নালিন পেকগুল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নালিন পেকগুল
NALIN PEKGUL 2.jpg
২০০৭ সালে নালিন পেকগুল
জন্ম১৯৬৭ (বয়স ৫১–৫২)
বাতমান, তুরস্ক
জাতীয়তাকুর্দি, সুইডিশ
পেশারাজনীতিবিদ
কার্যকাল১৯৯৪ - বর্তমান
যে জন্য পরিচিতসুইডিশ আইনসভার সাবেক সদস্য

নালিন পেকগুল (সোরানি কুর্দিশ:نالین پەکگوڵ) (জন্ম ৩০ এপ্রিল ১৯৬৭) হলেন একজন সুইডিশ নার্স,রাজনীতিবিদ, যিনি সুইডিশ সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির রাজনীতির সাথে যুক্ত আছেন। তিনি সুইডিশ আইনসভার সাবেক সদস্য। তিনি প্রথম মুসলিম নারী হিসেবে সুইডিশ আইনসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

জীবনী[সম্পাদনা]

নালিন পেকগুল তুরস্কের বাতমানে ১৯৬৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি কুর্দি জাতীয়তাবাদী নেতা কুর্দো বকশির বোন এবং লেখক মাহমুত বকশির ভাগ্নি।

১৯৮০ সালে তিনি তার পরিবারের সাথে সুইডেনে চলে আসেন। তখন তার বয়স ছিল তের বছর। তিনি নার্সিং এর প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

রাজনীতিতে আসার পূর্বে নালিন পেকগুল নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ১৯৮২ সালে সুইডিশ সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক ইয়ুথ অ্যাসোসিয়েশনে যোগ দেন। তিনি সুইডিশ সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির নারী শাখার প্রধান হিসেবে ২০০৩ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেছেন।[১] নালিন পেকগুল ছিলেন সুইডিশ আইনসভার প্রথম মুসলিম নারী সদস্য।[২]

নালিন পেকগুল ইসলামের উদারপন্থী মতবাদ ও ইসলামি নারীবাদ সমর্থন করেন।[১] তিনি সুইডিশ রাজতন্ত্রের সমর্থক।[৩]

সুইডিশ সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির নারী শাখার প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে তিনি সাত বছর রাজনীতিতে অনুপস্থিত ছিলেন। তিনি ২০১৮ সালে ঘোষণা দিয়েছিলেন যে, তিনি রাজনীতিতে ফিরে আসবেন এবং ধর্মীয় উগ্রপন্থা ও সৌহার্দ্যপূর্ণ সংস্কৃতি নিয়ে প্রচারাভিযান চালাবেন।[৪][৫] এরপর, তিনি দেশটির গোথেনবার্গে সেখাকার মিউনিসিপাল কাউন্সিল প্রধান অ্যান সোফি হারমানসনের সাথে ধর্মীয় উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে প্রচারাভিযান চালিয়েছিলেন।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ""Jag utmanar starka krafter""www.dagenssamhalle.se (সুইডিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৪-০২ 
  2. "Nalin Pekgul gör politisk comeback"Aftonbladet (সুইডিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-২৮ 
  3. SvenskPolitik1 (২০১৩-০৭-৩১), Ekots lördagsintervju 2006 - Nalin Pekgul (S), সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-২৫ 
  4. Joelsson, Filip। "Nalin Pekgul gör politisk comeback – ska bekämpa extremism"Metro (সুইডিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-২৫ 
  5. "Avgående S-profilen tog kamp mot extremism"www.varldenidag.se (সুইডিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৩-২৮