নাওয়াল আল জঘবি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নাওয়াল আল Zoghbi ( আরবি: نوال الزغبي‎‎ ; জন্ম ২৯ জুন ১৯৭১ [১]) ) লেবাননের একজন পপ গায়িকা। আরব বিশ্ব জুড়ে তার একটি ভক্ত সম্প্রদায় আছে এবং উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপের আরব প্রবাসীদের মধ্যে সমর্থকবৃন্দ আছে। তার সঙ্গিত জীবন ২৫ বছরের উপর বিস্তৃতী লাভ করেছে।

তিনি পপ ভাবপ্রবনতার সাথে ঐতিহ্যগত আরবি সংগীত গেয়ে এবং পরে উপসাগরীয় উপভাষায় গান গেয়ে এবং আরব সঙ্গীতে নতুন প্রবণতা গ্রহণের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। তিনি প্রাচ্যজগতের অড যন্ত্রটি বাজান, কিন্তু তিনি মনে করেন যে এটি মহিলাদের দেহের উপযুক্ত নয়। তিনি 90-এর দশকে আরব পপ মিউজিকের মিউজিক ভিডিওগুলির জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগান যা তাকে আরব বিশ্বের স্থানীয় তারকা খ্যাতি এনে দিয়েছিল।[২]

জীবনী[সম্পাদনা]

নওয়াজ জর্জ আল জগবি একজন লেবাননের গায়িকা। তিনি উপকূলীয় ছোট শহর জাল এল ডিবে একটি ম্যারোনাইট খ্রিস্টান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন, তার কানাডিয়ান নাগরিকত্ব আছে। আল জগবি দুই ভাই এবং এক বোন মধ্যে সবচেয়ে বড়। [৩] একজন সঙ্গীতজ্ঞের জীবনধারা নিয়ে পারিবারিক বিরোধিতা সত্ত্বেও, আল জগবি অল্প বয়সে গাইতে শুরু করেছিলেন। তার পরিবারের সদস্যরা তাদের মত পরিবর্তন করেছিল যখন তারা বুঝতে পেরেছিল যে সে তার লক্ষে আন্তরিক। ১৯৮৮ সালে তিনি লেবানিজ প্রতিভা অন্বেষনের শো স্টুডিও এল ফ্যানে অংশগ্রহণ করেন।১৯৯০ সালে তিনি লেবাননের সঙ্গীত পরিচালক এলি দেবকে বিয়ে করেন এবং তার ঔরষে তিন সন্তানের জন্ম দেন। ২008 সালেে এই দম্পতি আইনীভাবে আলাদা হয়ে গিয়েছিল এবং আল জোগবি ম্যারোনাইট চার্চ কর্তৃক তাদের তালাক এর স্বীকৃতির জন্য তিন বছর অপেক্ষা করেছিলেন। [৪][৫][৬][৭] ২009 সালের শেষের দিকে আল জগভী কে তার তিন সন্তানের হেফাজত দেওয়া হয়েছিল [৮][৯] এবং মার্চ 2011 সালে, তার বিবাহবিচ্ছেদ আনুষ্ঠানিকভাবে বৈধ করা হয়েছিল।[১০]

সংগীত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৮৮-১৯৯২  খ্যাতি লাভ[সম্পাদনা]

১৯৮৮ সালে, নাওয়াল প্রতিভা প্রদর্শনী অন্বেষনকারী শো স্টুডিও এল ফ্যান এ অংশ নেন যেখানে তিনি "তারাব" গান গেয়ে দুর্দান্ত কন্ঠের পরিচয় দেন এবং তখনকার শো এর পরিচালক "সাইমন এল আসমার" এর নজরে পড়েন। যাই হোক, নওয়াল প্রতিভা অন্বেষন শো থেকে নাম প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেন।

১৯৯৪-২০০২:তারকা খ্যাতি[সম্পাদনা]

বৈপ্লবিক ভিডিও ক্লিপ,চেহারা ও স্টাইল নিয়ে নাওয়াল নব্বই দশকের [১১] এক নাম্বার নারী তারকায় পরিনত হয়েছিলেন।

