দ্বিজেন বন্দ্যোপাধ্যায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
দ্বিজেন বন্দ্যোপাধ্যায়
জন্ম(১৯৪৯-০৯-২২)২২ সেপ্টেম্বর ১৯৪৯
মৃত্যু২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭(2017-09-27) (বয়স ৬৮)
কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ,  ভারত
জাতীয়তাভারতীয়
পরিচিতির কারণঅটোগ্রাফ, জাতিশ্বর, পেন্ডুলাম, ফড়িং

দ্বিজেন বন্দ্যোপাধ্যায় (২২ সেপ্টেম্বর, ১৯৪৯-২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭) হলেন পশ্চিমবঙ্গের একজন প্রবীণ অভিনেতা এবং নাট্য ব্যক্তিত্ব। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সালে হৃদরোগে তাঁর মৃত্যু হয়।[১]

কর্ম জীবন[সম্পাদনা]

দ্বিজেন বন্দোপাধ্যায় একটি জনপ্রিয় বাংলা কমেডি ধারাবাহিক চুনি পান্ন এবং লাবন্যের সংসার এর মাধ্যমে দর্শকের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। [২] পরে তিনি বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পে প্রবেশ করেন। তিনি বিভিন্ন চলচ্চিত্র এবং টি.ভি. ধারাবাহিকে অভিনয় করেন। দ্বিজেন কলকাতার গ্রুপ থিয়েটার সহ অন্যধারার ও মূলধারার উভয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তার উল্লেখযোগ্য নাটকগুলির মধ্যে আছে দানসাগর, অমিতাক্ষর, সমাবর্তন, কুমারসম্ভব, ঘোড়া, নিলাম নিলাম, ভস্মা, গ্যালিলেওর জীবন, দশচক্র, সাদা ঘোড়া, গিরগিটি, গাজি সাহেবের কিসসা ইত্যাদি। পশ্চিমবঙ্গ নাট্য আকাদেমির হয়ে করেন বলিদান।দ্বিজেন নিজস্ব নাট্যদল সংস্তব প্রতিষ্ঠা করেন ১৯৮২ সালে। বলিদান নাটকে অভিনয়ের জন্য তিনি পশ্চিমবঙ্গ নাট্য আকাদেমির বিশিষ্ট অভিনেতার পুরস্কার পান ১৯৯২ সালে।[৩][৪][৫]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

তিনি অভিনয় করেছেন:

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সালে, দ্বিজেন বন্দোপাধ্যায় ৬৮ বছর বয়সে কলকাতায় তাঁর বাড়িতে হৃদরোগে কারতে মারা যান।[৫][৬]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "প্রয়াত অভিনেতা দ্বিজেন বন্দ্যোপাধ্যায়"। আনন্দবাজার প্রত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  2. "Gods and men must be crazy"telegraphindia.com। জুলাই ৭, ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ 
  3. PTI। "Veteran Bengali actor Dwijen Bandyopadhyay dead"indiatoday.intoday.in। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ 
  4. "Veteran Bengali actor Dwijen Bandyopadhyay dead"business-standard.com। সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ 
  5. "Veteran Bengali actor Dwijen Bandyopadhyay dead"outlookindia.com। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭ 
  6. "Veteran Bengali actor Dwijen Bandyopadhyay dead"tribuneindia.com। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৭