নিজামাবাদ লোকসভা কেন্দ্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নিজামাবাদ লোকসভা কেন্দ্র
Telangana Wahlkreise Lok Sabha.svg
তেলেঙ্গানার লোকসভা কেন্দ্রসমূহ ও ৪ নং স্থানে নিজামাবাদ
অস্তিত্ব১৯৫২-বর্তমান
সংরক্ষণনেই
বর্তমান সাংসদঅরবিন্দ ধর্মপুরী
রাজনৈতিক দলভারতীয় জনতা পার্টি
নির্বাচনের বছর২০১৯
রাজ্যতেলেঙ্গানা
মোট ভোটদাতা১৪,৯৬,১৯৩ [১]
বিধানসভা কেন্দ্র৭ টি

নিজামাবাদ লোকসভা কেন্দ্রটি ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের ১৭ টি লোকসভা কেন্দ্রের একটি এবং ১৯৫২ সালে লোকসভা কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি অসংরক্ষিত একটি আসন এবং মোট ৭ টি বিধানসভা কেন্দ্র নিয়ে গঠিত। লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত এলাকার সরকারি ভাষা হল তেলুগু। এই লোকসভা কেন্দ্রে ২০১৪ সালে মোট ভোটার সংখ্যা ছিলো ১৪,৯৬,১৯৩ জন।

এই লোকসভা কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত সদস্য ভারতীয় সংসদের লোকসভাতে প্রতিনিধিত্ব করেন। প্রতি ৫ বছর অন্তর কেন্দ্রটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিশেষ করণে ৫ বছরের পূর্বেই নির্বাচন হয়, যা উপনির্বাচন নামে পরিচিত।

এই লোকসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানার নিজামাবাদ এবং জগিত্যাল জেলায় অবস্থিত বিধানসভা কেন্দ্রগুলি নিয়ে গঠিত।[২][৩][৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

নিজামাবাদ লোকসভা কেন্দ্রে ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দে প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এবং ২০১৯ সালে সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দ অবধি এটি হায়দ্রাবাদ রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত ছিলো পরে রাজ্য পুনর্গঠন আইনে এটি অবিভক্ত অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত হয়৷ [৫] ১৯৫২ খ্রিস্টাব্দের সংঘটিত প্রথম নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের শ্রী হরিশ্চন্দ্র হেড়া৷[৬] অন্ধ্রপ্রদেশ রাজ্যে অন্তর্ভুক্তির পর প্রথম (দ্বিতীয়) নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের শ্রী হরিশ্চন্দ্র হেড়া৷[৭] আবার তেলেঙ্গানা রাজ্য গঠনের পর প্রথম (ষোড়শ) নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির শ্রীমতি কে. কবিতা৷

বিধানসভা কেন্দ্র গুলি[সম্পাদনা]

লোকসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের ১১৯ টি[৮] বিধানসভা কেন্দ্রের মধ্যে ৭ টি নিয়ে গঠিত। বিধানসভা কেন্দ্রের নির্বাচিত সদস্য তেলেঙ্গানার বিধানসভাতে প্রতিনিধিত্ব করে। প্রতি ৫ বছর অন্তর কেন্দ্রটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই ৭ টি বিধানসভা কেন্দ্রে ইতিপূর্বে ২০১৪ সালে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। এই লোকসভা কেন্দ্রের প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্র অসংরক্ষিত আসন।[৯]

আরমুর বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ১১ নং বিধানসভা কেন্দ্র। এটি একটি অসংরক্ষিত আসন। এটি নিজামাবাদ জেলায় অবস্থিত৷

বোধন বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ১২ নং বিধানসভা কেন্দ্র৷ এটি নিজামাবাদ জেলায় অবস্থিত৷ একটি অসংরক্ষিত আসন৷

নিজামাবাদ শহর বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ১৭ নং বিধানসভা কেন্দ্র৷ এটি নিজামাবাদ জেলায় অবস্থিত৷ এটি একটি অসংরক্ষিত আসন।

নিজামাবাদ গ্রামীণ লোকসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ১৮ নং বিধানসভা কেন্দ্র৷ এটি নিজামাবাদ জেলায় অবস্থিত৷ এটি একটি অসংরক্ষিত আসন৷৷

বালকোণ্ডা বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ১৯ নং বিধানসভা কেন্দ্র। এটি একটি অসংরক্ষিত আসন। এটি নিজামাবাদ জেলায় অবস্থিত৷

কোরাকাটলা বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ২০ নং বিধানসভা কেন্দ্র৷ এটি জগিত্যাল জেলায় অবস্থিত৷ এটি একটি অসংরক্ষিত আসন৷

জগিত্যাল বিধানসভা কেন্দ্র

এই বিধানসভা কেন্দ্রটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের বিধানসভা কেন্দ্রগুলির মধ্যে ২১ নং বিধানসভা কেন্দ্র৷ এটি জগিত্যাল জেলায় অবস্থিত৷ এটি একটি অসংরক্ষিত আসন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.news18.com/amp/lok-sabha-elections-2019/telangana/nizamabad-election-result-s29p04/
  2. "Delimitation of Parliamentary and Assembly Constituencies Order, 2008" (PDF)The Election Commission of India। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮। পৃষ্ঠা 30। ৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৯ 
  3. https://myneta.info/telangana2018/
  4. https://ceotelangana.nic.in/
  5. "Reorganisation of states" (PDF)। Economic Weekly। 
  6. "1st Lok Sabha"। Lok Sabha। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৬ 
  7. "2nd Lok Sabha"। Lok Sabha। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৬ 
  8. "Members of Legislative Assembly"Telangana State Portal। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-০৬ 
  9. "Assembly Constituencies - Corresponding Districts and Parliamentary Constituencies" (PDF)Manipur। Election Commission of India। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-১০-০৭ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]