১৯৯৪ সাল থেকে শুরু করে ২০০২ সাল পর্যন্ত, নাওয়াল প্রতি বছর একটি করে এ্যালবাম বের করেন এবং পর পর 8 বছর ধরে আরব বিশ্বের প্রথম নারী পপ তারকা হিসাবে রাজত্ব করেন। 1994 সাল থেকে ২00২ সালের মধ্যে প্রতি বছর নওয়ালের অন্তত একটা বড় হিট গান ছিল। সাফল্য এনে দেওয়া ১৯৯৪ সালের" আইজা এল রাড " এবং 1995 সালের " বালা ফাই জাম্যানি " এর পর, নওয়াল ১৯৯৬ সালে লেবাননের গায়ক ওয়ায়েল কেফিউরির সাথে খুবই জনপ্রিয় "মিন হাবিবি আনা" নামে একটি দ্বৈত গান গেয়েছিলেন, [১২] এই দ্বৈত গান বছরের সেরা গান এবং শিল্পীরা যুগের সেরা শিল্পী হয়েছিল ।

১৯৯৮ সালে, নওয়াল আল- জগবি তার সবচেয়ে বেশি বিক্রীত অ্যালবাম " ম্যান্ডাম অ্যালিক " প্রকাশ করেছিলেন।এরপর ১৯৯৯ সালে আসে মালঊম এ্যালবাম।

২০০৪-২০০৬: ইনিক কাদ্দাবিনইয়ামা আলু এর নতুন সাফল্য[সম্পাদনা]

দুই বছরের বিরতির পর, তার পরবর্তী অ্যালবাম, ইনিক কাদবিবিন, ২০০৪ এর গ্রীষ্মে মুক্তি পায়। এই অ্যালবাম এ দুটি একক সঙ্গিত ছিল: "ইনিক কাদ্দাবিন" এবং "বি'ইনেক"। "বাই'ইনেক" ভিডিওটি নাদিন ল্যাবাকি পরিচালনা করেছিলেন এবং এতে নাওয়াল কে একটি কল্পিত মঞ্চে তার ভক্তদের মধ্যে নাচতে ও গাইতে দেখা গিয়েছিল। ভিডিও এবং গানটি ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল যা নাওয়াল কে ভক্ত ও মিডিয়ার দেওয়া "সোনালী তারকা"র ধারাবাহিক সাফল্যের প্রমাণ। সেই অ্যালবামটি প্রচারের পরে অবিলম্বে, 24 নভেম্বর 2005 তারিখে ইএমআই মিউজিক ডিস্ট্রিবিউশন লেবেল এর মাধ্যমে তার সর্বকালীন হিটগুলির সংকলন অ্যালবামটি আন্তর্জাতিকভাবে প্রকাশের সময় তার পরবর্তী প্রকল্প "ইয়ামা আলাউ" এর কাজ শুরু করেন।

পেপসির সাথে তার ৫ বছর মেয়াদি চুক্তির শেষ টা স্মরনীয় করে রাখতে ২০০৫ এর আগস্টে তার আসন্ন এ্যালবাম "রঊহি ইয়া রউহি"র প্রথম একক গান প্রকাশ করেন।এই গাবের মিউজিক ভিডিওতেই তিনি শেষ বারের মত পেপসির জন্য বিজ্ঞাপন করেন।[১৩]

ইয়ামা আলাউ থেকে মুক্তিপ্রাপ্ত পরবর্তী একক "শো আখবারক" ফেব্রুয়ারী 2006 সালে প্রকাশ পেয়েছিল যা ছিল যা লেবাননে একটি বড় রকম হিট। সমগ্র মধ্য-প্রাচ্য জুড়ে ইয়ামা আলাউ এর মুক্তির কথা ছিল ১৭ জুলাই,২০০৬ সালে, তবে লেবাননের উপর ইসরায়েলি হামলার কারণে তার মুক্তি স্থগিত করা হয়েছিল।এরপরে ২৬ জুলাই ২০০৬ এ মিশর ও সৌদি আরবে মুক্তি পেয়েছিল। পরবর্তী সপ্তাহগুলিতে, অ্যালবামটি মধ্য প্রাচ্যের প্রায় অন্যান্য দেশে সহজলভ্য করা হয়েছিল এবং অবশেষে যুদ্ধ শেষ হয়ে গেলে ১৪ সেপ্টেম্বর ২০০৬ এ লেবাননে মুক্তি পেয়েছিল।[১৪]

২০১৩-২০১৫: একক এবং মেচ মেসামহা[সম্পাদনা]

