ে বছরের পর বছর দুর্ব্যবহারের পরেও একজন মা তার ছেলেকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য চূড়ান্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রয়োজন বোধ করতে পারেন। এটি সম্পাদন করার জন্য, তিনি তার ছেলের জন্য পেটিকোট প্রশিক্ষণ প্রক্রিয়া শুরু করেন। তাত্ক্ষণিকভাবে কার্যকর, পুত্রকে প্রতিদিন পেটিকোট পরতে বাধ্য করে একটি কন্যায় রূপান্তরিত করা হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]