১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৩ তে একই সময়ে টিভি ও রেডিওতে তার একক "ঘরিবি হাল দেন্নই" প্রকাশ করেন নওয়াল। এই একক সঙ্গীতের ভিডিও তার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রথমবার আত্মপ্রকাশ করে এবং মাত্র ২ সপ্তাহের মধ্যে ১ মিলিয়ন দর্শক তা দেখে।[১৫] গানটি ৩ মার্চ ২০১৩ তারিখে অফিসিয়াল লেবানিজ টপ ২0 চার্ট[১৬] এর এক নম্বর গান হয়ে ওঠে, যা গোল্ডেন স্টারের জনপ্রিয়তা ও চলমান সাফল্যে আরও একবার প্রমাণ করে।

মে ২০১৩ তে "আরব আইডল" প্রাইম এ গাওয়ার মাধ্যমে তার প্রথম ইরাকি গান "ঘাজিলনি" প্রকাশ করেন। গানটি ভক্ত এবং সংগীত সমালোচকদের দ্বারা ভালভাবে গৃহীত হয়েছিল এবং আরব বিশ্বের অধিকাংশ এয়ারপ্লে চার্টগুলির শীর্ষ ১০ এ প্রবেশ করতে সক্ষম হয়েছিল। ৯ জুন ২০১৩ তারিখে গাজিলনি অফিসিয়াল লেবানিজ শীর্ষ ২0 চার্টের ৭ নম্বর স্থানে উঠেছিল।[১৬]

২০১৩ সালের "ওটিভি এ্যাওয়ার্ড" এ "ঘারিবি হাল ডেনই" একক গানের জন্য লোভনীয় "সেরা লেবানিজ গায়িকা" এবং "সেরা গান" এবং "সেরা ভিডিও ক্লিপ" পুরস্কার জয়ের মাধ্যমে ২০১৩ সালটি উত্তুঙ্গে থেকে শেষ করেন। অনুষ্ঠানটি এই বছরের প্রথমবারের মতো বৈরুতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং এটি স্থানীয় লেবানিজ টিভি চ্যানেল ওটিভি নেটওয়ার্ক দ্বারা আয়োজিত হয়েছিল এবং এর ফলাফল জনগণের ভোটের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছিল।[১৭][১৮][১৯]

২০১৪ সালে,নাওয়াল মুরসেস ডি'ওর পুরষ্কারে "চলমান সাফল্যের সেরা লেবানিজ গায়ক" এবং "সেরা দৃষ্টিনন্দন পোষাক ২০১৪" এর জন্য পুরস্কারসহ বিভিন্ন পুরষ্কার জিতে চলেছিলেন। সারা বছর জুড়ে, আল জগভি "মিঃ লেবানন ২০১৪" এবং "স্টার অ্যাকাডেমি" সহ নামকরা টিভি শোগুলিতে উপস্থিত ছিলেন। জুহাইর মুরাদের তৈরি পোষাকে তিনি সেই বছর উল্লেখিত সবগুলো অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন।

নাওয়াল ১ জানুয়ারি ২০১৫ তে মাজ্জিকের মাধ্যমে ভিডিও প্রকাশের সাথে,"আলাম আল ফান" এর অধীনে নতুন একক "ওয়ালা বাহেবাক" প্রকাশের মাধ্যমে বছর শেষ করেন।[২০]

নওয়াল অবশেষে "মাজিকা" সংগীত লেবেলের অধীনে ২৭ আগস্ট ২০১৫[২১] তে তার অ্যালবাম মেচ মেসামহা প্রকাশ করেছিলেন। অ্যালবামটিতে পূর্বে প্রকাশিত একক এবং নতুন গান ছিল[২২], যার মধ্যে ছিল হিট "ইয়া গাড্ডা", যা পরিচালক জো বু ঈদ দ্বারা রোমানিয়াতে শট করা হয়েছিল।[২৩]

আন্তর্জাতিক বিজ্ঞাপন প্রচারণা[সম্পাদনা]
এলজি[সম্পাদনা]

নাওয়াল মধ্য-প্রাচ্যে ২০০৭ এ "এলজি সাইন" এর মডেল ছিলেন। নওয়াব কে "ইয়াম আলাউ" অ্যালবাম এর মিউজিক ভিডিও "আঘলা এল হাবায়েব" এ ফোনটিসহ দেখা গেছে।

ক্লাসি লেন্স[সম্পাদনা]

নওয়াল ক্লাসি লেন্স ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন করেছিলেন এবং তিনি "খালাস সামেহত" অ্যালবাম এর মিউজিক ভিডিও "লেহ মুশতাকালক" তে 2008 সালে সেগুলো পড়ে উপস্থিত হন।

বোনজা ব্যাগ[সম্পাদনা]

২০১৩ এর গ্রীষ্মে নাওয়াল প্রচুর বিলবোর্ড বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে বোনজা ব্যাগের মডেল হন।[২৪]

ডিসকোগ্রাফি[সম্পাদনা]

অ্যালবাম

পুরস্কার[সম্পাদনা]

১৯৯৭

  • লেবানন ও জর্ডানে সেরা গায়কের জন্য "লায়নস" পুরস্কার[২৫]
  • লেবাননে "সেরা গায়িকা"[২৫]
  • আরবি বিশ্বের "সেরা গায়িকা"

১৯৯৮

সংযুক্ত আরব আমিরাতে "সেরা গায়িকা"

১৯৯৯

  • "প্রথম আরবি গায়ক"[২৫]
  • সেরা মহিলা (জর্দান)
  • সেরা মহিলা (লেবানন)
  • সেরা মহিলা (মিশর)
  • বছরের সেরা শিল্পী

২০০০

  • লেবাননের সেরা গায়িকা[২৫]
  • সেরা আরবি গায়িকা (মিশর)

২০০৪

  • মুরেক্স ডি 'বা পুরষ্কার: বছরের সেরা লেবানিজ গায়িকা [১১]
  • আরব মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস: সেরা মহিলা গায়ক[২৫]
  • আরব মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস: সামগ্রিক সেরা গান[২৫]
  • সেরা আরবি গায়িকা (মিশর)[২৫]
  • সেরা অ্যালবাম (লেবানন)[২৫]
  • লেবাননের সেরা গায়িকা

২০০৫

সেরা আরবি গায়িকা (মিশর)

২০০৬

  • সেরা আরবি গায়িকা (টিএসি)
  • বছরের সেরা অ্যালবাম "ইয়ামা আলাউ" (টিএসি)
  • বছরের সেরা গান "ইয়ামা আলাউ" (টিএসি)
  • বছরের সেরা ক্লিপ "ইয়ামা আলাউ" (টিএসি)
  • বছরের সেরা নাচের গান "ইয়ামা আলাউ" (টিএসি)
  • সেরা অ্যালবাম "ইয়ামা আলাউ" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা গান "ইয়ামা আলাউ" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা ভিডিও "ইয়ামা আলাউ" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • শ্রেষ্ঠ ড্যান্স সং "ইয়ামা আলাউ" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সপ্তাহের সেরা বিনোদন - ১০ বার (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • বছরের সেরা বিনোদন (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • গায়ক সেরা ভক্ত (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা আরব শিল্পী (আরবীয় পুরষ্কার)
  • এইউএসটি (লেবানন) কর্তৃক সেরা গায়িকা পুরস্কার

২০০৭

  • সেরা আরবি গায়ক (টিএসি)
  • বছরের সেরা গান "আঘলা এল হাবায়েব" (টিএসি)
  • ক্লিপ অফ দ্য ইয়ার "আঘলা এল হাবিয়াব" (টিএসি)
  • বছরের সেরা ড্যান্স সং "আদি" (টিএসি)
  • সেরা গান "আঘলা এল হাবাইয়েব" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা ভিডিও "আঘলা এল হাবয়েব" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • শ্রেষ্ঠ ড্যান্স সং "আদি" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা লেবাননের গান "আঘলা এল হাবাইয়েব" (লেবানন বিনোদন-লে)
  • 'আদি' (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই) এর জন্য সেরা খলিজী গান
  • বছরের সেরা বিনোদন (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • গায়ক এর সেরা ভক্ত (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা ফ্যান গ্রুপ (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা ওয়েবসাইট (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • ফ্যাশন আইডল (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা কনসার্ট "কার্টেজ" (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • কানাত খামাস নূজুমের জন্য টিভি শোতে সেরা শিল্পী
  • ভোটিং স্টার বিজয়ী (লেবানন এন্টারটেইনমেন্ট-এলই)
  • সেরা আরব শিল্পী (আরবীয় পুরষ্কার)
  • বছরের সেরা শিল্পী (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • গোল্ড ডুলেক্স অ্যালবাম (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • প্রিয় মহিলা শিল্পী (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • সেরা পোষাক পরিহিত শিল্পী (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • আমেরিকায় সর্বাধিক বিখ্যাত (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • সবচেয়ে সেরা ২008 (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • বছরের সেরা অ্যালবাম "ইয়ামা আলাউ" (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • "আদি" (জেই অ্যাওয়ার্ডস) এর জন্য সেরা খলিজী গান
  • ভিডিও অফ দ্য ইয়ার "আঘলা এল হাবাইয়েব" (জেই অ্যাওয়ার্ডস)
  • আরব হটি (জেই অ্যাওয়ার্ডস)

২০০৮

  • লেইহ মোশ্তা2আলাক - শ্রেষ্ঠ গান - মুরেক্স ডি 'ওর
  • সেরা গান - লেইহ মোশ্তা2আলাক মীম

২০০৯

  • সর্বাধিক সফল শিল্পী - রোটানা (ম্যানেজার)
  • মালয়েশিয়ায় সম্মানিত
  • ২০০৯ সালে যৌনাবেদনময়ি এবং সবচেয়ে বেশি আকাঙ্ক্ষিত আরব নারীর তালিকায় 5 ম স্থান ।

২০১১

  • বছরের সেরা প্ল্যাটিনাম সেলস অ্যালবাম - ভার্জিন
  • আরবি ওয়ার্ল্ড মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস পুরস্কারের জন্য প্রথম প্রার্থী অ্যালবাম

২০১২

বছরের সেরা লেবানিজ মহিলা গায়ক (মুরেক্স ডি'আর)

২০১৩

  • সেরা লেবাননের গায়ক (ওটিভি অ্যাওয়ার্ড ২013)[২৬]
  • "ঘরিবি হাল দিনি" (ওটিভি অ্যাওয়ার্ড ২013) এর জন্য সেরা গান এবং ভিডিও ক্লিপ [২৬]

২০১৪

চলমান সাফল্যের সেরা লেবানিজ গায়ক (মুরেক্স ডি'আর)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Civil record revealing official birth year"www.albawaba.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-১৫ 
  2. "Archived copy"। ১৭ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১০ 
  3. [১][অকার্যকর সংযোগ]
  4. [২][অকার্যকর সংযোগ]
  5. [৩][অকার্যকর সংযোগ]
  6. "Nawal Al Zoghbi: Neither Married nor Divorced!"waleg.com 
  7. "Archived copy"। ২৩ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১০ 
  8. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; beiruting.com নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  9. "Nawal Al Zoghbi Gets Custody Over Her Children & Her Song's Titles Exclusively on Wikeez!"wikeez.com [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  10. "Nawal Al Zoghbi's Divorce Is Officially Finallized"wikeez.com। ২০ সেপ্টেম্বর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৯ 
  11. "Nawal Al Zoghbi"lebanonlinks.com 
  12. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; lebanonlinks.com2 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  13. Music and media in the Arab world। Frishkopf, Michael Aaron, (First সংস্করণ)। Cairo। পৃষ্ঠা 104। আইএসবিএন 9781617976032ওসিএলসি 891590944 
  14. "Nawal El Zoghby Great New Album, Wrong Timing"fanoos.com 
  15. ইউটিউবে ভিডিও
  16. "The Official Lebanese Top 20 – Nawal Al Zoghbi"The official lebanese Top 20 
  17. "Nawal Al Zoghbi basks in her OTV glory,"Al Bawaba 
  18. "Nawal Al Zoghbi wins OTV awards for 2013 best song and video"Levant TV। ২০১৩-১২-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  19. "Beiruting – Events – OTV Awards 2013"beiruting.com 
  20. ইউটিউবে ভিডিও
  21. Mesh Mesamha by Nawal Al Zoghbi (ইংরেজি ভাষায়), সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-১৫ 
  22. "نوال الزغبي تطرح «مش مسامحة» السبت | المصري اليوم"www.almasryalyoum.com (আরবি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০২-১৫ 
  23. "Ya Gadaa video infomation" 
  24. "Nawal al-Zoghbi for BONJA bags"arabtoday.net। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১৮ 
  25. "About Nawal El Zoghby"nawalelzoghby.com। ১৭ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জানুয়ারি ২০১৩ 
  26. Saudi Gazette। "Nawal Al Zoghbi's 'Strange World' is on top"saudigazette.com.sa। ২০১৩-১২-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।